বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > কলকাতা লিগে কি খেলবে না মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল!

শুভব্রত মুখার্জি: করোনার ফলে ২০২০ সালে কলকাতা লিগ আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। ফলে  ময়দানের একাধিক ফুটবলারকে সমস্যায় পড়তে হয়েছিল। জটিল সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছিল কলকাতা লিগের ছোট ছোট ক্লাব ও তার ফুটবলারদের। সেই আবহে দাঁড়িয়ে ফুটবলারদের আর্থিক সমস্যা দূর করার লক্ষ্য নিয়েই এবার কলকাতা লিগ আয়োজন করাটাকে অনেকটা চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছে আইএফএ। তবে আশঙ্কা একটাই লিগ হলেও ময়দানের দুই প্রধান মোহনবাগান ও ইস্টবেঙ্গল কি আদৌ লিগ খেলবে! দুই প্রধান না খেললেও লিগ করতে বদ্ধপরিকর আইএফএ, যদিও তারা জানেন দুই প্রধানকে ছাড়া জৌলুস কমবে লিগের।

আইএফএ'র কার্যকরী কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে প্রয়োজনে দুই প্রধানকে ছাড়াই হবে লিগ। তবে অন্যদিকে কিছুটা হলেও খারাপ খবর আইএফএ'র।চার বছরের চুক্তি থাকলেও নতুন মরসুম শুরুর আগেই আইএফএ থেকে সরল তাদের অন্যতম স্পনসর। তার প্রধান কারণ প্রথম মরসুমের বকেয়া টাকা। আইএফএ'র তরফে ১৮ ই অগস্ট থেকে শুরু কলকাতা লিগ শুরুর বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। জানা যাচ্ছে আইএফএ'র তরফে‌ অগস্টের প্রথম সপ্তাহে লিগের সূচি ও নতুন স্পনসরের নাম ঘোষণা করা হবে।

ডুরান্ড কাপ ও এএফসি কাপকেই প্রাধান্য দিচ্ছে সবুজ মেরুন ব্রিগেড। ফলে কলকাতা লিগে তাদের খেলার সম্ভাবনা কম।অন্যদিকে লাল হলুদে ইনভেস্টর জট না কাটায় তাদেরও লিগ খেলা অনিশ্চিত। কলকাতা লিগ ও ডুরান্ড কাপের সূচি নিয়ে যাতে বিভ্রাট না ঘটে, সেই জন্য ডুরান্ড কমিটির সঙ্গে আলোচনায় আগেই বসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইএফএ।

১৪টা দল নিয়েই কলকাতা লিগের সূচি তৈরি করা হবে। কলকাতা লিগে ক্লাবগুলির অংশ নেওয়াটা বাধ‍্যতামূলক। তবে কোনও দল যদি মাঠে দল না নামায় তাহলে প্রতিপক্ষ দল নিয়ম অনুসারে ওয়াকওভার পাবে। কোনও দল যদি লিগ না খেলার সিদ্ধান্ত নেয় তাহলে তা জানিয়ে তাদের আগে চিঠি দিতে হবে। নিয়ম মেনে সেই চিঠি পাঠানো হবে লিগ সাব কমিটিতে। যা পরবর্তীতে লিগ সাব কমিটি পাঠাবে গভর্নিং বডিতে। সেখানেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বন্ধ করুন