বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > হলুদ ধুতি ও লাল পাঞ্জাবি পরে এক মাসের বেতন ইস্টবেঙ্গল ক্লাবে দিয়ে এলেন মদন মিত্র
মদন মিত্র।
মদন মিত্র।

হলুদ ধুতি ও লাল পাঞ্জাবি পরে এক মাসের বেতন ইস্টবেঙ্গল ক্লাবে দিয়ে এলেন মদন মিত্র

  • নিজে মোহনবাগানের অন্ধ ভক্ত। কিন্তু প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রী বাংলার ফুটবলের জন্য বরাবরই উদ্যোগী ভূমিকা নিয়েছেন। এ বারও ইস্টবেঙ্গলের পাশে দাঁড়াতে দ্বিতীয় বার ভাবেননি সবুজ-মেরুনের বড় ভক্ত মদন মিত্র। ইস্টবেঙ্গলকে মদন মিত্রের সাহায্যের পিছনে অনেকেই আবার রাজনৈতিক উদ্দেশ্যও দেখতে পাচ্ছেন।

পরনে ছিল হলুদ ধুতি, লাল পঞ্জাবি। আপাদমস্তক ইস্টবেঙ্গলের রঙে নিজেকে রাঙিয়ে মদন মিত্র বৃহস্পতিবার হাজির হয়েছিলেন লাল-হলুদ ক্লাবে। তাঁর কথা রাখতে। নিজের এক মাসের বেতন এ দিন তুলে দিলেন ক্লাব কর্তৃপক্ষের হাতে।

নিজে মোহনবাগানের অন্ধ ভক্ত। কিন্তু প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রী বাংলার ফুটবলের জন্য বরাবরই উদ্যোগী ভূমিকা নিয়েছেন। এ বারও ইস্টবেঙ্গলের পাশে দাঁড়াতে দ্বিতীয় বার ভাবেননি সবুজ-মেরুনের বড় ভক্ত মদন মিত্র। ইস্টবেঙ্গলকে মদন মিত্রের সাহায্যের পিছনে অনেকেই আবার রাজনৈতিক উদ্দেশ্যও দেখতে পাচ্ছেন।

ক্লাব তাঁবুতে এসে তাঁর এক মাসের বেতন দিয়ে গেলেন মদন মিত্র।
ক্লাব তাঁবুতে এসে তাঁর এক মাসের বেতন দিয়ে গেলেন মদন মিত্র।

চুক্তি জট কাটছে না ইস্টবেঙ্গলের। যার জেরে বুধবার উত্তাল হয়ছিল লেসলি ক্লডিয়াস সরণী। লাল-হলুদ সমর্থকদের বিক্ষোভ, মারামারিতে ইস্টবেঙ্গল ক্লাব তাঁবুর বাইরের পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠেছিল। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশকে লাঠিচার্জও করতে হয়। এই পরিস্থিতি দেখে ব্যথিত হন তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র। ইস্টবেঙ্গলের শোচনীয় অবস্থা দেখে নিজের এক মাসের বেতনও তিনি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন। সেই মতো বৃহস্পতিবার ইস্টবেঙ্গলে ক্লাবে গিয়ে এক মাসের বেতন দিয়ে এলেন মদন মিত্র।

বুধবার ফেসবুক লাইভে ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের উপর পুলিশের লাঠাচার্জ নিয়ে সরব হয়েছিলেন। শুক্রবার ফের তিনি এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানান। মদন মিত্র বলেন, ‘কাল যা হয়েছে ঠিক হয়নি। সমর্থকদেরও ভালোবাসাটাও তো বুঝতে হবে।’ 

বন্ধ করুন