বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ৫ সেপ্টেম্বর থেকে কলকাতায় বসছে ডুরান্ড কাপের আসর, কী করবে SC ইস্টবেঙ্গল ও ATK মোহনবাগান?
৫ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ডুরান্ড কাপ (ছবি:টুইটার)
৫ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ডুরান্ড কাপ (ছবি:টুইটার)

৫ সেপ্টেম্বর থেকে কলকাতায় বসছে ডুরান্ড কাপের আসর, কী করবে SC ইস্টবেঙ্গল ও ATK মোহনবাগান?

  • আসন্ন ১৩০ তম ডুরান্ড কাপ এ বার অনুষ্ঠিত হবে কলকাতাতেই। বৃহস্পতিবার নিজেদের সিদ্ধান্ত আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা করে জানিয়েদিল ডুরান্ড কর্তৃপক্ষ। এখন প্রশ্ন হল কী করবে SC ইস্টবেঙ্গল ও ATK মোহনবাগান?

করোনার সব বাধা টপকে আবার শুরু হতে চলেছে ডুরান্ড কাপ। আসন্ন ১৩০ তম ডুরান্ড কাপ এ বার অনুষ্ঠিত হবে কলকাতাতেই। বৃহস্পতিবার নিজেদের সিদ্ধান্ত আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা করে জানিয়েদিল ডুরান্ড কর্তৃপক্ষ। সার্ভিসেসের চারটি দল সহ মোট ১৬টি দল খেলবে এ বারের ডুরান্ড কাপে। কিন্তু এ বারের ডুরান্ড কাপে কি লাল হলুদ ও সবুজ মেরুনকে খেলতে দেখা যাবে? সেটাই এখন সব থেকে বড় প্রশ্ন। এই প্রশ্নের উত্তরের জন্য সকলে ৫ সেপ্টেম্বরের দিকে তাকিয়ে রয়েছে। কারণ বিশ্বের তৃতীয় প্রাচীনতম টুর্নামেন্ট এবং এশিয়ার প্রাচীনতম টুর্নামেন্ট শুরু হবে আগামী ৫ সেপ্টেম্বর থেকে। টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে ৩ অক্টোবর। 

১৮৮৮ সালে শুরু হয়েছিল ডুরান্ড কাপ। কলকাতা দুই প্রধান ইস্টবেঙ্গল ও মোহনবাগান টুর্নামেন্টের সব থেকে সফল দুটি দল। ২০১৯ সালে দিল্লি থেকে সরিয়ে কলকাতায় আনা হয়েছিল ডুরান্ড কাপের আসর। গত বছর করোনার জন্য এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। এক বছর পরে আবারও অনুষ্ঠিত হতে চলেছে ডুরান্ড কাপ। সেনার টুর্নামেন্ট হলেও প্রতিবারের মত এ বারও টুর্নামেন্ট হবে ভারতীয় ফুটবল ফেডারেশেনের তত্ত্বাবধানে। ডুরান্ড কাপ আয়োজনের জন্য এআইএফএফ-এর সঙ্গে থাকছে আইএফএ ও পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

এ বারের ডুরান্ড কাপের খেলাগুলি অনুষ্ঠিত হবে কলকাতায়, এ ছাড়াও শহরের সংলগ্ন একাধিক স্টেডিয়ামে ম্যাচের আয়োজন করা হতে পারে। তবে সকলেরই প্রশ্ন মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গল কি এ বারের টুর্নামেন্টে অংশ নেবে। সুত্রের খবর, ঐতিহ্যবাহী টুর্নামেন্টে রয় কৃষ্ণদের না দেখা গেলেও এই টুর্নামেন্টে অংশ নিতে পারে সবুজ মেরুনের ‘বি’ টিম। এএফসি কাপের জন্য মোহনবাগানের প্রধান দল নাও খেলতে পারে। অন্যদিকে ক্লাব ও লগ্নিকারীর সংস্থার সমস্যা না মিটলে ইস্টবেঙ্গলের খেলা নিয়ে সংশয় রয়েই যাচ্ছে।

করোনার সব বাঁধা টপকে আবার শুরু হতে চলেছে ডুরান্ড কাপ। আসন্ন ১৩০ তম ডুরান্ড কাপ এ বার অনুষ্ঠিত হবে কলকাতাতেই। বৃহস্পতিবার নিজেদের সিদ্ধান্ত আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা করে জানিয়েদিল ডুরান্ড কর্তৃপক্ষ। সার্ভিসেসের চারটি দল সহ মোট ১৬টি দল খেলবে এ বারের ডুরান্ড কাপে। কিন্তু এ বারের ডুরান্ড কাপে কি লাল হলুদ ও সবুজ মেরুনকে খেলতে দেখা যাবে? সেটাই এখন সব থেকে বড় প্রশ্ন। এই প্রশ্নের উত্তরের জন্য সকলে ৫ সেপ্টেম্বরের দিকে তাকিয়ে রয়েছে। কারণ বিশ্বের তৃতীয় প্রাচীনতম টুর্নামেন্ট এবং এশিয়ার প্রাচীনতম টুর্নামেন্ট শুরু হবে আগামী ৫ সেপ্টেম্বর থেকে। টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে ৩ অক্টোবর। 

১৮৮৮ সালে শুরু হয়েছিল ডুরান্ড কাপ। কলকাতা দুই প্রধান ইস্টবেঙ্গল ও মোহনবাগান টুর্নামেন্টের সব থেকে সফল দুটি দল। ২০১৯ সালে দিল্লি থেকে সরিয়ে কলকাতায় আনা হয়েছিল ডুরান্ড কাপের আসর। গত বছর করোনার জন্য এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। এক বছর পরে আবারও অনুষ্ঠিত হতে চলেছে ডুরান্ড কাপ। সেনার টুর্নামেন্ট হলেও প্রতিবারের মত এ বারও টুর্নামেন্ট হবে ভারতীয় ফুটবল ফেডারেশেনের তত্ত্বাবধানে। ডুরান্ড কাপ আয়োজনের জন্য এআইএফএফ-এর সঙ্গে থাকছে আইএফএ ও পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

এ বারের ডুরান্ড কাপের খেলাগুলি অনুষ্ঠিত হবে কলকাতায়, এ ছাড়াও শহরের সংলগ্ন একাধিক স্টেডিয়ামে ম্যাচের আয়োজন করা হতে পারে। তবে সকলেরই প্রশ্ন মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গল কি এ বারের টুর্নামেন্টে অংশ নেবে। সুত্রের খবর, ঐতিহ্যবাহী টুর্নামেন্টে রয় কৃষ্ণদের না দেখা গেলেও এই টুর্নামেন্টে অংশ নিতে পারে সবুজ মেরুনের ‘বি’ টিম। এএফসি কাপের জন্য মোহনবাগানের প্রধান দল নাও খেলতে পারে। অন্যদিকে ক্লাব ও লগ্নিকারীর সংস্থার সমস্যা না মিটলে ইস্টবেঙ্গলের খেলা নিয়ে সংশয় রয়েই যাচ্ছে।|#+| 

বন্ধ করুন