বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > কুশল দাসের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ! বাজাজের বিরুদ্ধে কি পদক্ষেপ নেবে AIFF?
সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন সচিব কুশল দাস

কুশল দাসের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ! বাজাজের বিরুদ্ধে কি পদক্ষেপ নেবে AIFF?

  • এর আগেও ফেডারেশনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ইস্যুতে নিজের ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন মিনার্ভা পঞ্জাব কর্ণধার রঞ্জিত বাজাজ। সোশ্যাল মিডিয়ায় বহুবার ফেডারেশনের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন তিনি। তবে এ বার একের পর এক টুইট করে কার্যত বোমা ফাটালেন বাজাজ। কুশল দাসকে কাঠগড়ায় তুলে তাঁর পদত্যাগের দাবিও জানিয়েছেন তিনি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় করেছেন সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন সচিব কুশল দাসের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন মিনার্ভা পঞ্জাব কর্ণধার রঞ্জিত বাজাজ। তিনি বলেছেন, মহিলা কর্মীদের যৌন হেনস্তা করেছেন কুশল দাস। এই খবরে তোলপাড় ভারতীয় ফুটবল মহল। তবে এমন অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলেই দাবি করেছেন কুশল দাস। এর আগেও ফেডারেশনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ইস্যুতে নিজের ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন রঞ্জিত বাজাজ। সোশ্যাল মিডিয়ায় বহুবার ফেডারেশনের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন তিনি। তবে এ বার একের পর এক টুইট করে কার্যত বোমা ফাটালেন বাজাজ। কুশল দাসকে কাঠগড়ায় তুলে তাঁর পদত্যাগের দাবিও জানিয়েছেন তিনি।

কুশল দাসের বিরুদ্ধে অ্যাক্টিং টিডি স্যাভিয়ো মেদেইরাকে অপমান করা ছাড়াও স্বজনপোষণ করার মতো অভিযোগ তোলা হয়েছে। এমন কী কুশল দাসের বিরুদ্ধে একাধিক মহিলা কর্মীকে যৌন হেনস্তা করার কথাও জানিয়েছেন তিনি। রঞ্জিত বাজাজ জানিয়েছেন ফেডারেশন সচিব নিজের পদ থেকে সরে না দাঁড়ালে তাঁর আরও গোপন তথ্য ফাঁস করে দেবেন তিনি। কুশল দাস জানিয়েছেন, বাজাজের করা অভিযোগে তিনি ভয় পাননি। তিনি বলেন, বাজাজ তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করেছে। তিনি বলেন মহিলাদের সুরক্ষা নিশ্চিত করার স্পেশ্যাল মহিলা সেল রয়েছে। সেখানে গত ১০ বছরে এমন কোনও অভিযোগ জমা পড়েনি। এসব অভিযোগে ফেডারেশনের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে বলেও দাবি সচিবের।

রঞ্জিত বাজাজের কথায়, তিনি প্রো লাইসেন্স কোচিং কোর্সের জন্য বিনামূল্যে মিনার্ভার পরিকাঠামো ব্যবহারের প্রস্তাব দিয়েছেন। তবে না পছন্দ নয় ফেডারেশন কর্তাদের একাংশের। যাঁদের মধ্যে রয়েছেন কুশল দাসও। পরোক্ষে বাজাজের অভিযোগ করেন, ফেডারেশন চায় না ভারতীয় কোচেরা আইএসএলের ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলির মাথায় বসুন। সেই কারণেই বিরোধিতা করছেন। অথচ বিদেশে গিয়ে প্রো-কোর্স করার খরচ লক্ষ লক্ষ টাকা। তাতেও কোনও হেলদোল নেই ফেডারেশনের। আর সেই কারণেই কুশল দাসের পদত্যাগ চাইছেন রঞ্জিত বাজাজ। সর্বভারতীয় ফুটবল সংস্থার তরফ থেকে বলা হয়েছে,‘কুশল দাসের বিরুদ্ধে রঞ্জিত বাজাজ যা যা অভিযোগ এনেছেন সেগুলি শুধু মিথ্যেই নয়। এর পাশাপাশি এগুলি দাস মহাশয় এবং সমস্ত ভারতীয় ফুটবলমহলকেই ছোট করছে। এই কারণে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন এর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবে।’

বন্ধ করুন