বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > লাল-হলুদ তাঁবুতে বিক্ষোভ, মারামারি, পুলিশের লাঠিচার্জ, ভাইরাল হল সেই সব ছবি

লাল-হলুদ তাঁবুতে বিক্ষোভ, মারামারি, পুলিশের লাঠিচার্জ, ভাইরাল হল সেই সব ছবি

  • ইস্টবেঙ্গল ক্লাব তাঁবুর সামনে বিক্ষোভের ঝড় বয়ে গিয়েছে। এই ঘটনার জেরে পুলিশ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে। বিক্ষোভকারীদের সরাতে পুলিশকে লাঠিও চালাতে হয়।
এর আগে ময়দান বহু বার লেসলি ক্লডিয়াস সরণীর উত্তেজনার সাক্ষী থেকেছে। তবে এত দিন সেই লড়াইটা ছিল ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগান সমর্থকদের মধ্যে। এই প্রথম লাল-হলুদ সমর্থকেরা নিজেদের মধ্যেই মারামারিতে জড়িয়ে পড়লেন। একটা গোষ্ঠী ছিল, যাঁরা ক্লাব কর্তাদের সমর্থনে ছিল। অন্য গোষ্ঠী ক্লাব কর্তাদের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন।
1/8এর আগে ময়দান বহু বার লেসলি ক্লডিয়াস সরণীর উত্তেজনার সাক্ষী থেকেছে। তবে এত দিন সেই লড়াইটা ছিল ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগান সমর্থকদের মধ্যে। এই প্রথম লাল-হলুদ সমর্থকেরা নিজেদের মধ্যেই মারামারিতে জড়িয়ে পড়লেন। একটা গোষ্ঠী ছিল, যাঁরা ক্লাব কর্তাদের সমর্থনে ছিল। অন্য গোষ্ঠী ক্লাব কর্তাদের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন।
আগেই সোশ্যাল মিডিয়াতে ঝড় উঠেছিল। ২১ জুলাই যে বড় কিছু একটা হতে চলেছে, তার আভাস আগে থেকেই পাওয়া গিয়েছিল। সেই মতো ক্লাবকর্তাদের বিরোধী সমর্থকরা দুপুর ১টার আগে থেকেই ক্লাবের সামনে জড়ো হতে শুরু করেছিল। পাল্টা জড়ো হচ্ছিলেন ক্লাবকর্তাদের ঘনিষ্ঠ সমর্থকেরাও।
2/8আগেই সোশ্যাল মিডিয়াতে ঝড় উঠেছিল। ২১ জুলাই যে বড় কিছু একটা হতে চলেছে, তার আভাস আগে থেকেই পাওয়া গিয়েছিল। সেই মতো ক্লাবকর্তাদের বিরোধী সমর্থকরা দুপুর ১টার আগে থেকেই ক্লাবের সামনে জড়ো হতে শুরু করেছিল। পাল্টা জড়ো হচ্ছিলেন ক্লাবকর্তাদের ঘনিষ্ঠ সমর্থকেরাও।
দু’পক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে শ্লোগান দিচ্ছিলেন। একটা সময়ে পরিস্থিতি রীতিমতো উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। দু'গোষ্ঠীর মধ্যে মারামারি শুরু হয়ে যায়।
3/8দু’পক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে শ্লোগান দিচ্ছিলেন। একটা সময়ে পরিস্থিতি রীতিমতো উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। দু'গোষ্ঠীর মধ্যে মারামারি শুরু হয়ে যায়।
পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশকে মাঠে নামতে হয়। আর তাতে পরিস্থিতি আরও অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় পুরো পরিস্থিতি।
4/8পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশকে মাঠে নামতে হয়। আর তাতে পরিস্থিতি আরও অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় পুরো পরিস্থিতি।
গন্ডগোল যে হবে তা আগে থেকেই আঁচ করা গিয়েছিল। এমন অনুমান করে আগে থেকেই মোতায়েন করা হয়েছিল বিশাল পুলিশ-বাহিনী। তাঁদের হস্তক্ষেপে ঝামেলা বেশি দূর গড়ায়নি।
5/8গন্ডগোল যে হবে তা আগে থেকেই আঁচ করা গিয়েছিল। এমন অনুমান করে আগে থেকেই মোতায়েন করা হয়েছিল বিশাল পুলিশ-বাহিনী। তাঁদের হস্তক্ষেপে ঝামেলা বেশি দূর গড়ায়নি।
ক্লাবকর্তাদের বিরোধী গোষ্ঠীর দাবি, ঝামেলা হওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি করেছেন সমর্থনকারী গোষ্ঠীর লোকেরাই। দুপুর ১টার অনেক আগেই গাড়ি করে তাঁরা ক্লাবতাঁবুতে আসতে শুরু করেছিলেন।
6/8ক্লাবকর্তাদের বিরোধী গোষ্ঠীর দাবি, ঝামেলা হওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি করেছেন সমর্থনকারী গোষ্ঠীর লোকেরাই। দুপুর ১টার অনেক আগেই গাড়ি করে তাঁরা ক্লাবতাঁবুতে আসতে শুরু করেছিলেন।
বিরোধী গোষ্ঠীর সমর্থকরা সময় অনুযায়ী ক্লাবের সামনে এবং লেসলি ক্লডিয়াস সরণীতে জড়ো হয়ে ‘গো ব্যাক নিতু’ শ্লোগান দিতে থাকেন। কিছুক্ষণ চলার পরেই সমর্থনকারী গোষ্ঠীর সদস্যরা এসে প্রতিবাদ জানাতে থাকেন। এরপরেই ঝামেলা বাড়তে থাকে এবং হাতাহাতি শুরু হয়ে যায়।
7/8বিরোধী গোষ্ঠীর সমর্থকরা সময় অনুযায়ী ক্লাবের সামনে এবং লেসলি ক্লডিয়াস সরণীতে জড়ো হয়ে ‘গো ব্যাক নিতু’ শ্লোগান দিতে থাকেন। কিছুক্ষণ চলার পরেই সমর্থনকারী গোষ্ঠীর সদস্যরা এসে প্রতিবাদ জানাতে থাকেন। এরপরেই ঝামেলা বাড়তে থাকে এবং হাতাহাতি শুরু হয়ে যায়।
বার বার অনুরোধেও কাজ না হওয়ায় লাঠিচার্জ শুরু করে পুলিশ। পরে কিছু বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাঁদের লালবাজারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
8/8বার বার অনুরোধেও কাজ না হওয়ায় লাঠিচার্জ শুরু করে পুলিশ। পরে কিছু বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাঁদের লালবাজারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
অন্য গ্যালারিগুলি