বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > আবার মাঠে নামছেন বেকহ্যাম!
প্রথম প্রফেশনাল ম্যাচে রোমিও বেকহ্যাম। ছবি- টুইটার।
প্রথম প্রফেশনাল ম্যাচে রোমিও বেকহ্যাম। ছবি- টুইটার।

আবার মাঠে নামছেন বেকহ্যাম!

  • রবিবারই (১৯ সেপ্টেম্বর) আমেরিকার তৃতীয় ডিভিশনের দল ফোর্ট লডারডেলের হয়ে রোমিও নিজের অভিষেক ঘটান।

একই প্রফেশনে বাবা বা কোন পূর্বপুরুষ যদি অত্যন্ত সফল হয়, তাহলে সেই একই পথে পরবর্তী প্রজন্ম হাঁটলে অবধারিতভাবে তুলনা আসবে। বিশেষত কারুর বাবা যদি কিংবদন্তী ডেভিড বেকহ্যাম হন, তাহলে চাপ এমনিই বেড়ে যায়। তবে সেইদিকে নজর না দিয়ে বাবা ডেভিডের মতো ফুটবলার হিসাবেই পথ চলা শুরু করলেন রোমিও বেকহ্যাম।

কিংবদন্তী প্রাক্তন ইংলিশ ফুটবল দলের অধিনায়কের পাঁচ সন্তানের মধ্যে দ্বিতীয়, রোমিও সদ্য ১৯-এ পা দিয়েছেন। রবিবারই (১৯ সেপ্টেম্বর) আমেরিকার তৃতীয় ডিভিশনের দল ফোর্ট লডারডেলের হয়ে রোমিও নিজের প্রফেশনাল ফুটবলে অভিষেক ঘটান। ম্যাচে তাঁর দল সাউথ জর্জিয়া টর্মেন্টার সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করে। প্রসঙ্গত, লডারডেল ডেভিড বেকহ্যামের এমএলএস দল ইন্টার মায়ামির সিস্টার ক্লাব।

তবে রোমি, বাবার মতো আইকনিক সাত নম্বর জার্সি নয়, বরং ১১ নম্বর জার্সি পরে মাঠে নামেন। ম্যাচে শুধু রোমিও বেকহ্যাম নয়, ডেভিড বেকহ্যামের প্রাক্তন ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড সতীর্থ ফিল নেভিলের ছেলে হার্ভে নেভিলও খেলেন। নেভিল ভাইদের মধ্যে ছোট, ফিল ইংল্যান্ড মহিলা দলকে কোচিং করানোর পর বর্তমানে ইন্টার মায়ামির দায়িত্বে আছেন।

একই ফ্রেমে রোমিও বেকহ্যাম এবং হার্ভে নেভিল। ছবি- টুইটার।
একই ফ্রেমে রোমিও বেকহ্যাম এবং হার্ভে নেভিল। ছবি- টুইটার।

বাবার মতো রোমিও মাঝমাঠেই খেলেন এবং অনেকটা ডেভিডের মতো একইরকম টেকনিকে ম্যাচে তাকে বেশ কয়েকটি বল ক্রস করতেও দেখা যায়। তবে কোন গোল বা অ্যাসিস্ট করেননি তিনি। ম্যাচের পর রোমিও নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে এক পোস্টে লেখেন, ‘আমার প্রো (প্রফেশনাল) অভিষেক ঘটাতে পেরে দারুণ লাগছে। এবার পরের ম্যাচের ওপর সম্পূর্ণ ফোকাস করতে চাই।’

বন্ধ করুন