বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > EURO 2020: গোল বাতিলের পরেও আরও তিন গোল, প্রথম দল হিসেবে পরের পর্বে ইতালি
এক ম্যাচ বাকি থাকতেই ইউরোর পরের পর্বে পৌঁছে গেল ইতালি। ছবি: রয়টার্স

EURO 2020: গোল বাতিলের পরেও আরও তিন গোল, প্রথম দল হিসেবে পরের পর্বে ইতালি

  • যোগ্যতা অর্জন পর্বের খেলায় টানা ১০ ম্যাচ জিতে মূলপর্বে খেলতে এসেছে ইতালি। আর সেই ধারাটাই পরের পর্বেও ধরে রেখেছে তারা। তুরস্কের পর সুইজারল্যান্ডকেও সহজে হারিয়েই শেষ ষোলোয় পৌঁছলেন চিয়েলিনিরা।

এ যেন একেবারে অচেনা ইতালি। যে দলটা ২০১৮ বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জন করতেই পারেনি, তারাই আজ ইউরোর মঞ্চে ফুল ফোটাচ্ছে। এক ম্যাচ বাকি থাকতেই শেষ ষোলোয় পৌঁছে গিয়েছে রবার্তো মানচিনির দল। ইউরোর প্রথম দল হিসেবে পরের পর্বে পৌঁছল ইতালি।

যোগ্যতা অর্জন পর্বের খেলায় টানা ১০ ম্যাচ জিতে মূলপর্বে খেলতে এসেছে ইতালি। আর সেই ধারাটাই পরের পর্বেও ধরে রেখেছে তারা। তুরস্কের পর সুইজারল্যান্ডকেও সহজে হারিয়েই শেষ ষোলোয় পৌঁছলেন চিয়েলিনিরা। বুধবার ভারতীয় সময়ে গভীর রাতে সুইজারল্যান্ডকে ৩-০ হারায় ইতালি। 

যে দলটির পিঠ একটা সময়ে দেওয়ালে ঠেকে গিয়েছিল, সেই দলটিই মানচিনির হাতে পরে একেবারে বদলে গিয়েছে। যেন খোলস ছেড়ে বেরিয়ে এসেছে তারা। খেলার মধ্যেও ফিরে এসেছে চেনা সেই আত্মবিশ্বাস। না হলে তাদের এক গোল বাতিল হওয়ার পরেও হার না মানা মানসিকতা নিয়ে, দাপটের সঙ্গে ৩-০ জিততে পারে!

দক্ষ ডিফেন্সের সঙ্গে আক্রমণের ঝাঁজ, মাঝমাঠের মেলবন্ধনে টিম ইতালি যেন বিপক্ষ দলকে একেবারে কোণঠাঁসা করে ছাড়ছে। ছোটছোট পাস খেলে ওপরে ওঠা, উইং দিয়ে আক্রমণ, বিপক্ষের ডিফেন্স একেবারে কেঁপে যাচ্ছে। 

ম্যাচের ১৯ মিনিটে চিয়েলিনি প্রথম গোলের মুখ খোলেন। কিন্তু সেই গোলটি হ্যান্ডবল হওয়ায় বাতিল হয়ে যায়। এর পরে বরং আরও তেতে ওঠে ইতালি। তবে চোটের কারণে চিয়েলিনিকে মাঠ ছাড়তে হয়। এতে অবশ্য কোনও সমস্যা হয়নি। এর পরেও সুইজারল্যান্ড আক্রমণে ওঠার এতটুকু সুযোগ পায়নি। চিয়েলিনি উঠে যাওয়ার ঠিক পরেই ম্যাচের ২৬ মিনিটের মাথায় মানুয়েল লোকাতেলি ১-০ করেন। গোলটি সেই উইং ধরে আক্রমণেরই ফল। 

প্রথমার্ধে প্রায় দশ জন মিলেই ডিফেন্স সামলাতে হিমশিম খাচ্ছিল সুইজারল্যান্ড। দ্বিতীয়ার্ধেও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি। নীল ঝড়ে একেবারে দিশেহারা লাগছিল সুইজারল্যান্ডের রক্ষণকে। ৫২ মিনিটে ফের লোকাতেলির নিখুঁত শট। ২-০ এগিয়ে যায় ইতালি। এর পর ৮৯ মিনিটে ইমমোবিল সুইজারল্যান্ডের কফিনে শেষ পেরেকটি পোঁতেন। কিছু সহজ সুযোগ নষ্ট না করলে ব্যবধান আরও বাড়াতে পারত ইতালি।

অন্যদিকে ইতালির কাছে হেরে কঠিন চ্যালঞ্জের মুখে পড়ল সুইজারল্যান্ড। দু' ম্যাচের একটি ড্র ও একটি ম্যাচে হারের ফলে মাত্র ১ পয়েন্ট তাদের। পরের রাউন্ডে যেতে হলে তুরস্ককে শুধু বড় ব্যবধানে হারালেই চলবে না, ইতালির কাছে হারতেও হবে ওয়েলসকে।

বন্ধ করুন