বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > সবুজ-মেরুন ব্রিগেডে খেলবেন দাদা! এটিকে মোহনবাগানকে ট্যাগ করে বার্তা পল পোগবার

সবুজ-মেরুন ব্রিগেডে খেলবেন দাদা! এটিকে মোহনবাগানকে ট্যাগ করে বার্তা পল পোগবার

সবুজ-মেরুন ব্রিগেডে খেলবেন দাদা! এটিকে মোহনবাগানকে ট্যাগ করে বার্তা পল পোগবার। (ছবি সৌজন্যে ইনস্টাগ্রাম paulpogba এবং এএফপি)

Paul Pogba and ATK Mohun Bagan: পল পোগবার দাদাকে নিয়েছে এটিকে মোহনবাগান। তারপরই তাঁকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিশ্বকাপজয়ী ফ্রান্সের তারকা। যিনি ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড ছেড়ে নিজের পুরনো ক্লাব জুভেন্তাসে ফিরে গিয়েছেন। 

নয়া ক্লাবে খেলতে যাচ্ছেন দাদা ফ্লোরেন্টিন। সেজন্য ইনস্টাগ্রামে এটিকে মোহনবাগানকে ট্যাগ করে শুভেচ্ছা জানালেন বিশ্বকাপজয়ী ফ্রান্সের তারকা পল পোগবা। 

শনিবার গভীর রাতের (ভারতীয় সময় অনুযায়ী) দিকে ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে দাদাকে শুভেচ্ছা জানান ফ্রান্সের তারকা। দাদার ছবি পোস্ট করে পল পোগবা লেখেন, 'নয়া ক্লাব এটিকে মোহনবাগানের খেলার জন্য তোমায় শুভেচ্ছা।' যে ছবিতে ফ্লোরেন্টিন প্রাক্তন ক্লাব Sochaux-Montbéliard-র জার্সি পরেছিলেন। সেই স্টোরিতে এটিকে মোহনবাগানকে ট্যাগও করেন বিশ্বকাপজয়ী ফ্রান্সের তারকা।

ফ্লোরেন্টিন পোগবার পরিচয়

গিনির নাগরিক ১৯৯০ সালের ১৯ অগস্ট জন্মগ্রহণ করেন। পেশাদারি ফুটবলের বেশিরভারটাই ফ্রান্সে কাটিয়েছেন। ফ্রান্সের প্রথম ডিভিশনেও খেলেছেন। ২০১৩-১৪ মরশুমে লিগ ওয়ানে খেলেছিলেন। পরেরবার খেলেছিলেন ইউরোপা লিগেও। পরবর্তী আরও কয়েকবার ইউরোপের দ্বিতীয় সেরা ক্লাব টুর্নামেন্টে খেলেছিলেন।

২০১৭ সালে ইউরোপা লিগে পলের তৎকালীন ক্লাব ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে খেলেছিলেন ফ্লোরেন্টিন। সেইসময় আর্সেনালে যোগ দিতে পারেন বলেও জল্পনা ছড়িয়েছিল। যদিও শেষপর্যন্ত সেই স্বপ্নপূর্ণ হয়নি। বরং তুরস্কের লিগে খেলেছিলেন। তারপর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মেজর সকার লিগে আটলান্টা ইউনাউটেডের হয়ে খেলেছিলেন। পরে আবার ফ্রান্সে ফিরে এসেছিলেন।

আরও পড়ুন: ATK Mohun Bagan Transfer News: পোগবা আসছেন এটিকে মোহনবাগানে! দলবদলের বাজারে চমক সবুজ-মেরুনের

যদিও ২০২০ সালে আটলান্টা ছাড়ার পর ছয় মাস কোনও ক্লাব ছিল না ফ্লোরেন্টিনের। তারপর তিন বছরের চুক্তিতে Sochaux-Montbéliard-তে যোগ দিয়েছিলেন। যদিও চুক্তির মেয়াদ বাকি থাকা অবস্থায় ফরাসি ক্লাব ছেড়ে সবুজ-মেরুন ব্রিগেডে যোগ দিলেন।

জাতীয় দলের জার্সিতে

ফ্লোরেন্টিন ফ্রান্সের অনূর্ধ্ব-২০ দলের হয়ে তিনটি ম্যাচ খেলেছিলেন। গিনির জার্সিতে ৩১ টি খেলেছেন। গিনির হয়ে শেষ ম্যাচ খেলেছিলেন গত বছর সুদানের বিরুদ্ধে। বিশ্বকাপ যোগ্যতা-অর্জন পর্বে পরের ম্যাচে বেঞ্চে ছিলেন। তারপর থেকে জাতীয় দলে সুযোগ পাননি।

বন্ধ করুন