বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > EPL 2021-22: নরউইচের বিরুদ্ধে পাঁচ গোলে দুরন্ত জয় আর্সেনালের, প্যালেসকে ৩-০ হারাল স্পার্স
গোল করে উচ্ছ্বসিত আর্সেনালের তরুণ তারকা বুকায়ো সাকা। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)
গোল করে উচ্ছ্বসিত আর্সেনালের তরুণ তারকা বুকায়ো সাকা। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)

EPL 2021-22: নরউইচের বিরুদ্ধে পাঁচ গোলে দুরন্ত জয় আর্সেনালের, প্যালেসকে ৩-০ হারাল স্পার্স

  • নাগাড়ে চতুর্থ ম্যাচ জিতে আর্সেনাল লিগ তালিকায় চার নম্বরে নিজের দখল মজবুত করল। ঠিক পরেই পাঁচে রয়েছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী স্পার্স।

নরউইচ সিটির মাঠে ইতিহাস সৃষ্টি করল আর্সেনাল। নরউইচের বিরুদ্ধে নিজের প্রিমিয়র লিগ ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ব্যবধান (যুগ্মভাবে), ৫-০ স্কোরে হারাল মিকেল আর্টেটার দল। দলের হয়ে ফের একবার জ্বলে উঠলেন তরুণ প্রতিভা বুকায়ো সাকা। ম্যাচে জোড়া গোল করে দলের নাগাড়ে চতুর্থ লিগ ম্যাচ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেন সাকা।

ম্যাচের ছয় মিনিটেই মার্টিন ওডেগার্ডের পাস থেকে বাঁখ খাওয়ানো শটে দলের গোলের খাতা খোলেন সাকা। প্রথম ৪৫ মিনিটে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত দাপিয়ে খেলে গার্নাসরা। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার ঠিক আগে, ৪৪ মিনিটে ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় অ্যাসিস্ট প্রদান করেন ওডেগার্ড। গোল করে দলের ব্যবধান দ্বিগুন করেন কায়রান টির্নি। দ্বিতীয়ার্ধে ৬৭ মিনিটে সাকা নিজের দ্বিতীয় ও ম্যাচের তৃতীয় গোল করার পর আর্সেনালের জয় শুধু সময়ের অপেক্ষা ছিল। 

ম্যাচ শেষ হওয়ার আগে আলেকজান্ডার লাকাজেট চতুর্থ ও এমিল স্মিথ রো দলের হয়ে পঞ্চম গোলটি করেন। এই নিয়ে পরপর চার ম্যাচে গোল করলেন স্মিথ রো। অপরদিকে, নরউইচ চার ম্যাচে প্রতিপক্ষের জালে বল জড়াতে ব্যর্থ হলেন। একদিকে যেখানে আর্সেনাল নরউইচকে গোলের মালা পরায়, অন্যদিকে উত্তর লন্ডনের আরেক দল টটেনহ্যাম হটস্পারও লন্ডন ডার্বিতে ক্রিস্টাল প্যালেসের বিরুদ্ধে বড় ব্যবধানে জয় সুনিশ্চিত করে।

স্পার্সের হয়ে ম্যাচের তারকা ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড লুকাস মৌরা। ম্যাচে এক গোল করার পাশপাশি দুটি অ্যাসিস্ট প্রদান করেন স্পার্স ফরোয়ার্ড। বহুদিন গোল না করার পর নাগাড়ে দ্বিতীয় লিগ ম্যাচে গোল করে ৩২ মিনিটে দলকে এগিয়ে দেন হ্যারি কেন। তার দুই মিনিট পরেই স্বদেশীয় এমারসন রয়্যালের ক্রস থেকে দুর্ধর্ষ হেডারে দলের লিড দ্বিগুন করেন মৌরা। মৌরার গোলের মাত্র তিন মিনিট পরেই দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে লাল কার্ড দেখেন প্যালেসের ট্যালিসমান উইলফ্রেড জাহা। 

দলের সেরা তারকাকে হারিয়ে ১০ জনের প্যালেসের জয়ের আশা প্রায় ছিলই না। তবে তারা ডিফেন্ড বেশ ভালই করে। প্রায় ঘন্টাখানেক ১০ জনে খেলেও তারা আর মাত্র একটি গোলই খায়। দ্বিতীয়ার্ধে ৭৪ মিনিটে মৌরার পাস থেকে সহজ ট্যাপ ইনে গোল করেন সন হিউং-মিন। আর কোনো গোল না হওয়ায় স্পার্স ৩-০ ব্যবধানে ম্যাচ জিতে নেয়।

ম্যাচের দ্বিতীয় গোল করার পর সতীর্থের কাঁধে চেপে লুকাস মৌরার সেলিব্রেশন। ছবি- টুইটার (@premierleague)।
ম্যাচের দ্বিতীয় গোল করার পর সতীর্থের কাঁধে চেপে লুকাস মৌরার সেলিব্রেশন। ছবি- টুইটার (@premierleague)।

এই জয়ের ফলে স্পার্স চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্সেনালের থেকে ছয় পয়েন্ট পিছিয়ে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে রয়েছে। অবশ্য আর্সেনালের থেকে তিন ম্যাচ কম খেলেছেন তারা। অপরদিকে, নরউইচকে হারিয়ে আর্সেনাল লিগ তালিকায় ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে বজায় রইল। প্য়ালেস ও নরউইচ যথাক্রমে টেবিলে ১২ ও ২০ নম্বরে রয়েছে। আগামী মরশুমে ইউরোপিয়ান ফুটবলের আশায় থাকা উলভসের বিরুদ্ধে গানার্সদের পরের ম্যাচ কিন্তু বেশ কঠিন হবে। স্পার্সের প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট হ্যামকে হারিয়ে আত্মবিশ্বাস ফেরানো সাউদাম্পটন।

বন্ধ করুন