বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > রবিবার সকালেই শহরে চলে এলেন পোগবা, জমে গেল ATK MB-র প্রাক মরশুম
শহরে চলে এলেন ফ্লোরেন্তিন পোগবা।

রবিবার সকালেই শহরে চলে এলেন পোগবা, জমে গেল ATK MB-র প্রাক মরশুম

  • ২৯ জুলাই থেকে সাত সকালে দলবল নিয়ে অনুশীলন শুরু করে দিয়েছেন এটিকে মোহনবাগানের স্প্যানিশ কোচ জুয়ান ফেরান্দো। কলকাতায় উপস্থিত ফুটবলারদের নিয়ে মরশুমের প্রথম প্র্যাকটিসে নেমে পড়ছিলেন ফেরান্দো। বিদেশি ফুটবলারদের মধ্যে একমাত্র হুগো বৌমাসই অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন। এ বার কলকাতায় এসে পড়লেন ফ্লোরেন্তিনও।

রবিবার ছুটির দিন সকাল সকালই শহরে পৌঁছে গেলেন ফ্লোরেন্তিন পোগবা। পল পোগবার দাদা ফ্লোরেন্তিনকে সই করিয়ে এই মরশুমে দল বদলে সবচেয়ে বড় চমক দিয়েছে এটিকে মোহনবাগান। ফ্রান্সের দ্বিতীয় ডিভিশনের ক্লাব এফসি সোশো থেকে ট্রান্সফার ফি দিয়ে পোগবাকে সই করিয়েছে সবুজ-মেরুন ব্রিগেড। প্রাক মরশুমের ট্রেনিংয়ে যোগ দিতে শহরে পোগবা। এর আগে হুগো বৌমাস শহরে চলে এসেছিলেন। জুয়ান ফেরান্দো এসে অনুশীলনও শুরু করে দিয়েছেন। এ বার পোগবা ও চলে এলেন।

আরও পড়ুন: ইস্টবেঙ্গলের জন্য সম্ভবত পিছোচ্ছে ডার্বি, এ দিকে প্রস্তুতিতে নেমে পড়ল ATK MB

এর আগে ফ্লোরন্তিন ফরাসি লিগ ওয়ানে সেন্ট এতিয়েনের হয়ে খেলেছেন। খেলেছেন ইউরোপা লিগেও। আর এ বার সবুজ-মেরুন জার্সিতে খেলতে দেখা যাবে তাঁকে। গিনির এই সেন্ট্রাল ডিফেন্ডারের লক্ষ্য, এটিকে মোহনবাগানকে ট্রফি এনে দেওয়া।

২৯ জুলাই থেকে সাত সকালে দলবল নিয়ে অনুশীলন শুরু করে দিয়েছেন এটিকে মোহনবাগানের স্প্যানিশ কোচ জুয়ান ফেরান্দো। কলকাতায় উপস্থিত ফুটবলারদের নিয়ে মরশুমের প্রথম প্র্যাকটিসে নেমে পড়ছিলেন ফেরান্দো। বিদেশি ফুটবলারদের মধ্যে একমাত্র হুগো বৌমাসই অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন। এ বার কলকাতায় এসে পড়লেন ফ্লোরেন্তিনও।

আরও পড়ুন: ফেরান্দো ATK MB-র প্র্যাক্টিস শুরুর পর দিনই লাল-হলুদ তাঁবুতে হাজির বিনো জর্জ

এ দিকে ডার্বি পিছিয়ে যাওয়ায় বিরক্ত ফেরান্দো। ১৬ আগস্ট ডার্বি দিয়ে ঐতিহ্যশালী ডুরান্ড কাপের ঢাকে কাঠি পড়ার কথা ছিল। কিন্তু ইস্ট-মোহন ম্যাচ পিছিয়ে গিয়েছে। ২৮ অগস্টে হবে ডার্বি। এতে বিরক্ত ফেরান্দো বলেন, ‘ভারতে আসার পর থেকেই ডুরান্ড কাপ নিয়ে অনেক কথা শুনেছিলাম। গত বছর এফসি গোয়ার হয়ে ডুরান্ড জিতেছিলাম। কিন্তু অবিশ্বাস্য ভাবে এ বার টুর্নামেন্টের সূচি পাল্টে গেল। আমরা এক রকম পরিকল্পনা, ভাবনা-চিন্তা নিয়ে প্রস্তুতি শুরু করেছিলাম। সেটা ধরেই এগোচ্ছিলাম। কিন্তু সব গোলমাল হয়ে গেল। ডুরান্ডের পাশাপাশি আমাদের এএফসি কাপের সেমিফাইনাল খেলতে হবে। মাঝে গ্যাপ ছাড়া ম্যাচ পড়লে সমস্যা হতে পারে। ফুটবলারদের ফিটনেসের বিষয় গুরুত্বপূর্ণ। কেউ চোট পেলে সমস্যা হবে।’

বন্ধ করুন