বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > হার্থার বিরুদ্ধে দুরন্ত হ্যাটট্রিকের সুবাদে একগুচ্ছ নজির গড়লেন রবার্ট ‘লেওয়ানগোলস্কি’
রবার্ট লেওয়ানডোস্কি। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)
রবার্ট লেওয়ানডোস্কি। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)

হার্থার বিরুদ্ধে দুরন্ত হ্যাটট্রিকের সুবাদে একগুচ্ছ নজির গড়লেন রবার্ট ‘লেওয়ানগোলস্কি’

  • হার্থা বার্লিনের বিরুদ্ধে ৫-০ গোলে ম্যাচ জেতে বায়ার্ন মিউনিখ।

কিছুদিন আগেই নতুন চ্যালেঞ্জের সন্ধানে রবার্ট লেওয়ানডোস্কির বায়ার্ন মিউনিখ ছাড়ার জল্পনা শোনা যায়। তবে সেইসব জল্পনা মাঠের বাইরে, মাঠের ভিতরে নিজের স্বভাবচিত ভঙ্গিমায় হার্থা বার্লিনের বিরুদ্ধে যে জিনিসটা সবথেকে ভাল জানেন, সেটাই করলেন লেওয়ানডোস্কি, থুরি ‘লেওয়ানগোলস্কি’।

হার্থাকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দুরন্ত জয় পেল বায়ার্ন আর দলের তারকা স্ট্রাইকার গোল করলেন, রেকর্ড গড়লেন এবং আবার নিজেকে সেরা প্রমাণ করলেন। জার্মান বুন্দেশলিগায় লেওয়ানডোস্কির রাজত্বে বছর বছর একের একের পর এক নতুন প্রতিযোগী থাবা বসাতে চেয়েছেন, তবে তরুণ আরলিং হালান্ড, আন্দ্রে সিলভা থেকে অতীতে পিয়ের এমরিক-অবামেয়াং সকলের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায়ই নিজের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করেছেন পোলিশ তারকা। 

গত মরশুমে বুন্দেশলিগায় গার্ড মুলারের এক মরশুমে ৪০ গোল করার রেকর্ড ভাঙেন লেওয়ানডোস্কি। শনিবার রাতেও (২৮ অগস্ট) একগুচ্ছ ভাঙলেন ও গড়লেন গড়লেন ৩৩ বছর বয়সী স্ট্রাইকার, যার অধিকাংশই মুলারের দখলে ছিল। এক নজরে দেখে নিন তাঁর গড়া রেকর্ড:-

#এই ম্যাচে বায়ার্ন জার্সিতে নিজের ৩০০তম গোলটি (বর্তমানে ৩০১) করেন লেওয়া। একমাত্র গার্ড মুলার (৫৬৬ টি গোল) তাঁর থেকে অধিক গোল করেছেন।

#টানা ১৬টি প্রতিযোগিতামূলক (দেশ ও ক্লাব মিলিয়ে) ম্যাচে গোল করলেন লেওয়ানডোস্কি। গার্ড মুলার টানা ১৫টি প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে গোল করেছিলেন, যার সবকটিই ছিল বুন্দেশলিগাতেই। সেই নজির ভাঙলেন বায়ার্নের বর্তমান নয় নম্বর জার্সিধারী। 

#বায়ার্নের ঘরের মাঠ অ্যালিয়াঞ্জ অ্যারিনাতেও টানা ১২টি ম্যাচে গোল করে গার্ড মুলার ও জাপ হাইনস্কেসের নজির স্পর্শ করেন তিনি।

#বুন্দেশলিগায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ হ্যাটট্রিক করার নজিরও গড়লেন পোলিশ হার্থার বিরুদ্ধে লেওয়ার হ্য়াট-ট্রিকটি ছিল বুন্দেশলিগায় তাঁর ১৫তম হ্যাটট্রিক। এক্ষেত্রেও তাঁর সামনে শুধু গার্ড (৩২)।

এই রেকর্ডগুলিই লেওয়ানডোস্কির মাহাত্ম্য প্রকাশ্যে যথেষ্ট। বাভেরিয়ান ক্লাব যে কেন এমন একজন ফুটবলারকে দল ছাড়তে দিতে আগ্রহী নয়, তা খুবই স্পষ্ট। বায়ার্নের সমর্থকরা চাইবেন আরও বেশ কয়েক বছর যেন তারা তাদের পছন্দের ক্লাবের জার্সি গায়েই পোল্যান্ড অধিনায়ককে খেলতে দেখতে পারেন। 

বন্ধ করুন