বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > জয় ছিনিয়ে নিয়ে প্রথম চারের লড়াই জমিয়ে দিল কেরালা এবং মুম্বই সিটি এফসি- দুই দলই

জয় ছিনিয়ে নিয়ে প্রথম চারের লড়াই জমিয়ে দিল কেরালা এবং মুম্বই সিটি এফসি- দুই দলই

জয়ের উচ্ছ্বাস মুম্বই সিটি এফসি-র।

শনিবার ডাবল হেডারের একটি ম্যাচে চেন্নাইয়িনকে ৩-০ হারায় কেরালা ব্লাস্টার্স। অন্য দিকে এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে ২-০ জয় ছিনিয়ে নেয় মুম্বই সিটি এফসি।

বেঙ্গালুরু এফসি-র বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগের দিনই এটিকে মোহনবাগানের লড়াইটা কঠিন করে দিল কেরালা ব্লাস্টার্স এবং মুম্বই সিটি এফসি। দুই দলই এখন এটিকে মোহনবাগানের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে। শনিবার ডাবল হেডারের একটি ম্যাচে চেন্নাইয়িনকে ৩-০ হারায় কেরালা ব্লাস্টার্স। অন্য দিকে এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে ২-০ জয় ছিনিয়ে নেয় মুম্বই সিটি এফসি।

এই দুই দলই শনিবার জয় পাওয়া আইএসএলের সাপলুডোর লড়াইটা জমে গেল। ১৭ ম্যাচে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে আইএসএল তালিকার তিন নম্বরে রয়েছে এটিকে মোহনবাগান। এ দিকে মুম্বই সিটি এফসি কার্যত বাগানের ঘাড়ে উঠে এসেছে। তাদেরও পয়েন্ট ৩১। তবে তারা এক ম্যাচ বেশি খেলেছে। পিছিয়ে নেই কেরালা ব্লাস্টার্সও। আইএসএল টেবলের পাঁচে থাকা কেরালার পয়েন্ট ১৮ ম্যাচে ৩০। এ দিকে শীর্ষে থাকা হায়দরাবাদ ১৮ ম্যাচে ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে ফেলেছে। দুইয়ে থাকা জামশেদপুরের পয়েন্ট ১৭ ম্যাচে ৩৪। তারাও কার্যত প্লে-অফ নিশ্চিত করে ফেলেছে। 

রবিবার চেন্নাইয়িন এফসি- র বিরুদ্ধে ম্যাচে প্রথমার্ধে খেলার ফল ছিল গোলশূন্য। দুই দলের রক্ষণভাগই ছিল জমাট। কয়েকটি সুযোগ তৈরি করতে পারলেও কোনও দলই গোলের মুখ খুলতে পারেনি। তবে ৩৮ মিনিটে সহজতম সুযোগটি নষ্ট করেন কেরালা ব্লাস্টার্সের জর্জ পেরেইরা দিয়াজ। দ্বিতীয়ার্ধেও গোল পেতে মরিয়া ছিল কেরালা। কাপা পজিটিভ ফুটবল খেলতে শুরু করে। সব কটি গোলই হয়েছে দ্বিতীয়ার্ধেই। জর্জ পেরেইরা দিয়াজ ৫২ ও ৫৫ মিনিটে দু'টি গোল করেন। অপর গোলটি করেন আদ্রিয়ান লুনা। এদিন কেরালার জয়ের ব্যবধান আরও বাড়তেও পারতো।

এ দিকে আইএসএলের অন্য ম্যাচটিতে প্রথম থেকেই মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলছিল এফসি গোয়াই। ১৭ মিনিটে মহম্মদ নওয়াজের ভুলে পেনাল্টি পায় তারা। কিন্তু মুম্বই সিটির গোলরক্ষক নওয়াজ ভুলের প্রায়শ্চিত্ত করেন দারুণ ভাবে, আইরাম ক্যাব্রেরার মারা পেনাল্টি রুখে দিয়ে। এর পরও বেশ কয়েকটি গোলের সুযোগ তৈরি করলেও ফাইনাল থার্ডের ব্যর্থতায় গোলমুখ খুলতে পারেনি গোয়া। উল্টে ৩৫ মিনিটে এগিয়ে যায় মুম্বই। ক্যাসিও গ্যাব্রিয়েলের মাপা ফ্রি কিকে মাথা ছুঁইয়ে বল জালে জড়ান মেহতাব সিং। 

দ্বিতীয়ার্ধে গোয়া সমতা ফেরানোর চেষ্টা চালিয়েও কাজের কাজ করতে পারেনি গোয়া। উল্টে তারা আরও একটি গোল খেয়ে যায়। ম্যাচের ৮৬ মিনিটে দিয়েগো মরিসিও গোল করে ২-০ করেন। এর পরে কোনও দলই গোলের মুখ খুলতে পারেনি। ২-০ জিতে যায় গত বারের ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা।

বন্ধ করুন