বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > কঠোর পরিশ্রম করা আর দলের ভারসাম্য বজায় রাখাই হল SC East Bengal কোচের মূল মন্ত্র

কঠোর পরিশ্রম করা আর দলের ভারসাম্য বজায় রাখাই হল SC East Bengal কোচের মূল মন্ত্র

ফুটবলারদের নির্দেশ দিচ্ছেন মানোলো দিয়াজ।

মানোলো দিয়াজের প্রশিক্ষণে আইএসএলের আগে প্রি সিজন ফ্রেন্ডলিতে প্রথম ম্যাচে ভাস্কোকে ৩-১ গোলে এবং সালগাওকারকে ২-০ গোলে হারিয়ে তাদের মরসুমের শুরুটা বেশ ভাল করেছে লাল-হলুদ ব্রিগেড।

শুভব্রত মুখার্জি: এসসি ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের তরফে এই মরসুমে সব থেকে বড় চমকটা ছিল তাদের কোচ নির্বাচনে। কিংবদন্তি রবি ফাওলারের বদলে ম্যানুয়েল মানোলো দিয়াজকে তারা কোচ হিসেবে নিয়ে এসেছেন। এটা বোধহয় লাল হলুদের অতিবড় সমর্থকও আশা করেননি। তবে এসসি ইস্টবেঙ্গলের নয়া কোচের দর্শন আবার খুব সোজা। কঠিন পরিশ্রম করতে হবে। সঙ্গে দলের ভারসাম্য বজায় রাখতে হবে। এতেই সাফল্য একেবারে হাতের মুঠোয় চলে আসবে। এই মন্ত্রেই বিশ্বাস করেন মানোলো দিয়াজ।

মানোলো দিয়াজের প্রশিক্ষণে আইএসএলের আগে প্রি সিজন ফ্রেন্ডলিতে প্রথম ম্যাচে ভাস্কোকে ৩-১ গোলে এবং সালগাওকারকে ২-০ গোলে হারিয়ে তাদের মরসুমের শুরুটা বেশ ভাল করেছে লাল-হলুদ ব্রিগেড। রিয়াল মাদ্রিদের রিজার্ভ দলের প্রাক্তন কোচ দিয়াজের মতে, তিনি এখন ও দলের ফুটবলারদের চেনা-জানা এবং বোঝার প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন। কোভিডের কারণে বাধ্যতামূলক নিভৃতবাসে থাকতে হওয়ার কারণে দূর থেকে বসেই প্রথম প্রথম দল পরিচালনা করতে হয়েছিল দিয়াজকে। এ বার তাঁকে এবং গোটা দলকে ফের একবার নিভৃতবাসে বাধ্যতামূলক ভাবে থাকতে হবে। তার কারণ এসি ইস্টবেঙ্গল গোয়াতে তাদের থাকার হোটেল কোনও অজানা কারণে ফের বদলাচ্ছে।

নভেম্বর মাসের ২১ তারিখ আইএসএলে তাদের অভিযান শুরু করবে এসসি ইস্টবেঙ্গল। প্রথম ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ জামশেদপুর এফসি। এই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে মানোলো দিয়াজ জানান, ‘আমার লক্ষ্য একটা ভারসাম্যযুক্ত দল গঠন করা। যে টিমের প্রতিটি ফুটবলার অ্যাটাক এবং ডিফেন্স করার ক্ষমতা রাখবে। প্রতিটা ফুটবলারের ক্ষমতা বৃদ্ধি আমাদের লক্ষ্য। নিজেদের লক্ষ্যপূরণে আমরা কঠোর পরিশ্রম করছি। ম্যাচের সিচুয়েশন এবং প্রতিপক্ষের উপর নির্ভর করে আমাদের দল গঠন করা হবে। কঠোর পরিশ্রমের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে চললেই আমাদের সাফল্য আসবে।’

বন্ধ করুন