বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > Euro 2020: ইতালির করোনা বিধির জেরে পাল্টা চাপে পড়েছেন ব্রিটিশ সমর্থকেরা
চাপে পড়ে গিয়েছেন ব্রিটিশ সমর্থকেরা।
চাপে পড়ে গিয়েছেন ব্রিটিশ সমর্থকেরা।

Euro 2020: ইতালির করোনা বিধির জেরে পাল্টা চাপে পড়েছেন ব্রিটিশ সমর্থকেরা

  • রোমে শনিবার রাতে ইউরোর কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ড-ইউক্রেন মুখোমুখি হবে। সেই ম্যাচ স্টেডিয়ামে বসে দেখার জন্য উদগ্রীব হয়ে রয়েছেন ইংল্যান্ডের সমর্থকেরা। কিন্তু রোমে বসে হ্যারি কেনদের ম্যাচ দেখতে হলে পাঁচ দিন বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে ব্রিটিশ সমর্থকদের।

করোনা বিধির জেরে ইউরোর সেমিফাইনাল, ফাইনাল ওয়েম্বলিতে করা নিয়ে চাপানউতোর শুরু হয়েছিল। ইংল্যান্ডের কড়া করোনা বিধির জেরে ইউরোর সেমিফাইনাল, ফাইনালে অন্য দলের সমর্থকদের ম্যাচ দেখতে আসা নিয়ে প্রশ্ন উঠে গিয়েছিল। এমন অবস্থা হয়েছিল যে ম্যাচ ওয়েম্বলি থেকে সরানোর ভাবনাও শুরু করে দিয়েছিল উয়েফা। শেষ পর্যন্ত অনেক আলোচনার মাধ্যমে ব্যাপারটা মিটে যায়। কিন্তু এখন রোমে অনুষ্ঠিত কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচকে ঘিরে নতুন সমস্যা শুরু হয়েছে। যাতে চাপে পড়ে গিয়েছেন ব্রিটিশ সমর্থকেরা।

আসলে করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখেই কড়া নিয়ম চালু করেছে ইতালিও। সে দেশে রমরম করে ইউরোর ম্যাচ হলেও নতুন করে সংক্রমণের খবরও শোনা যাচ্ছে। যে কারণে বাড়তি সতর্কতা নিচ্ছে ইতালি। ইংল্যান্ড সমর্থকদের জন্য বিশেষ নিয়মও তারা জারি করেছে।

রোমে শনিবার রাতে  ইউরোর কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ড-ইউক্রেন মুখোমুখি হবে। সেই ম্যাচ স্টেডিয়ামে বসে দেখার জন্য উদগ্রীব হয়ে রয়েছেন ইংল্যান্ডের সমর্থকেরা। কিন্তু রোমে বসে হ্যারি কেনদের ম্যাচ দেখতে হলে পাঁচ দিন বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে ব্রিটিশ সমর্থকদের। তার কারণ, ব্রিটেনে নতুন করে করোনাভাইরাসের নয়া প্রজাতি ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট মাথাচাড়া দিয়েছে । সে কারণে দেশের মানুষের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখেই নতুন নিয়ম জারি করেছে ইতালি। আর এতে বিপাকে পড়েছে ব্রিটিশ সমর্থকেরা।

এই সমস্ত কারণে ইতালি ইতিমধ্যেই কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছে। সে দেশের পুলিশও সর্বত্র ঘুরে বেড়াচ্ছে যাতে কেউ নতুন করে টিকিট বিক্রি করতে না পারে। ইতালির অ্যাম্বাসেডর রাফায়েল ত্রোমবেত্তা ব্রিটেন সরকারকে পরিষ্কার ভাবে জানিয়ে দিয়েছেন, ‘ইংল্যান্ডের সমর্থকেরা যেন ইতালিতে না আসেন। কারণ কোয়ারান্টিনে থাকার সময় পার হয়ে গিয়েছে। আর যদি কেউ ম্যাচ দেখার টিকিট কেটেও ফেলেন, তাঁরা কিন্তু মাঠে ঢুকতে পারবেন না।’

ইংরেজ সমর্থকদের কাছে শুধু ম্যাচ দেখার টিকিট থাকলেই হবে না। তাদের টিকাকরণের প্রমাণপত্র, নেগেটিভ কোভিড রিপোর্ট এবং ৫ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকার প্রমাণপত্রও দেখাতে হবে। আর যদি কোনও ব্রিটিশ সমর্থকের কাছে টিকিট থাকে এবং তিনি যদি এই নথিগুলো দেখাতে না পারেন, সে ক্ষেত্রে তাঁকে গ্রেফতার করা হবে।

বন্ধ করুন