বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > ‘বিপদে’ এগিয়ে এলেন মমতা, বুধবার নবান্নে ইস্টবেঙ্গল-বিনিয়োগকারীর সঙ্গে আলোচনা

‘বিপদে’ এগিয়ে এলেন মমতা, বুধবার নবান্নে ইস্টবেঙ্গল-বিনিয়োগকারীর সঙ্গে আলোচনা

ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের বাইরে প্রতিবাদ এক দল সমর্থকের। (ফাইল ছবি, এএনআই)

ইস্টবেঙ্গলের ‘বিপদে’ আবার এগিয়ে এলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ইস্টবেঙ্গলের ‘বিপদে’ আবার এগিয়ে এলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, আগামী বুধবার নবান্নে আলোচনার জন্য ইস্টবেঙ্গল এবং বিনিয়োগকারী সংস্থা শ্রী সিমেন্টের কর্তাদের ডাকলেন তিনি।

রিপোর্ট অনুযায়ী, বিনা শর্তে ইস্টবেঙ্গলকে স্পোর্টিং রাইটস ফিরিয়ে দিচ্ছে হরিমোহন বাঙ্গুরের সংস্থা। শ্রী সিমেন্টের তরফে ইস্টবেঙ্গলকে ই-মেল করে একথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে শোনা যাচ্ছে। তবে একটি মহলের দাবি করা হয়েছে, শ্রী সিমেন্টের শীর্ষ আধিকারিক শ্রী হরিমোহন বাঙ্গুর জানিয়েছেন যে স্পোর্টিং রাইট ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি পুরোপুরি ভিত্তিহীন। লাল-হলুদ কর্তাদের দাবি, সোমবার বিকেল পর্যন্ত শ্রী সিমেন্টের তরফ থেকে ক্লাবের স্পোর্টিং রাইট ফিরিয়ে দেওয়ার কোনও মেল আসেনি বলে জানিয়েছেন ক্লাব কর্তারা।  

তবে সোমবার নবান্নে ইস্টবেঙ্গল সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি সিদ্ধান্ত নেওয়ার কে? আপনারা আমায় কেন জিজ্ঞাসা করছেন? আমি কি ইস্টবেঙ্গল ক্লাব চালাই? ওদের ক্লাব কর্তৃপক্ষ আছে। ওদের সঙ্গে কথা বলুন। যারা (শ্রী সিমেন্ট) ছিল, তারা আমায় চিঠি দিয়ে জানাচ্ছে, তারা করতে পারবে না। একেবারে শেষ মুহূর্তে। এটা খুব খারাপ মনোভাব। একটা ক্লাবকে এতদিন ধরে ঝুলিয়ে শেষ মুহূর্তে বলছে, কিছু করতে পারব না। এর জন্য আমরা প্রত্যেক দুঃখিত। আমরা প্রত্যেকে বিরক্ত। তাহলে আপনারা ছ'মাস-এক বছর ধরে কথা চালালেন কেন? এমনকী আমার সঙ্গেও দেখা করে বলে গিয়েছিল, ১৬ তারিখে খুলে দেবে। তারপর এমন কী ঘটল, পিছনে কী রহস্য, যে রহস্যের জন্য ওরা বলে দিচ্ছে যে আমরা ছেড়ে চলে যাচ্ছি।’

মুখ্যমন্ত্রী জানান, পরিস্থিতি জটিল হলেও ইস্টবেঙ্গলের পাশে আছে রাজ্য সরকার। তিনি বলেন, ‘ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের একটা ঐতিহ্য আছে।’ সঙ্গে মমতা যোগ করেন, ‘আমরা যে বিরক্ত সেটাও জানাব। ওদের বিপদে সকলের এগিয়ে আসা উচিত।’ তারপরই দু'পক্ষকে বৈঠকে ডেকেছেন মমতা।

বন্ধ করুন