বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > FIFA World Cup 2022 Group E Results: টপার হয়ে নকআউটে জাপান, হেরেও শেষ ১৬-তে স্পেন,ছিটকে গেল জার্মানি

FIFA World Cup 2022 Group E Results: টপার হয়ে নকআউটে জাপান, হেরেও শেষ ১৬-তে স্পেন,ছিটকে গেল জার্মানি

জার্মানির পর স্পেনকে হারিয়ে বিশ্ব ফুটবলকে চমকে দিল জাপান।

অঘটনের বিশ্বকাপ। যত কাণ্ড গ্রুপ ‘ই’-তে। পেন্ডুলামের মতো প্রতিনিয়ত স্পেন, জার্মানি, কোস্টারিকার ভাগ্য বদলাল। অবশেষে ছিটকে গেল জার্মানি। জাপান এই গ্রুপে বড় ফ্যাক্টর হয়ে উঠল। স্পেন, জার্মানির মতো হেভিওয়েট দলকে টপকে টপার হয়ে পরের রাউন্ডে গেল ব্লু সামুরাইরা। হেরেও নকআউটে উঠল স্পেন।

এক সুতোয় গাঁথা ছিল স্পেন এবং জার্মানির ভাগ্য। আর তাদের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলল জাপান। জাপান এবং স্পেন দুই দলই ম্যাচের শুরুতে আশা জাগিয়েছিল। তবে ইউরোপের দুই হেভিওয়েট দলকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে সব হিসেব উল্টেপাল্টে দিল জাপান। অনেকটা ফিনিক্স পাখির মতো উত্থান। আর তাতেই লন্ডভন্ড যাবতীয় অঙ্ক। ইউরোপের দুই জায়ান্টকে হারিয়ে এশিয়ার দেশটি লিখে ফেলল ইতিহাস।

স্পেন বনাম জাপান

গ্রুপের নিজেদের প্রথম ম্যাচে জার্মানিকে হারানোর পর, তৃতীয় ম্যাচে পিছিয়ে পড়েও স্পেনকে ২-১ গোলে হারিয়ে দিল জাপান। গোল করলেন রিৎসু ডোয়ান এবং আও তানাকা। স্পেনের একমাত্র গোল আলভারো মোরাতার

প্রথমার্ধে স্পেনের পাসিং ফুটবলে কিছুটা গুটিয়ে গেলেও, দ্বিতীয়ার্ধে জাপান দেখিয়ে দিল প্রেসিং ফুটবল কাকে বলে! দ্বিতীয়ার্ধ জুড়ে আক্রমণ করে গেলেন জুনিয়া ইতো, ইউরি নাগাতোমো, হিদেমাসা মোরিতারা। স্পেনকে খেলার জায়গাই দিলেন না তাঁরা। প্রথমার্ধে যে পাসিং ফুটবলে দাপট দেখাচ্ছিল স্পেন, দ্বিতীয়ার্ধে তা উধাও!

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যেতেই দায় নিয়ে পদত্যাগ বেলজিয়াম কোচের

তবে জাপানের বিরুদ্ধে স্পেন শুরুটা করেছিল স্পেনের মতোই। শুরু থেকেই দেখা যেতে থাকে পাসের ফুলঝুরি। মাঝমাঠে একের পর এক পাস খেলে জাপানকে হতোদ্যম করে দিতে চেয়েছিল স্পেন। এর মাঝেই ম্যাচের ১২ মিনিটে মোরাতার গোলে এগিয়ে গিয়েছিল লুইস এনরিকের দল। বিরতিতে রেজাল্ট ছিল ১-০। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে মাত্র তিন মিনিটের ব্যবধানে জোড়া গোল করে সব হিসেব ওলটপালট করে গিল জাপান। ৪৭ এবং ৫১ মিনিটে যথাক্রমে গোল করেন ডোয়ান এবং তানাকা। জাপানে নতুন ভোর। স্পেনকে হারিয়ে তারা লিখল আরও একটি ইতিহাস।

