বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > প্যারিসে মেসির হোটেলের একদিনের ভাড়া ভারতীয় মুদ্রায় ২০ লাখ !
পিএসজির প্রেসিডেন্টের সঙ্গে মেসি (ছবি:রয়টার্স)
পিএসজির প্রেসিডেন্টের সঙ্গে মেসি (ছবি:রয়টার্স)

প্যারিসে মেসির হোটেলের একদিনের ভাড়া ভারতীয় মুদ্রায় ২০ লাখ !

  • প্যারিসে পা রাখার পরে এখনও নিজের স্থায়ী বাসস্থান খুঁজে পাননি লিওনেল মেসি। ফলে যতদিন না পর্যন্ত তিনি তা খুঁজে পাচ্ছেন ততদিন তাকে থাকতে হবে প্যারিসের এক অভিজাত হোটেলে। যার দৈনিক ভাড়া ভারতীয় মুদ্রায় ২০ লাখ টাকা !

শুভব্রত মুখার্জি: ক্লাইম্যাক্স,অ্যান্টি ক্লাইম্যাক্সে ভরা মেসির বার্সেলোনা অধ্যায় দীর্ঘ দুই দশকের পরে সমাপ্ত হয়েছে। ক্লাব এবং মেসি দুজনে রাজি থাকার পরেও এমনকি মেসি অর্ধেক বেতন নিতে রাজি হওয়ার পরেও এই চুক্তি সম্পন্ন হয়নি। ফলে শেষ মূহুর্তে 'ফ্রি এজেন্ট' মেসিকে বড়সড় বেতনের প্রস্তাবের মধ্যে দিয়ে নিজেদের ক্লাবে সই করাতে সমর্থ হয়েছেন পিএসজি অর্থাৎ প্যারিস সাঁ জাঁর কর্তারা। প্যারিসে পা রাখার পরে এখনও নিজের স্থায়ী বাসস্থান খুঁজে পাননি লিওনেল মেসি। ফলে যতদিন না পর্যন্ত তিনি তা খুঁজে পাচ্ছেন ততদিন তাকে থাকতে হবে প্যারিসের এক অভিজাত হোটেলে। যার দৈনিক ভাড়া ভারতীয় মুদ্রায় ২০ লাখ টাকা !

বার্সার ছোটদের ক্যাম্প লা মাসিয়া থেকে তার ফুটবল ক্যারিয়ারের যাত্রা শুরু হয়েছিল। এ বার সেই বার্সার সঙ্গে তার ২১ বছরের সম্পর্কের সমাপ্তি ঘটিয়ে তিনি পা রেখেছেন প্যারিসে। প্যারিসে এসে ভক্তদের অসাধারণ অভ্যর্থনা পাচ্ছেন মেসি । তবে প্রেমের শহর প্যারিসে এখন ও নিজের বাড়ি খুঁজে পাননি মেসি। ফলে তাকে আপাতত এক হোটেলে রাখা হয়েছে। মধ্য প্যারিসের লা রয়্যাল ম্যানসিয়াও হোটেলে স্ত্রী এবং তিন সন্তানকে নিয়ে রয়েছেন আর্জেন্টাইন ফুটবলের জীবন্ত কিংবদন্তি। যেই ঘরটিতে মেসি ও তার পরিবার রয়েছেন তার প্রতিদিনের ভাড়া ১৭ হাজার পাউন্ড। ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় ২০ লক্ষ টাকার সমান। উল্লেখ্য এই হোটেলে মেসিই এই প্রথম এতবড় মাপের ভিআইপি নন। এই ঐতিহ্যবাহী হোটেলের আতিথেয়তা একটা সময় গ্রহন করেছেন উইনস্টন চার্চিল, ওয়াল্ট ডিজনি, রবার্ট ডি-নিরোর মতন বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিখ্যাত ও কৃতী ব্যক্তিরা।

উল্লেখ্য ফরাসি চ্যাম্পিয়ন ক্লাব পিএসজিতে যোগদানের পরে শহরে নিজের বাড়ি খুঁজে পাওয়ার আগে ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমারও এই হোটেলে বেশ কিছুদিন ছিলেন। ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের অভিজাত অঞ্চলে এই হোটেলটি রয়েছে। হোটেলে থেকে পুরো প্যারিস শহরটিকে দেখা যায়।রয়েছে আর্ট গ্যালারি আছে। যেখানে বছরের বিভিন্ন সময়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়। এই হোটেলটির সবচেয়ে বিখ্যাত হল এই হোটেলের রেস্তোরাঁ মাৎসুহিসা রেস্তোরাঁ। যার খাবার খেতে সারা পৃথিবীর তাবড় তাবড় ব্যক্তিত্ব ছুটে আসেন।

বন্ধ করুন