বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > বিনিয়োগকারীর খোঁজেই তবে বাংলাদেশ যাচ্ছে ইস্টবেঙ্গল কর্তারা?

বিনিয়োগকারীর খোঁজেই তবে বাংলাদেশ যাচ্ছে ইস্টবেঙ্গল কর্তারা?

এসসি ইস্টবেঙ্গল।

শ্রী সিমেন্টের সঙ্গে যে লাল-হলুদের সম্পর্ক ভাঙছে, সে কথা এক প্রকার নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে। নতুন বিনিয়োগকারী খোঁজার মাঝেই, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইস্টবেঙ্গল ক্লাব তাঁবুতে বাংলাদেশের বসুন্ধরা গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্রের চেয়ারম্যান সায়েম সোবহান আনভীরকে সস্ত্রীক সংবর্ধনা জানিয়েছিল।

বিনিয়োগকারী খুঁজতে পদ্মাপারে যাচ্ছে ইস্টবেঙ্গল। এমনটা শোনা যাচ্ছিল, সেই খবরই সত্যি হতে চলেছে। শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র লিমিটেডের আমন্ত্রণে বাংলাদেশ যাচ্ছে লাল-হলুদের প্রতিনিধি দল। ইস্টবেঙ্গলের তরফে এ কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

লাল-হলুদের তরফে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে। তাতে লেখা, ‘বাংলাদেশের শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র লিমিটেডের পক্ষ থেকে আমরা আমন্ত্রণ পেয়েছি। আমরা ওই আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছি এবং আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, ২০২২-এর ১৩ই মার্চ বাংলাদেশে যাওয়ার।’

শ্রী সিমেন্টের সঙ্গে যে nen- সম্পর্ক ভাঙছে, সে কথা এক প্রকার নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে। নতুন বিনিয়োগকারী খোঁজার মাঝেই, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইস্টবেঙ্গল ক্লাব তাঁবুতে বাংলাদেশের বসুন্ধরা গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্রের চেয়ারম্যান সায়েম সোবহান আনভীরকে সস্ত্রীক সংবর্ধনা জানিয়েছিল। এর পর থেকেই জল্পনা, আগামী মরশুমে হয়তো বিনিয়োগকারী হতে চলেছে বাংলাদেশেরই।

গত দু'মরশুম ধরে আইএসএলে লাল-হলুদের বিনিয়োগকারী শ্রী সিমেন্ট। তারাই দু' মরশুম ধরে দল গঠন করছে। কিন্তু অত্যন্ত খারাপ, হতাশাজনক পারফরম্যান্স করেছে লাল-হলুদ। চলতি আইএসএলের ২০ ম্যাচে (১টি জয়, ৮টি ড্র ও ১১টি হার) ১১ পয়েন্ট নিয়ে লিগের 'লাস্টবয়' হয়েছে এসসি ইস্টবেঙ্গল। তাই পরের মরশুমে আর শ্রী সিমেন্টের হাতে রাজি নন ইস্টবেঙ্গল কর্তারা। নতুন মরশুমে নতুন লড়াই শুরু করতে চান তাঁরা।

বন্ধ করুন