বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > নির্বাসনের গেড়ো- AFC Cup-এ ATK MB-র কপাল পুড়লে, ভাগ্য খুলবে বাংলাদেশের ক্লাবের

নির্বাসনের গেড়ো- AFC Cup-এ ATK MB-র কপাল পুড়লে, ভাগ্য খুলবে বাংলাদেশের ক্লাবের

এটিকে মোহনবাগানের অনুশীলন।

আগামী ৭ সেপ্টেম্বর ঘরের মাঠে এএফসি কাপের ইন্টার জোনাল সেমি ফাইনাল খেলার কথা এটিকে মোহনবাগানের। কিন্তু এই নির্বাসনের জেরে আদৌ সেই ম্যাচ খেলতে পারবে কিনা এটিকে মোহনবাগান, তা নিয়েই তৈরি হয়েছে তীব্র অনিশ্চয়তা।

আদৌ কি এটিকে মোহনবাগান এএফসি কাপ খেলতে পারবে? এই নিয়ে তীব্র আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। গত ১৬ অগস্ট সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনকে নির্বাসিত করেছে ফিফা। স্বাভাবিক ভাবেই রীতিমতো অন্ধকারে ডুবে ভারতীয় ফুটবলের ভবিষ্যত। সেই সঙ্গে আশঙ্কার কালোমেঘ এটিকে মোহনবাগানের আকাশে।

এই নির্বাসনের ফলে আপাতত কোনও ভারতীয় ক্লাব আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট খেলতে পারবে না। এমন কী আন্তর্জাতিক কোনও বৈঠক বা কর্মকান্ডের সঙ্গে যুক্ত থাকতে পারবে না।

আরও পড়ুন: কেন নির্বাসিত AIFF? এর জন্য কী সমস্যায় পড়বেন ছেত্রীরা? কতটা সঙ্কটে EB-MB?

এই পরিস্থিতিতে আগামী ৭ সেপ্টেম্বর ঘরের মাঠে এএফসি কাপের ইন্টার জোনাল সেমি ফাইনাল খেলার কথা এটিকে মোহনবাগানের। কিন্তু এই নির্বাসনের জেরে আদৌ সেই ম্যাচ খেলতে পারবে কিনা এটিকে মোহনবাগান, তা নিয়েই তৈরি হয়েছে তীব্র অনিশ্চয়তা। এটিকে মোহনবাগান একান্তই খেলতে না পারলে, পরিবর্তে বাংলাদেশের প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস সুযোগ পেয়ে যাবে।

এশিয়ান ফুটবল কনফফেডারেশনের কাছে ইতিমধ্যে ইন্টার জোনাল সেমিফাইনাল খেলার আবেদন করেছে বসুন্ধরা কিংস। এএফসি কাপের মূল পর্বের গ্রুপ পর্যায়ে দ্বিতীয় স্থানে শেষ করেছিল বসুন্ধরা। এর ফলে এটিকে মোহনবাগানের পরিবর্ত হিসেবে নিজেদের নাম প্রস্তাব করেছ বসুন্ধরা।

আরও পড়ুন: ফের আনলাইনে পাওয়া যাবে ডুরান্ডের ডার্বির টিকিট, কী ভাবে সংগ্রহ করবেন?

এএফসি কাপ ২০২২ এর সংবিধানের ৫.২ ধারা অনুযায়ী, যদি কোনও অংশগ্রহণকারী দল প্রতিযোগিতা থেকে সরে দাঁড়ায় বা কোনও কারণে বাদ পড়ে, সে ক্ষেত্রে এএফসি কম্পিটিশনস কমিটি পারবে সেই দলকে পরিবর্তিত করার সিদ্ধান্ত নিতে। এদিকে সংবিধানের ৫.২.১ ধারা অনুযায়ী, এআইএফএফ-কে ফিফার দেওয়া নির্বাসনের কারণে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী দল এটিকে মোহনবাগানকে যদি বাদ দেওয়া হয়, তবে গ্রুপ পর্বে দ্বিতীয় স্থানাধিকারী বসুন্ধরা ইন্টার জোনাল সেমিফাইনাল খেলার সুযোগ পাবে।

এই নিয়ে বসুন্ধরা কিংসের সভাপতি ইমরুল হাসান সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘আমরা এএফসির উত্তরের অপেক্ষায় রয়েছি। আমরা মঙ্গলবার ওঁদের চিঠি পাঠিয়েছি এবং কারণগুলি উল্লেখ করেছি, কোন নিয়মের ভিত্তিতে আমরা যোগ্যতা অর্জন করতে পারি। দেখা যাক ওঁরা কি করেন।’

এটিকে মোহনবাগান এএফসি কাপ খেলতে না পারলে নিঃসন্দেহে এটা তাদের জন্য বড় ধাক্কা হবে। এএফসি কাপ প্রাক পর্ব এবং মূল পর্বে দাপুটে ফুটবল খেলেছিল জুয়ান ফেরান্দোর টিম। কিন্তু পরের পর্বে আটকে গেল ভারতীয় ফুটবলের জন্য তা লজ্জার হবে।

বন্ধ করুন