বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > Poulomi Adhikari: একাধিক চাকরির প্রস্তাব পেয়েও সিদ্ধান্ত নিলেন না ফুড ডেলিভারি করা জাতীয় ফুটবলার পৌলমী

Poulomi Adhikari: একাধিক চাকরির প্রস্তাব পেয়েও সিদ্ধান্ত নিলেন না ফুড ডেলিভারি করা জাতীয় ফুটবলার পৌলমী

পৌলমী অধিকারি। ছবি- টুইটার 

গত কয়েক দিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিলেন বেহালার বাসিন্দা জাতীয় দলের ফুটবলরা পৌলমী অধিকারি। ফুড ডেলিভারি করার সময় ভাইরাল হন তিনি। সেখান থেকেই জানা যায় জাতীয় স্তরের ফুটবলার ছিলেন তিনি। সেই ভিডিও মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায়। তাঁকে ডেকে পাঠান আইএফএ সচিব এবং ক্রীড়া মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। 

গত কয়েক দিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিলেন বেহালার বাসিন্দা জাতীয় স্তরের ফুটবলরা পৌলমী অধিকারি। সংসারের হাল ধরতে ফুটবলকে বিদায় জানিয়ে জোমাটোর ফুড ডেলিভারির পেশা বেঁছে নেন পৌলমী। তেমনই একদিন সকালে ফুড ডেলিভারি করতে বাড়ি থেকে বের হন তিনি। তখনই ফুড ডেলিভারি করার সময় এক ব্যক্তি পৌলমীর সঙ্গে কথা বলেন, এবং সেই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। তা মুহূর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে।

ভাইরাল হওয়া জাতীয় দলের ফুটবলার পৌলোমী অধিকারীকে তড়িঘড়ি ডেকে পাঠান আইএফএ সচিব অনির্বাণ দত্ত। আইএফএ সচিবের সঙ্গে সেখানে উপস্থিত ছিলেন আইএফএর সভাপতি অজিত বন্দোপাধ্যায় ও আদিত্য স্কুল অফ স্পোর্টসের কর্ণধার অনির্বাণ আদিত্য। আইএফএ সচিব অনির্বাণ দত্তের ডাক পেয়ে আইএফএ দফতরে যেতে দেরি করেননি পৌলমী।

পৌলমীর সঙ্গে কথা বলেন আইএফএর কর্তারা। তাঁর সমস্যা বিশদে জানতে চান। শুরু থেকেই পৌলমী একটি সুনিশ্চিত্ত চাকরি ও তাঁর খেলা চালিয়ে যাওয়ার বিষয়ে কথা বলেন। আর সেই কথা মাথায় রেখে সব দিক বিবেচনা করে পৌলোমীকে চাকরি প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। আইএফএ তরফ থেকে প্রস্তাবে বলা হয়েছে, বারাসাতের আদিত্য স্কুল অফ স্পোর্টস ও তাদের যে রেনবো ক্লাব সেখানে কোচিংয়ের চাকরি ও খেলার সুযোগ দেওয়া হবে। তবে নিজের সিদ্ধান্ত এখনও জানাননি পৌলমী।

কিছুদিন আগে এক নেটিজেনের করা ভিডিওতে ভাইরাল হন পৌলমী। জোমাটো ফুড ডেলিভারি গার্ল হিসাবে খাবার নিয়ে পৌঁছে গিয়েছিলেন গ্রাহকের দরজায়। সেখানে থেকে নেটিজেনের করা ভিডিওতে জানা যায় পৌলমী জাতীয় পর্যায়ের ফুটবল খেলোয়াড়। প্রতিনিধিত্ব করেছেন ভারতের হয়ে। দেশ-বিদেশের মাটিতে দাপিয়ে খেলেছেন। কিন্তু বর্তমানে পারিবারিক আর্থিক পরিস্থিতি ভালো না হওয়ায় ডেলিভারি কাজ করছেন তিনি। ছাড়তে হয়েছে খেলাও। যতটা ফাঁকা সময় পাওয়া যায়, সেই সময়টুকু খেলার চেষ্টা করেন তিনি।

এই ভিডিও ভাইরাল হতে সময় নেয়নি। সব সামাজিক মাধ্যম থেকে ভিডিও পৌঁছে যায় আইএফএ সচিব অনির্বাণ দত্তের হাতে। ডেকে পাঠান পৌলমীকে। অন্যদিকে, মহামেডানও তাদের ৯-১৯ বছর বয়সী ছোটদের যে দল রয়েছে সেখানে কোচিং স্টাফ হিসাবে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব দেয় পৌলমীকে। আপাতত কোনও জায়গাতেই নিজের সিদ্ধান্ত জানাননি তিনি। তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘দুই জায়গা থেকে প্রস্তাব পেয়েছি। একটা আইএফএ অফিস থেকে অন্যটি মহমেডান ক্লাবের তরফে। তবে আমি এখনও নিশ্চিন্ত ভাবে কিছু ভেবে উঠতে পারিনি। তাদের থেকে একটু সময় চেয়েছি।’

পৌলমীর ভাইরাল হওয়া ভিডিও দেখে তাঁকে ডেকে পাঠান ক্রীড়া মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসও। মন্ত্রীর কাছে পৌলোমী খেলা চালিয়ে যাওয়া ও একটি চাকরির আবেদন জানান। পৌলমীকে পাশে বসিয়ে নিয়ে অরূপ বিশ্বাস বলেন, ‘ও আবার মাঠে ফিরবে। সরকার ওর পাশে আছে। সব রকম সহায়তা করা হবে।’

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন