বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > Euro 2020: পর্তুগাল বনাম জার্মানি, ইউরোর মেগা ফাইটের অপেক্ষায় মিউনিখ
থমাস মুলার ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো (ছবি: গুগল)
থমাস মুলার ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো (ছবি: গুগল)

Euro 2020: পর্তুগাল বনাম জার্মানি, ইউরোর মেগা ফাইটের অপেক্ষায় মিউনিখ

  • এক ম্যাচ বাকি থাকতেই শেষ ষোলোয় খেলা নিশ্চিত করতে মরিয়া থাকবে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। শেষ ষোলোয় খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখার জন্য শনিবার জিততেই হবে থোমাস মুলারদের।

হাঙ্গেরিকে ৩-০ হারিয়ে ইউরোয় যাত্রা শুরু করেছে পর্তুগাল। অন্যদিকে ঘরের মাঠে প্রথম ম্যাচেই ফ্রান্সের কাছে ০-১ হেরে গিয়েছে জার্মানি। শেষ ষোলোয় খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখার জন্য শনিবার জিততেই হবে থমাস মুলারদের। পর্তুগালের কাছেও এই ম্যাচ ততটাই গুরুত্বপূর্ণ। জার্মানির বিরুদ্ধে জিতে ফ্রান্সের মুখোমুখি হওয়ার আগেই এক ম্যাচ বাকি থাকতেই শেষ ষোলোয় খেলা নিশ্চিত করতে মরিয়া থাকবে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোরা।

অন্যদিকে ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে শুরুতেই হারের সম্মুখীন হতে হয়েছে মুলারদের। তাই এই ম্যাচে ঘুরে দাঁড়াতে বদ্ধ পরিকর জার্মানি। কঠিন লড়াই জিততে নিজেদের আক্রমণভাগকে আরও বেশি ধারাল করতে চান জার্মানির কোচ।

মিউনিখে পর্তুগাল-জার্মানি ম্যাচে প্রধান আকর্ষণ অবশ্যই রোনাল্ডো বনাম মুলার দ্বৈরথ। প্রথম জন হাঙ্গেরির বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে শেষ মুহূর্তে জোড়া গোল করে কিংবদন্তি মিশেল প্লাতিনির নজির ভেঙে নতুন কীর্তি গড়েছেন। দ্বিতীয় জনের আড়াই বছর পরে জাতীয় দলে প্রত্যাবর্তন। রোনাল্ডোর খেলায় ফুটবল পণ্ডিতেরা যতটা উচ্ছ্বসিত, ঠিক ততটাই হতাশ মুলারকে নিয়ে।

ম্যাচের আগে পর্তুগাল কোচ ফার্নান্দো স্যান্টোস বলেছেন, ‘জয় দিয়ে শুরু করেছি ঠিকই। কিন্তু আমাদের পয়েন্ট কিন্তু মাত্র তিন। তাই আত্মতুষ্টির কোনও জায়গা নেই।’ অন্যদিকে জার্মানির কোচ ওয়াকিম লো বলেছেন, ‘আমাদের প্রধান সমস্যা গোল করতে না পারা। আক্রমণ ভাগকে আরও তীক্ষ্ণ হতে হবে। তা হলেই পর্তুগালকে হারাতে পারব।’ তিনি আরও জানান ‘আমরা জানি, আমরা ঘুরে দাঁড়াতে পারি। যদি আমরা আক্রমণভাগে আরও ধারাল করতে পারি, তাহলে পর্তুগালকে হারাতে পারব।’

ইউরোয় ফুটবলপ্রেমীদের আকর্ষণের কেন্দ্রে ‘এফ’ গ্রুপের রুদ্ধশ্বাস লড়াই। পর্তুগাল, ফ্রান্স ও জার্মানি খেতাবের অন্যতম তিন দাবিদার কি পারবে শেষ ষোলোর যোগ্যতা অর্জন করতে?

বন্ধ করুন