বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > বুধবার কুখ্যাত ‘সেক্সটেপ অ্যাফেয়ার’ কান্ডে শুনানি শুরু বেঞ্জেমার
ফরাসি জাতীয় দলের হয়ে বেঞ্জেমা এবং বালবুয়েনা। ছবি- রয়টার্স।
ফরাসি জাতীয় দলের হয়ে বেঞ্জেমা এবং বালবুয়েনা। ছবি- রয়টার্স।

বুধবার কুখ্যাত ‘সেক্সটেপ অ্যাফেয়ার’ কান্ডে শুনানি শুরু বেঞ্জেমার

  • ছয় বছর আগের ঘটনায় বালবুয়েনা, বেঞ্জেমার বিরুদ্ধে তাঁকে ব্ল্যাকমেল করার অভিযোগ আনেন।

অবশেষে বুধবার (২০ অক্টোবর) কুখ্যাত সেক্সটেপ অ্যাফেয়ার কান্ডে করিম বেঞ্জেমার শুনানি শুরু হতে চলেছে। ছয় বছর আগে বেঞ্জেমার জাতীয় দলের সতীর্থ ম্যাথিও বালবুয়েনা, রিয়াল মাদ্রিদ ফরোয়ার্ডের ওপর তাঁকে ব্ল্যাকমেল করার দায় চাপিয়েছিলেন। এই কান্ডের জেরেই বেঞ্জেমা এবং বালবুয়েনা, দুইজনকেই ফরাসি দল থেকে বাদ দেওয়া হয়। 

বেঞ্জেমার বিরুদ্ধে বালবুয়েনাকে ব্ল্যাকমেল করতে মদত দেওয়ার মামলা করা হয়। ছয় বছর আগে বালবুয়েনা অ্যাক্সেল অ্যাঙ্গোট নামে মার্সের এক ব্যক্তিকে নিজের ফোনের ডেটা এক ফোন থেকে অন্য ফোনে ট্রান্সফার করার জন্য দেন। সেই সময়েই অ্যাঙ্গোট বালবুয়েনার ফোনে একটি সেক্স টেপ পান এবং পরবর্তীকালে টাকা না দিলে তা সর্বসমক্ষে লিক করে দেওয়ারও হুমকি দেন। তাঁরা প্রথমে প্রাক্তন ফরাসি ফুটবলার জেবরিল সিসেকে তাদের দূত হিসাবে ব্যবহার করার চেষ্টা করলেও সিসে না করে দেন এবং পরিবর্তে তাঁর সতীর্থকে সতর্ক করেন। সিসেকে প্রথমে এই কেসে দোষীদের আওতায় রাখা হলেও তাঁকে পরে মুক্ত করা হয়।

এরপরেই ব্ল্যাকমেলার্সরা বেঞ্জেমার এক পুরনো বন্ধুর মাধ্যমে ফরাসি তারকার সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করে। বেঞ্জেমা ২০১৫ সালের ৬ অক্টোবরে বালবুয়েনার হোটেল রুমে গিয়ে তাঁকে অনেকটা ভয় দেখানোর ভঙ্গিমায় ওই বিতর্কিত ভিডিয়োর উপস্থিতির কথা জানান দেন বলে অভিযোগ। তিনি এক বিশ্বস্ত লোকের মাধ্য়মে বালবুয়েনার ওই ভিডিয়ো লিক হওয়া রুখে দেওয়ার দাবি করেন। বেঞ্জেমা যদিও অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করে দাবি করেন, তিনি নিছক নিজের সতীর্থের সাহায্যই করতে চেয়েছিলেন। 

এই ঘটনার পর আজ অবধি বালবুয়েনা ফরাসি দলের হয়ে না খেললেও বেঞ্জেমা এবারের ইউরোতেই ফরাসি দলে প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছেন। রিয়ালের হয়ে মঙ্গলবার বেঞ্জেমার শাখতার ডোনিয়েস্কের বিরুদ্ধে ম্যাচে খেলার কথা। তাই এই শুনানিতে তিনি সশরীরে উপস্থিত থাকবেন কি না, সেই বিষয়ে সঠিকভাবে কিছু জানা যায়নি। তবে বালবুয়েনা তাঁর উকিলের সঙ্গে বুধবার কোর্টের শুনানিতে উপস্থিত থাকবেন বলেই খবর।

বন্ধ করুন