বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > মোহনবাগানের অভিনব উদ্যোগ, ক্লাব প্রাঙ্গনে বসবে কলকাতার প্রথম ক্রীড়া বইমেলা

মোহনবাগানের অভিনব উদ্যোগ, ক্লাব প্রাঙ্গনে বসবে কলকাতার প্রথম ক্রীড়া বইমেলা

মোহনবাগানের অভিনব উদ্যোগ

মোহনবাগান ক্লাব যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে তা এককথায় বিরল বলা ভালো নজিরবিহীন। ময়দানে ক্লাব তাঁবুতেই তারা ক্রীড়া বইমেলা আয়োজনের উদ্যোগ নিয়েছে। চলতি বছরের ঐতিহাসিক মোহনবাগান দিবস পালন করার পরেই ক্লাব তাঁবুতে বসবে এই অভিনব ক্রীড়া বইমেলা।

শুভব্রত মুখার্জি: কলকাতা ময়দানের তিন বড় ক্লাব মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গল এবং মহমেডান। তারা সারা বছর ধরেই নানা ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করে থাকে। কখনও সামাজিক উদ্যোগ, কখনও সচেতনতামূলক কর্মসূচিও গ্রহণ করে থাকেন তারা। তবে এবার মোহনবাগান ক্লাব যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে তা এককথায় বিরল বলা ভালো নজিরবিহীন। ময়দানে ক্লাব তাঁবুতেই তারা ক্রীড়া বইমেলা আয়োজনের উদ্যোগ নিয়েছে। চলতি বছরের ঐতিহাসিক মোহনবাগান দিবস পালন করার পরেই ক্লাব তাঁবুতে বসবে এই অভিনব ক্রীড়া বইমেলা।

বুধবার মোহনবাগানের ক্লাবে কর্মসমিতির মিটিং বসেছিল, সেখানেই নেওয়া হয়েছে এই অভিনব সিদ্ধান্ত। বলা‌ ভালো কলকাতাকে আদর করে অনেকেই বইমেলার শহর বলে থাকেন। দীর্ঘদিন ধরে আয়োজন হয়ে আসছে কলকাতা বইমেলার। যেখানে দেশ-বিদেশের প্রতিনিধিরা ভিড় জমান সময়ে সময়ে। আগে ময়দানের অনুষ্ঠিত হলেও শেষ কয়েক বছরে তা অনুষ্ঠিত হচ্ছে সল্টলেকে। সেই ঐতিহ্যেই এবার যোগ হতে চলেছে নয়া পালক। মোহনবাগান মাঠেও বসবে বইমেলার আসর। তবে এই বইমেলার বিশেষত্ব হল মোহনবাগান দিবসের পরে ক্লাবের মাঠে ক্রীড়া বইমেলা আয়োজন করা হবে। এমনটা জানিয়েছে ক্লাবের নতুন কমিটি। পাশাপাশি ক্লাবে তৈরি করা হবে ক্রীড়া বই সমৃদ্ধ গ্রন্থাগার।

মোহনবাগান সচিব দেবাশিস দত্ত এই কথা নিশ্চিত করেছেন। দেবাশিস দত্ত জানিয়েছেন প্রথম বছর ক্লাবের মাঠেই মেলা অনুষ্ঠিত হবে। যদি জায়গার সমস্যা হয় তা হলে পরের বছর থেকে অন্য কোথাও বইমেলা করার কথা ভাববে কমিটি। উল্লেখ্য ২৯ শে জুলাই মোহনবাগান দিবসের অনুষ্ঠান রয়েছে। পাশাপাশি গোটা বিশ্বে ক্রীড়া বিষয়ক যত বই রয়েছে সেগুলো প্রস্তাবিত লাইব্রেরিতে রাখার চেষ্টা করবে ক্লাব কর্তৃপক্ষ। শুধু মোহনবাগানের সদস্য নন, সাধারণ মানুষও সেই লাইব্রেরি ব্যবহার করতে পারবেন। বুধবারের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ক্লাবের সভাপতি টুটু বসু।

বন্ধ করুন