বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করলেও ইস্টবেঙ্গল চুক্তি বিতর্কে চুপ থাকতে চান হরিমোহন বাঙুর
শ্রী সিমেন্টের ম্যানেজিং ডিরেক্টর হরিমোহন বাঙুর (ছবি:টুইটার)

মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করলেও ইস্টবেঙ্গল চুক্তি বিতর্কে চুপ থাকতে চান হরিমোহন বাঙুর

  • কী ভাবে মিটবে ইস্টবেঙ্গলের চুক্তি বিতর্ক। আদৌ কি কোনও পথ বেরিয়ে আসবে নাকি গন্ডগোল এভাবেই চলবে।

কী ভাবে মিটবে ইস্টবেঙ্গলের চুক্তি বিতর্ক। আদৌ কি কোনও পথ বেরিয়ে আসবে নাকি গন্ডগোল এভাবেই চলবে। আসলে সোমবারই রাজ্যের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন সব সমস্যা মিটে যাবে। ‘খেলা হবে দিবস’-এর মঞ্চ থেকে ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের ‘ছেড়ে খেলা’র নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছিলেন, ‘৫ বছরের জন্য কেউ গ্যারান্টি নেবে, ৫০ কোটি টাকা খরচ করবে, এটা তো মুখের কথা নয়।’ এরপরেই ক্লাব কর্তারা লগ্নিকারী সংস্থা শ্রী সিমেন্টের সঙ্গে পাঁচ বছরের জন্য চুক্তি করতে চাইছেন। যা মানতে চাইছেন না লগ্নিকারী সংস্থা।

ক্লাব ও লগ্নিকারী সংস্থার মধ্যস্থকারীরাও এখন বলছেন এ ভাবে চুক্তি হয় নাকি। কেউ পাঁচ বছর কোথাও ইনভেস্ট করে তারপরে সবকিছু ছেড়ে চলে যাবে এটাও হয় নাকি।  মধ্যস্থকারীরাও লগ্নিকারী সংস্থার কাছে এমন দাবি করতে পারেনি। এমন অবস্থায় ক্লাব কর্তারা মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হতে চাইছেন। কিন্তু এমন অবস্থায় শ্রী সিমেন্টের কতৃপক্ষ কী করবে তার দিকে তাকিয়ে রয়েছে লাল হুল সমর্থকেরা। কারণ বর্তমানে শহরে রয়েছেন শ্রী সিমেন্টের ম্যানেজিং ডিরেক্টর হরিমোহন বাঙুর। তিনি হয়তো সম্ভবত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করবেন। তখনই কি জট খুলবে সেই দিকেই তাকিয়ে রয়েছে ইস্টবেঙ্গলের লক্ষ লক্ষ সমর্থক।    

ইতিমধ্যেই মূল চুক্তিপত্রে ৭টি বিষয়ে শিথিলতা এনেছে লগ্নিকারী সংস্থা। ক্লাব-ইনভেস্টর চুক্তি জট সমাধানে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে প্রাক্তন সচিব তথা বিশিষ্ট আইনজীবী পার্থসারথি সেনগুপ্তকে দায়িত্ব দিয়েছিল ক্লাব। তাঁর প্রস্তাবে সাড়া দিয়ে চুক্তিপত্রে ৭টি জায়গায় নমনীয় হয় ইনভেস্টর। এ বার নতুন দাবি তুলেছেন ক্লাব কর্তারা। বলছেন চুক্তি যেন পাঁচ বছরের হয়। যা মানতে চাননা পার্থসারথি সেনগুপ্তও। সূত্রের খবর, মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে শ্রী সিমেন্টের ম্যানেজিং ডিরেক্টর হরিমোহন বাঙুর দেখা করলেও তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চুক্তি বিষয় নিয়ে কিছুই বলবেন না। আসলে চুক্তি জট, ক্লাবের বিবৃতি এ সবের কোনও ইস্যুতেই মুখ খুলতে চাইলেন না শ্রী সিমেন্টের ম্যানেজিং ডিরেক্টর।

বন্ধ করুন