বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > EURO 2020: সাংবাদিক বৈঠকে মুসলিম ফুটবলারদের সামনে থাকবে না বিয়ারের বোতল
পল পোগবা ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো (ছবি: রয়টার্স) (Pool via REUTERS)
পল পোগবা ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো (ছবি: রয়টার্স) (Pool via REUTERS)

EURO 2020: সাংবাদিক বৈঠকে মুসলিম ফুটবলারদের সামনে থাকবে না বিয়ারের বোতল

  • মুসলিম খেলোয়াড়দের সামনে বিয়ারের বোতল না রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইউরো কতৃপক্ষ।

গত ১৫ জুন, জার্মানির বিরুদ্ধে জয়ের পরে ম্যাচের সেরা হয়েছিলেন পল পোগবা। ম্যাচের পরে যথারীতি সাংবাদিক সম্মেলনে আসেন তিনি। তার সামনে রাখা ছিল বিয়ারের বোতল। নিজের ধর্মীয় বিশ্বাস থেকে সেটি সরিয়ে তবেই কথা শুরু করেন পোগবা। শুধু পোগবা নয়, তার আরেক মুসলিম সতীর্থ করিম বেঞ্জেমাও চলতি ইউরোতে একই ঘটনা ঘটিয়েছেন। ২৩ জুন, গত বুধবার একই ঘটনা দেখা গিয়েছিল। সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার আগে টেবিলে রাখা বিয়ারের বোতল সরিয়ে রাখেন তিনিও। লাগাতার এমন ঘটনা ঘটায় এবার নড়েচেড়ে বসেছে ইউরো কর্তৃপক্ষ। এরপর মুসলিম খেলোয়াড়দের সামনে বিয়ারের বোতল না রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা।

এবারের ইউরোর প্রথমে এই ঘটনা ঘটিয়ে সকলের শিরোনামে চলে আসেন রোনাল্ডো। সংবাদ সম্মেলনের টেবিল থেকে স্পনসর কোকাকোলার বোতল সরিয়ে হইচই ফেলে দিয়েছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। স্বাস্থ্যসচেতন পর্তুগিজ তারকা কোকাকোলার বদলে জল পান করতে বলেছিলেন। এরপর বড় অঙ্কের আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয় কোকাকোলাকে। এর ঠিক একদিন পরেই জার্মানি বনাম ফ্রান্স ম্যাচে পল পোগবা সরিয়ে দেন হেইনেকেনের বিয়ারের বোতল। মুসলিম পগবা ধর্মীয় কারণেই সরিয়ে রাখেন বিয়ারের বোতল। তারপর একই ঘটনা ঘটান করিম বেঞ্জেমাও।

সাংবাদিক বৈঠকে রোনাল্ডো (ছবি: রয়টার্স)
সাংবাদিক বৈঠকে রোনাল্ডো (ছবি: রয়টার্স)

এরপরেই ইউরো কতৃপক্ষ বিষয়টি আলোচনা করতে থাকেন। অবশেষ তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে কোনও মুসলিম খেলোয়াড়ের সামনে বিয়ারের বোতল রাখা হবেনা। ইউরো কতৃপক্ষ জানিয়েছে, ‘যে কোনো মানুষের পছন্দ-অপছন্দ তার ব্যক্তিগত ব্যাপার, আমরা সেটাকে সম্মান করতে চাই। স্পন্সরে ক্ষতি হলেও ভবিষ্যতে মুসলিম খেলোয়াড়দের সামনে এই পানীয় রাখা হবে না।’

বন্ধ করুন