জার্মানি বনাম কোস্টারিকা

পরপর দু'বার বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিল জার্মানি। তবে শেষ ম্যাচে অনবদ্য ফুটবল খেলে জার্মানরা। তবে সবটাই যে আগেই হাতের বাইরে বের হয়ে গিয়েছে। কোস্টারিকাকে ৪-২ গোলে হারায় তারা। কিন্তু গোল ব্যবধানে ছিটকে যেতে হল জার্মানিকে। তবে রেজাল্ট যাই হোক না কেন, এ দিন রাতে জিতল ফুটবল। আল বায়েত স্টেডিয়ামে ম্যাচের প্রথম মিনিট থেকেই সাদা ঝড়। দু'মিনিটের মাথায় প্রথম সুযোগ জার্মানির। জামাল মুসিয়ালার শট বাঁচান নাভাস। তার পাঁচ মিনিটের মাথায় অনবদ্য বল প্লে ১৯ বছরের জার্মান যুবকের। বক্সের মধ্যে কোস্টারিকার চার জন ডিফেন্ডারকে কাটান, কিন্তু শট নিশানায় রাখতে পারেননি।

তবে গোল আসে ম্যাচের ১০ মিনিটে। রউমের ক্রস থেকে ফ্লিকে গোলে করে জার্মানিকে এগিয়ে দেন গনাব্রি। এর পরও চলে আগ্রাসী ফুটবল। মুহুর্মুহু আক্রমণ। রক্ষণ সামলাতে নেমে গিয়েছিল কোস্টা রিকার পুরো দল। চার মিনিটের মধ্যে ব্যবধান বাড়তে পারত। গোরেৎজার হেড সেভ করেন নাভাস। প্রথমার্ধে ৭২ শতাংশ বল পজেশন ছিল জার্মানির। তবে কিন্তু প্রথমার্ধে আর গোল করতে পারেনি জার্মানি।

আরও পড়ুন: লজ্জায় ডুবল বেলজিয়াম,নকআউটে ক্রোটরা,ইতিহাস মরক্কোর

কোস্টারিকা ম্যাচে ফেরে দ্বিতীয়ার্ধে। বিরতির পর অনেক বেশি আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে তারা। ফলও মেলে। ৫৮ মিনিটের মাথায় তাজেদার গোলে সমতা ফেরায় কোস্টারিকা। গোল খেয়ে আক্রমণেরঝাঁঝ আরও বাড়ায় জার্মানি। কারণ গোল করা ছাড়া কোনও উপায় ছিল না তাদের। কিন্তু খেলার গতির বিপরীতে ৭০ মিনিটের মাথায় ন্যুয়েরের আত্মঘাতী গোলে ২-১ এগিয়ে যায় কোস্টারিকা। খেলা এই ফলে শেষ হলে, জার্মানির পাশাপাশি স্পেনও ছিটকে যেত বিশ্বকাপ থেকে। কিন্তু সেটা হল না। স্পেনকে অক্সিজেন দিল কাই হাভের্ৎজ। ৭৩ মিনিটে সমতা ফেরান হাভের্ৎজ। ৮৫ মিনিটের মাথায় আবার গোল করেন তিনি। ৮৯ মিনিটে দলের চতুর্থ গোল করলেন নিকলাস ফুলকুর্গ। শেষ পর্যন্ত ৪-২ ব্যবধানে ম্যাচ জেতে জার্মানি। তবে শেষরক্ষা হল না। গোলের ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ে ছিটকে গেল জার্মানি। আর কোস্টারিকাকে ৭ গোল দেওয়ার সুফল পেল স্পেন। তারা গোলা পার্থক্যে এগিয়ে থাকার সুবাদে নকআউটে চলে গেল।

গ্রুপ ই-র সমীকরণ

জাপান স্পেন এবং জার্মানিকে হারিয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ টপার হয়ে নকআউটে গেল। স্পেন এবং জার্মানি দু’দলেরই পয়েন্ট তিন ম্যাচ খেলে ৪। গোল পার্থক্যে এগিয়ে থেকে পরের রাউন্ডে গেল স্পেন। আর বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেল চার বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানি। কোস্টারিকার ৩ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট। তারাও এ দিন ছিটকে গেল।

বন্ধ করুন