বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > Morocco vs Croatia: আরও একটি গোলশূন্য ম্যাচ, লড়াই করেও জয় পেল না কোনও দল

Morocco vs Croatia: আরও একটি গোলশূন্য ম্যাচ, লড়াই করেও জয় পেল না কোনও দল

ক্রোয়েশিয়া বনাম মরক্কো ম্যাচটি গোলশূন্য ভাবে শেষ হল (ছবি-রয়টার্স)

দিন মোট চারটি ম্যাচ খেলা হবে। প্রথম ম্যাচে ক্রোয়েশিয়া মুখোমুখি হয়েছিল মরক্কোর। এই ম্যাচে ফেভারিট হিসেবে শুরু করেছিল গত বিশ্বকাপের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়া দল।

বুধবার ২৩ নভেম্বর ফিফা বিশ্বকাপের চতুর্থ দিন। এদিন মোট চারটি ম্যাচ খেলা হবে। প্রথম ম্যাচে ক্রোয়েশিয়া মুখোমুখি হয়েছিল মরক্কোর। এই ম্যাচে ফেভারিট হিসেবে শুরু করেছিল গত বিশ্বকাপের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়া দল। তবে এবারের বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত অনেক ম্যাচেই চমকপ্রদ ফলাফল এসেছে। এমন অবস্থায় মরক্কোর সঙ্গে সতর্ক ভাবেই খেলা শুরু করেছিল ক্রোয়েশিয়া। 

তবে এদিন মরক্কো বনাম ক্রোয়েশিয়ার মধ্যকার ম্যাচটি ড্র হয়ে শেষ হয়েছিল। খেলার পুরো ৯০ মিনিট শেষ না হওয়া পর্যন্ত কোনও দলই গোল করতে পারেনি। ইনজুরি টাইমেও দুই দলই গোল করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করে ছিল কিন্তু তারা কেউই সফল হতে পারেনি। এটি এই বিশ্বকাপের তৃতীয় ম্যাচ ছিল। যেখানে কোনও দলই গোল করতে পারেনি। এর আগে পোল্যান্ড ও মেক্সিকোর মধ্যকার ম্যাচে কোনও গোল হয়নি। একই সময়ে ডেনমার্ক ও তিউনিসিয়ার মধ্যকার ম্যাচে কোনও গোল হয়নি। 

আরও পড়ুন… অধিনায়ক হিসেবে পরিপক্ক হয়েছি, এখন কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে পারি- শিখর ধাওয়ান

এই ম্যাচে ফেভারিট হিসেবে বিবেচিত হচ্ছিল গত বিশ্বকাপের রানার্সআপ দল ক্রোয়েশিয়া। এই দলের কাছে প্রথম ম্যাচ জিতে দুই পয়েন্ট পাওয়ার সেরা সুযোগ ছিল, কিন্তু এই দলটি কোন গোল করতে পারেনি এবং শেষ পর্যন্ত মরক্কোর সঙ্গে একটি পয়েন্ট ভাগ করে নিতে হয়েছিল তাদের। শুরু থেকেই সমানে সমানে লড়তে থাকে দুই দল। ক্রোয়েশিয়া বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে থাকলেও বেশ কয়েকবার সুযোগ ধরা দিয়েছিল মরোক্কোর হাতেও। 

এই ম্যাচে মরক্কো গোলের আটটি চেষ্টা করেছিল। এর মধ্যে মাত্র দুটি শট টার্গেটে ছিল এবং এর মধ্যেও গোল করতে পারেনি তারা। একই সময়ে ক্রোয়েশিয়া গোলের জন্য পাঁচটি প্রচেষ্টা করেছিল এবং এই দলটিও লক্ষ্যে মাত্র দুটি শট রাখতে পেরেছিল। এই দুটি প্রচেষ্টাও ব্যর্থ হয় এবং ক্রোয়েশিয়াও গোল করতে পারেনি। তবে মরক্কোর চেয়ে ক্রোয়েশিয়ার খেলা অনেক ভালো ছিল।

আরও পড়ুন… বিশ্বকাপ খেলতে চেয়েছিলাম, সুযোগ পেলাম না, কষ্ট হচ্ছে বললেন KKR তারকা

এই দলটি বল নিয়ন্ত্রণ করেছিল ৬৫ শতাংশ, যেখানে মরক্কোর বল নিয়ন্ত্রণ ছিল মাত্র ৩৫ শতাংশ। ক্রোয়েশিয়ার খেলোয়াড়রা ৮৫ শতাংশ পাস লক্ষ্যে ছিল, যেখানে মরক্কোর ৭৮ শতাংশ পাস ছিল নির্ভুল।

মরক্কোর একজন খেলোয়াড়ও হলুদ কার্ড পেয়েছিলেন, ক্রোয়েশিয়ার কোনও খেলোয়াড়ই কোনও কার্ড পাননি। ক্রোয়েশিয়াও পাঁচটি কর্নার পেলেও কোনও সুবিধা করতে পারেনি। এই ম্যাচে ক্রোয়েশিয়া ১১টি ফাউল করে ছিল। একই সময়ে, মরক্কো ১৬টি ফাউল করেছে। র‍্যাঙ্কিংয়ে ক্রোয়েশিয়ার চেয়ে দশ ধাপ পিছিয়ে থাকলেও মাঠের লড়াইয়ে একচুলও জায়গা ছাড়েনি মরক্কো। ফিনিশিং ব্যর্থতায় সাফল্য পেল না কোন দলই। আরও একটি গোলশূন্য ম্যাচের স্বাক্ষী থাকল ২০২২ বিশ্বকাপ। 

বন্ধ করুন