বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > ইস্টবেঙ্গলের স্পোর্টিং রাইটস ফেরাল শ্রী সিমেন্ট, নতুন বিনিয়োগকারী নিয়ে জল্পনা

ইস্টবেঙ্গলের স্পোর্টিং রাইটস ফেরাল শ্রী সিমেন্ট, নতুন বিনিয়োগকারী নিয়ে জল্পনা

ইস্টবেঙ্গল ক্লাব।

দীর্ঘদিন ধরেই স্পোর্টিং রাইটস নিয়ে ইস্টবেঙ্গল এবং শ্রী সিমেন্টের মধ্যে ঝামেলা চলছিল। শেষ পর্যন্ত লাল-হলুদকে তাদের স্পোর্টিং রাইটস ফিরিয়ে দিল শ্রী সিমেন্ট। প্রসঙ্গত, ইস্টবেঙ্গল কিন্তু শ্রী সিমেন্টের জন্যই আইএসএলে অংশ নিতে পেরেছিল। যদিও হতশ্রী ফল করেছিল তারা।

সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে লাল-হলুদের বিনিয়োগকারী শ্রী সিমেন্টের সঙ্গে পাকাপাকি বিচ্ছেদ ঘটল ইস্টবেঙ্গলের। নতুম মরশুমে শ্রী সিমেন্ট আর বিনিয়োগকারী থাকছে না লাল-হলুদের। সব ঠিকঠাক থাকলে হয়তো বাংলাদেশের সংস্থাকে নতুন বিনিয়োগকারী হিসেবে পেতে চলেছে ইস্টবেঙ্গল। ইতিমধ্যেই কথাবার্তা অনেকদূর এগিয়ে গিয়েছে লাল-হলুদ কর্তাদের।

দীর্ঘদিন ধরেই স্পোর্টিং রাইটস নিয়ে ইস্টবেঙ্গল এবং শ্রী সিমেন্টের মধ্যে ঝামেলা চলছিল। শেষ পর্যন্ত লাল-হলুদকে তাদের স্পোর্টিং রাইটস ফিরিয়ে দিল শ্রী সিমেন্ট। প্রসঙ্গত, ইস্টবেঙ্গল কিন্তু শ্রী সিমেন্টের জন্যই আইএসএলে অংশ নিতে পেরেছিল। যদিও হতশ্রী ফল করেছিল তারা।

গত বছর আইএসএল শুরুর আগে বিনিয়োগকারী এবং ক্লাবের মধ্যে সমস্যা তীব্র আকার নিয়েছিল। ইস্টবেঙ্গলের আইএসএলে খেলা কার্যত অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হস্তক্ষেপে তা ধামাচাপা পড়ে। তবে গত মরশুম শেষ হওয়ার আগে থেকেই শ্রী সিমেন্টের সঙ্গে যে লাল-হলুদের সম্পর্ক বরাবরের মতো ভাঙতে চলেছিল, সেই ছবি পরিষ্কার হয়ে গিয়েছিল।

আসলে ক্লাব ও বিনিয়োগকারীর মধ্যে ২ বছরের চুক্তি ছিল। যার মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা চলতি বছরেই। ফলে মেয়াদ শেষে এমনিতেই স্পোর্টিং রাইটস ক্লাবকে ফিরিয়ে দিতে হত শ্রী সিমেন্টকে। মঙ্গলবার ক্লাবের তরফ থেকে এ খবর নিশ্চিত করে জানানো হয় যে, স্পোর্টিং রাইট ফেরানো হচ্ছে তাদের। বুধবার বিকেলে আনুষ্ঠানিক ভাবে শ্রী সিমেন্টের সঙ্গে বিচ্ছেদের কথা ঘোষণা করা হবে। প্রসঙ্গত, পরবর্তী বিনিয়োগকারী হিসেবে বাংলাদেশের বসুন্ধরা গ্রুপের সঙ্গে কথা চলছে।

বন্ধ করুন