বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ‘IPL-এর জন্য ভারতের ফুটবল ক্যালেন্ডার বদলানো বন্ধ করতে হবে’, ফের বোমা স্টিমাচের
ইগর স্টিমাচ।

‘IPL-এর জন্য ভারতের ফুটবল ক্যালেন্ডার বদলানো বন্ধ করতে হবে’, ফের বোমা স্টিমাচের

  • ভারত যদি এএফসি এশিয়ান কাপের জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে না পারত, তবে হয়ত চাকরি যেত স্টিমাচের। কিন্তু এখন তিনি উল্টে ভারতীয় ফুটবলকেই এক হাত নিচ্ছেন। একের পর এক বোমা ফাটাচ্ছেন তিনি।

ভারত গত মঙ্গলবার, এএফসি এশিয়ান কাপের জন্য যোগ্যতা অর্জন করেছে। হংকং-কে ৪-০ ব্যবধানে হারিয়ে বাছাইপর্ব থেকে মূল পর্বে জায়গা করে নিয়েছেন সুনীল ছেত্রীরা। আর সুনীলরা মূল পর্বে ওঠার পর থেকেই একের পর এক বোমা ফাটিয়ে চলেছেন ভারতের কোচ ইগর স্টিমাচ।

ভারত যদি এএফসি এশিয়ান কাপের জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে না পারত, তবে হয়তো চাকরি যেত স্টিমাচের। কিন্তু এখন তিনি উল্টে ভারতীয় ফুটবলকেই এক হাত নিচ্ছেন।

দু'দিন আগে স্টিমাচ বলেছেন, ‘এশিয়ান দেশগুলির মধ্যে ভারতীয় ফুটবল ৮-১০ বছর পিছিয়ে রয়েছে। ভাবনা-চিন্তা ঠিক করতে হবে। আসল সমস্যাটা বুঝতে হবে।’

এর পর ফের বোমা ফাটিয়েছেন ইগর স্টিমাচ। এ বার তিনি আইপিএল-কে এক হাত নিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘ফুটবল ক্যালেন্ডার সুন্দর করে সাজানো দরকার। যে ক্যালেন্ডার এখনও আইপিএল এবং সম্প্রচারের উপর নির্ভর করে… আমরা যদি ভারতে ফুটবলের উন্নতি করতে চাই, তবে এ রকম করাটা বন্ধ করতে হবে। ফুটবল ক্যালেন্ডার অন্য কোনও কিছুর উপর নির্ভর করা উচিত নয়।’

আরও পড়ুন: এশিয়ান কাপের মূলপর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেই গরম গরম কথা স্টিমাচের

ভারত প্রথম বার এশিয়ান কাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল ১৯৬৪ সালে। তবে বিভিন্ন রাজনৈতিক কারণে পশ্চিম এশিয়ার দেশগুলি সে বার অংশ নেয়নি। মাত্র চার দলের প্রতিযোগিতায় ভারত রানার্স হয়। চ্যাম্পিয়ন হয় ইজরায়েল।

২০ বছর পর ১৯৮৪ সালে ফের এশিয়ান কাপে গিয়েছিল ভারত। তবে গ্রুপ পর্যায় থেকেই বিদায় নিতে হয়। ২০১১ সালে বাইচুং ভুটিয়ার নেতৃত্বে ফের একবার ভারত এশিয়ান কাপে খেললেও গ্রুপ পর্যায় থেকেই বিদায় নেয়। এরপর ফের ২০১৯ সালে সুনীল ছেত্রীর নেতৃত্বে এশিয়ান কাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে ভারত। ফাইনালে পৌঁছে গেলেও কাতারের বিরুদ্ধে ৩-১ গোলে হেরে রানার্স হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় ভারতকে।

এ বার ফের ভারতীয় দল এএফসি এশিয়ান কাপের যোগ্যতা অর্জন করে নজির গড়ল। এ বারেও ক্যাপ্টেন সেই সুনীল। এ বার কি সুনীলের নেতৃত্বে চ্যাম্পিয়ন হবে ভারত?

বন্ধ করুন