বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > ATK MB-কে কখনও ISL-এ হারাতে পারেনি কেরালা, এ বারও রেকর্ড অক্ষুন্ন থাকবে বাগানের?

ATK MB-কে কখনও ISL-এ হারাতে পারেনি কেরালা, এ বারও রেকর্ড অক্ষুন্ন থাকবে বাগানের?

মুখোমুখি এটিকে মোহনবাগান-কেরালা ব্লাস্টার্স।

হিরো ইন্ডিয়ান সুপার লিগে দুই দল মুখোমুখি হয়েছে মোট চার বার। ব্লাস্টার্স কোনও বারই জিততে পারেনি। তিন বার জিতেছে, এটিকে মোহনবাগান। দুই দলের এই চার দ্বৈরথে মোট ১৬টি গোল হয়েছে। দশটি দিয়েছে কলকাতার দল ও ছ’টি দিয়েছে ব্লাস্টার্স।

গত দু' মরশুম ধরে যে ম্যাচটিকে আইএসএলের একেবারে শুরুতে দেখে আসছেন ভারতীয় ফুটবলপ্রেমীরা, রবিবার সন্ধ্যায় কোচির জওহরলাল নেহরু স্টেডিয়ামে সেই ম্যাচটি দেখতে চলেছেন তাঁরা। যে ফুটবল দ্বৈরথে কখনও বঙ্গব্রিগেডকে হারাতে পারেনি কেরালার নতুন তারকা দল, সেই দ্বৈরথে হাজার ষাটেক দর্শকের শব্দব্রহ্মকে সম্বল করে প্রথম জয় পাওয়ার জন্য মরিয়া হলুদ-বাহিনী।

কারণ, এ বার সবুজ-মেরুন ব্রিগেড ঘরের মাঠে নেমেও শুরুটা ভালো করতে পারেনি। এগিয়ে থেকেও হেরে গিয়েছে চেন্নাইয়িন এফসি-র কাছে। ফলে বিশেষজ্ঞরা অনেকেই বলছেন, গত বারের সেমিফাইনালিস্টরা এখনও পুরোপুরি তৈরি হয়ে ওঠেনি। তাদের স্প্যানিশ কোচ জুয়ান ফেরান্দো অবশ্য বলে চলেছেন, নিজের দলের উপর তাঁর পুরো আস্থা রয়েছে। তারা ভবিষ্যতে ভাল খেলবেই। কিন্তু এই ম্যাচেই তারা জয়ের রাস্তায় ফিরতে পারবে কি না, সেটাই সবচেয়ে বড় প্রশ্ন।

আরও পড়ুন: ডার্বির আগে জয়ে ফেরা জরুরি-প্রীতমের দাবি সত্ত্বেও কেরালার বিরুদ্ধে চাপে ATK MB

পারফরম্যান্সের খতিয়ান

গত মরশুমের ফাইনালে যে জায়গায় শেষ করেছিল কেরালা ব্লাস্টার্স, এ বার সেই জায়গায় ফিরে যেতে হলে ফের একটা কঠিন লড়াইয়ে নামতে হবে ইভান ভুকোমানোভিচের দলের ছেলেদের। প্রথম ম্যাচে ইস্টবেঙ্গল এফসি-কে ৩-১ গোলে হারিয়ে তারা সে রকমই ইঙ্গিত দিয়েছে।

গতবার ফাইনালে হায়দরাবাদ এফসি-র কাছে টাই ব্রেকারে হেরে যাওয়ার ফলে অল্পের জন্য ট্রফি হাতছাড়া হয়েছিল ব্লাস্টার্সের। এক বছর আগে যে স্বপ্ন দেখেছিল তারা, এ বার সেই স্বপ্ন পূরণের উদ্দেশ্যেই নেমেছে জেসেল কার্নেইরোর দল।

আরও পড়ুন: ISL-এর ম্যাচে আলো নিভল যুবভারতীর, আয়োজক ATK MB-কে দায়ী করে শো-কজ রাজ্য সরকারের

এ দিকে মরশুমের শুরুটা একেবারেই ভালো হয়নি এটিকে মোহনবাগানের। ঘরের মাঠ যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে এএফসি কাপের ইন্টার জোনাল সেমিফাইনালে তারা ১-৩-এ হেরে যায় কুয়ালা লামপুর সিটির বিরুদ্ধে। মরশুমের শুরুতে ডুরান্ড কাপে এবং গ্রুপ পর্বের বেড়া ডিঙোতে পারেনি সবুজ-মেরুন বাহিনী।

এ বারের হিরো আই এসএলের শুরুতেও হোঁচট খেয়েছে জুয়ান ফেরান্দোর টিম। গত মঙ্গলবার ঘরের মাঠে চেন্নাইয়িন এফসি-র কাছে ১-২ হার দিয়ে এ বারের লিগ অভিযান শুরু করেছে তারা।

দ্বৈরথের ইতিহাস

হিরো ইন্ডিয়ান সুপার লিগে দুই দল মুখোমুখি হয়েছে মোট চার বার। ব্লাস্টার্স কোনও বারই জিততে পারেনি। তিন বার জিতেছে, এটিকে মোহনবাগান। দুই দলের এই চার দ্বৈরথে মোট ১৬টি গোল হয়েছে। দশটি দিয়েছে কলকাতার দল ও ছ’টি দিয়েছে ব্লাস্টার্স। ২০-২১ মরশুমে প্রথম ম্যাচে ১-০ ও দ্বিতীয় ম্যাচে ৩-২-এ জেতে এটিকে মোহনবাগান। ২১-২২ মরশুমে প্রথমে ৪-২-এ জেতে সবুজ-মেরুন বাহিনী ও পরের বার ২-২ হয়।

বন্ধ করুন