বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > SCEB vs JFC: ইতিহাস গড়েও ৮৮ মিনিটের গোলে জামশেদপুরের বিরুদ্ধে হার ইস্টবেঙ্গলের

SCEB vs JFC: ইতিহাস গড়েও ৮৮ মিনিটের গোলে জামশেদপুরের বিরুদ্ধে হার ইস্টবেঙ্গলের

মারের বিরুদ্ধে বল দখলের লড়াইয়ে ইস্টবেঙ্গলের অঙ্কিত মুখার্জী। ছবি- টুইটার (@IndSuperLeague)।

ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট পেয়ে মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন লাল-হলুদের তারকা ডিফেন্ডার আদিল খান।

চোট আঘাতে জর্জরিত এসসি ইস্টবেঙ্গল প্রথম জয়ের খোঁজে মাঠে নেমেছিল জামশেদপুরের বিরুদ্ধে। বিগত তিন ম্যাচে লড়াকু ড্রয়ের পর ইস্পাতনগরীর দলের বিরুদ্ধে তিন পয়েন্টের আশা ছিল লাল-হলুদ শিবিরের। তবে গোটা ম্যাচে লড়াই করেও হতাশাই জুটল ইস্টলবেঙ্গলের ভাগ্যে। ১-০ ব্যবধানে আইএসএলে প্রথমবার জামশেদপুরের বিরুদ্ধে পরাজিত হল ইস্টবেঙ্গল।

এই ম্যাচে আইএসএলে প্রথমবার ১১ জন ভারতীয় নিয়ে ম্যাচ শুরু করে ইতিহাস গড়ে রেনেডি সিংয়ের দল। গোটা ম্যাচেই হীরা মন্ডলরা দাঁতে দাঁত চেপে লড়াই করলেও সুপার সাব ইশান পান্ডিতা, গত ম্যাচের মতো ফের একবার জামশেদপুরকে জয় এনে দিলেন। ম্যাচের ৮৮ মিনিটে জামশেদপুরের প্লে-মেকার গ্রেগ স্টুয়ার্টের কর্ণার থেকে আগুনে হেডারে গোল করেন পান্ডিতা। এই জয়ের ফলে দুইয়ে থাকা কেরালা ব্লাস্টার্সের থেকে এক ম্যাচ বেশি খেলে, নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবার আইএসএল তালিকার শীর্ষে পৌঁছে গেল আওয়েন কয়েলের দল।

লাল-হলুদের কাছে ম্যাচ জিতে লিগ তালিকার শেষ স্থান থেকে উঠে আসার সুযোগ থাকলেও, সেই সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হলেন তারা। উপরন্তু, গোদের ওপর বিষফোঁড়ার মতো দ্বিতীয়ার্ধে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট পেয়ে মাঠ ছাড়তে হয় ডিফেন্ডার আদিল খানকেও। এসসি ইস্টবেঙ্গল ১৯ জানুয়ারি, নিজেদের পরের ম্যাচে এফসি গোয়ার মুখোমুখি হবে। সেই ম্যাচে অবশ্য রেনেডি নন, নতুন কোচ মারিয়ো রিভেরা লাল-হলুদের রিমোট কন্ট্রোল হাতে তুলে নেবেন।

বন্ধ করুন