বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > দল গড়ার কাজ শুরু, লাল-হলুদে উপেক্ষিত হীরাকেই সই করাতে চলেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল
হীরা মণ্ডল।
হীরা মণ্ডল।

দল গড়ার কাজ শুরু, লাল-হলুদে উপেক্ষিত হীরাকেই সই করাতে চলেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল

  • বছর তিনেক আগে অনেক স্বপ্ন নিয়েই লাল-হলুদ জার্সি পরেছিলেন হীরা। কিন্তু শতাব্দী প্রাচীন ক্লাবের জার্সিতে আই লিগে খেলা হয়নি। সুযোগই পাননি হীরা। এ বার অবশ্য তাঁর সামনে নতুন স্বপ্ন। আইএসএল খেলার স্বপ্ন। 

বুধবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হস্তক্ষেপে বিনিয়োগকারী সংস্থা শ্রী সিমেন্টের সঙ্গে ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের চুক্তি নিয়ে সমস্যা মিটে গিয়েছে। আর তার পরেই দল গড়ার কাজে নেমে পড়েছে লাল-হলুদ ব্রিগেড। তারই প্রথম পদক্ষেপ, সাইড ব্যাকে খেলা বাঙালি তরুণ হীরা মণ্ডলকে সই করাতে চলেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল।

বছর তিনেক আগে অনেক স্বপ্ন নিয়েই লাল-হলুদ জার্সি পরেছিলেন হীরা। কিন্তু শতাব্দী প্রাচীন ক্লাবের জার্সিতে আই লিগে খেলা হয়নি। সুযোগই পাননি হীরা। এ বার অবশ্য তাঁর সামনে নতুন স্বপ্ন। আইএসএল খেলার স্বপ্ন। হীরার উত্থানের লড়াইটা কিন্তু মোটেও সহজ ছিল না। তবে তাঁর হার না মানা মনোভাবের কারণেই হয়তো ফের লাল-হলুদ জার্সি তিনি পরতে চলেছেন। 

পিয়ারলেসের জার্সিতে ভাল পারফরম্যান্সের সৌজন্যেই ইস্টবেঙ্গল বছর তিনেক আগে তাঁকে সই করিয়েছিল। তবে স্প্যানিশ কোচ আলেজান্দ্রো মেনেন্দেজের দলে তিনি উপেক্ষিত হয়ে এক কোণায় পড়ে ছিলেন। দার্জিলিং গোল্ড কাপে নিজেকে প্রমাণ করেও মূল দলে খেলার সুযোগ পাননি। এর পর মোহনবাগানেও কথাবার্তা এগোলে শেষ পর্যন্ত সবুজ-মেরুনেও খেলা হয়নি তাঁর।

তবে আর এক প্রধান মহমেডানের জার্সিতে আই লিগে খেলে নজর কাড়েন বৈদ্যবাটির ছেলে। যে কারণে তাঁকে এ বার দলে নিতে দেরী করেনি লাল-হলুদ। সব ঠিকঠাক থাকলে শুক্রবারই হয়তো সই করবেন হীরা মণ্ডল!

এ দিকে আট বছর আগে ২৬ অগস্ট তাঁর বাবা প্রয়াত হয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার বাবাকে স্মরণ করে হীরা ফেসবুকে লিখেছেন, ‘আট বছর তুমি নেই বাবা। যেখানেই থেকো ভাল থেকো। তোমার জন্যই আমরা আজকে ভাল আছি। আজ তুমি থাকলে আমাদের নিয়ে হয়তো খুব খুশি হতে। আমাদের পাশে ঠিক যেমন ভাবে আছ, ঠিক তেমন ভাবেই থেকো। আশীর্বাদ করো তোমার আর মায়ের স্বপ্ন যেন পূরণ করতে পারি। তোমার অভাব সবসময়ে আমরা অনুভব করি।’

বন্ধ করুন