বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > লিগ শিল্ড জয়ী জামশেদপুরকে নাস্তানাবুদ করে ISL-এর ফাইনালে উঠে পড়ল কেরালা
ফাস্টবয়দের হারিয়ে ফাইনালে লিগ তালিকার চার নম্বরে থাকা কেরালা।

লিগ শিল্ড জয়ী জামশেদপুরকে নাস্তানাবুদ করে ISL-এর ফাইনালে উঠে পড়ল কেরালা

  • সেমিফাইনালের প্রথম লেগে ০-১ হেরেছিল জামশেদপুর। দ্বিতীয় লেগে দু' গোলের ব্যবধানে জেতার বদলে তারা ১-১ ড্র করে বসে থাকল। দু'লেগ মিলিয়ে ২-১ গোলে জয় ছিনিয়ে নিল কেরালা ব্লাস্টার্স।

কেরালা ব্লাস্টার্সকে মাত্র দু'গোলের ব্যবধানে হারাতে পারলেই ফাইনালের টিকিট পাকা করে ফেলতে পারত জামশেদপুর এফসি। কিন্তু সে সব কিছুই হল না। কোনও মতে ড্র  করে সেমিফাইনাল থেকেই ছিটকে গেল আইএসএলের লিগ শিল্ড জয়ীরা।

সেমিফাইনালের প্রথম লেগে ০-১ হেরেছিল জামশেদপুর। দ্বিতীয় লেগে দু' গোলের ব্যবধানে জেতার বদলে তারা ১-১ ড্র করে বসে থাকল তারা। দু'লেগ মিলিয়ে ২-১ গোলে জয় ছিনিয়ে নিল কেরালা ব্লাস্টার্স। এ দিনের ম্যাচে ১৮ মিনিটের মাথায় গোল করে কেরালাকে এগিয়ে দেন আদ্রিয়ান লুনা। ৫০ মিনিটে সমতা ফেরান প্রণয় হালদার।

বিরতিতে গোলপার্থক্যে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে ছিল কেরালা ব্লাস্টার্স। প্রথমার্ধে তারা অনেক বেশি মরিয়া হয়ে ফুটবল খেলেছে। যে ভাবে কেরালা আক্রমণের ঝড় তুলেছিল তাতে প্রথমার্ধেই ২-৩ গোল হলে অবাক হওয়ার কিছু থাকত না।

জামশেদপুরের খেলা দেখেই মনে হচ্ছিল, তারা যথেষ্ট চাপে রয়েছে। ড্যানিয়েল চিমা চুকু একবার বল জালে জড়ালেও অফ সাইডের কারণে তা বাতিল হয়। সুযোগ তৈরির থেকে বেশি ফাউল করতে থাকে জামশেদপুর।

তবে দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য ঘুরে দাঁড়ায় জামশেদপুর এফসি। গোল শোধের মরিয়া প্রয়াস ছিল তাদের। তবে গোল শোধ করলেই হত না, ২ গোলের ব্যবধানে জিততে হত। ম্যাচের ৫০ মিনিটের মাথায় সমতা ফেরালেও, শেষ রক্ষা করতে পারল না তারা। শেষ চারের লড়াই থেকে ছিটকে যেতে হল জামশেদপুরকে।

২০ ম্যাচে ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে লিগ শিল্ড জিতে সেমিফাইনালে ওঠা জামশেদপুরকে টেক্কা দিয়ে ফাইনালে চলে গেল চতুর্থ স্থানে থেকে সেমিফাইনালে ওঠা কেরালা। ফাইনালে তারা কোন টিমের মুখোমুখি হয়,তার জন্য এটিকে মোহনবাগান-হায়দরাবাদ এফসি-র সেমির দ্বিতীয় লেগের লড়াইয়ের

বন্ধ করুন