বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > Santosh Trophy: ‘ওরা গোল করলে আমাদের ছেলেরাও চুপ থাকবে না,’ সেমিফাইনালে উঠে বাংলা কোচের হুঙ্কার
বাংলার কোচ রঞ্জন ভট্টাচার্য (ছবি:আইএফএ)

Santosh Trophy: ‘ওরা গোল করলে আমাদের ছেলেরাও চুপ থাকবে না,’ সেমিফাইনালে উঠে বাংলা কোচের হুঙ্কার

  • চলতি সন্তোষ ট্রফির সেমিফাইনালে উঠে গেল বাংলা। রবিবার শক্তিশালী রাজস্থানকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিল রঞ্জন ভট্টাচার্যের ছেলেরা। জোড়া গোল করে জয়ের নায়ক ফারদিন আলি মোল্লা। এই জয়ের ফলে ৪ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ এ থেকে দ্বিতীয় দল হিসেবে সেমিফাইনালে উঠল বাংলা।

চলতি সন্তোষ ট্রফির সেমিফাইনালে উঠে গেল বাংলা। রবিবার শক্তিশালী রাজস্থানকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিল রঞ্জন ভট্টাচার্যের ছেলেরা। জোড়া গোল করে জয়ের নায়ক ফারদিন আলি মোল্লা। এই জয়ের ফলে ৪ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ এ থেকে দ্বিতীয় দল হিসেবে সেমিফাইনালে উঠল বাংলা। সন্তোষ ট্রফির ৮১ বছরের ইতিহাসে সর্বাধিক ৩২বার ট্রফি জিতেছে বাংলা। শেষবার ২০১৭-১৮ মরশুমে ঘরের মাঠে কেরলকে হারিয়ে ট্রফি জিতেছিল বঙ্গব্রিগেড। এ বারও ট্রফি জিততে মরিয়া বাংলা।

এদিনের ম্যাচ জিতে বাংলার কোচ রঞ্জন ভট্টাচার্য বলেন,‘আমাদের দলে রক্ষণের কিছু খামতি রয়েই যাচ্ছে। এরসঙ্গে প্রতি ম্যাচেই আমরা একাধিক গোলের সুযোগ নষ্ট করছি। ট্রফি জিততে হলে আরও আগ্রাসী মেজাজে খেলতে হবে। সেমিফাইনালের হাতে চারদিন সময় রয়েছে। এর মধ্যেই কিছু মেরামতি দরকার। তবে একটা কথা জানিয়ে রাখা ভাল, প্রতিপক্ষ অনুসারে আমরা খেলব। ওরা গোল দিলে আমাদের ছেলেরাও চুপ থাকবে না।’ আগামী ২৯ এপ্রিল মণিপুরের বিরুদ্ধে শেষ চারের ম্যাচে জয়ের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামবে বঙ্গব্রিগেড।

সেমিফাইনালে যেতে হলে এ দিনের ম্যাচ থেকে পয়েন্ট দরকার ছিল। যদি এই ম্যাচে বাংলা ড্র করত তাহলে কঠিন অঙ্কের দিকে তাকিয়ে থাকতে হত। কিন্তু জটিল অঙ্কে না গিয়ে ম্যাচ জিতে একেবারে সরাসরি শেষ চারে পৌঁছেগেল বাংলা। ম্যাচের বেশিরভাগ সময়ই খেলা হচ্ছিল রাজস্থানের অর্ধে। প্রথমার্ধে একের পর এক সহজ সুযোগ তৈরি করেওগোল করতে ব্যর্থ হয় বাংলা। বেশ কয়েকটি সহজ সুযোগ নষ্ট হয়। দ্বিতীয়ার্ধে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলা দল। ৪৬ মিনিটে রাজস্থানের ডিফেন্ডার বক্সের মধ্যে ফারদিনকে পিছন থেকে ধাক্কা দেওয়ার জন্য পেনাল্টি পায় বাংলা। 

দলের হয়ে প্রথম গোল করেন তিনি। ফের ৬০ মিনিটে জ্বলে ওঠেন ফারদিন। বাংলার হয়ে দ্বিতীয় গোল করেন তিনি। এরপর ৮০ মিনিটে ম্যাচের তৃতীয় গোল করেন সুজিৎ।ম্যাচ জিতে ফারদিন বলেন,‘আমার কাছে দলের জয়ই আসল। কটা গোল করলাম সেটার থেকে বড় কথা হল দল কত গোলে জিতল। আমাদের লক্ষ্য ট্রফি জয়। তাই এমন আগ্রাসী মানসিকতা নিয়েই সেমিফাইনালে খেলতে নামব।’

বন্ধ করুন