বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > দল নির্বাচনকে প্রভাবিত করার অভিযোগ ফুৎকারে ওড়ালেন BCCI প্রেসিডেন্ট, পাল্টা কটাক্ষ সমালোচকদের
সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

দল নির্বাচনকে প্রভাবিত করার অভিযোগ ফুৎকারে ওড়ালেন BCCI প্রেসিডেন্ট, পাল্টা কটাক্ষ সমালোচকদের

  • অধিনায়কত্ব ইস্যুতে ভারতীয় ক্রিকেটে বিরাট কোহলি বনাম বিসিসিআই প্রেসিডেন্টের ঠান্ডা লড়াই এখনও অব্যাহত। সেই সংঘাতের আগুন ধিকিধিকি জ্বলছে। এর মধ্যেই নতুন বিতর্ক। শোনা যাচ্ছে, সৌরভ নাকি জোর করে নির্বাচনী সভায় অংশ নিচ্ছেন। যদিও এর কোনও নিশ্চিত প্রমাণ নেই।

বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় নাকি দল নির্বাচনকে প্রভাবিত করেছেন। এমন অভিযোগই উঠেছে। শোনা যাচ্ছে, সৌরভ নাকি জোর করে নির্বাচনী সভায় অংশ নিচ্ছেন। যদিও এর কোনও নিশ্চিত প্রমাণ নেই। এ হেন অভিযোগকে ফুৎকারে উড়িয়ে দিয়েছেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট। সৌরভের স্পষ্ট দাবি, এমন অভিযোগ ভিত্তিহীন।আর এই ধরনের ভিত্তিহীন গুজব নিয়ে তিনি কোনও রকম মন্তব্য করতে রাজি নন।

অধিনায়কত্ব ইস্যুতে ভারতীয় ক্রিকেটে বিরাট কোহলি বনাম বিসিসিআই প্রেসিডেন্টের ঠান্ডা লড়াই এখনও অব্যাহত। সেই সংঘাতের আগুন ধিকিধিকি জ্বলছে। এর মধ্যেই নতুন বিতর্ক। এক সাংবাদিক প্রথমে একটি টুইটে লিখেছিলেন, ‘বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে বিসিসিআইয়ের এক আধিকারিক দল নির্বাচনের বৈঠকে নিজে থেকেই যোগ দিয়েছেন। যদিও তিনি ভালো ভাবেই জানেন, এখানে তাঁর থাকার কথা নয়। অধিনায়ক ও কোচেরও কিছু করার ছিল না। তাঁরা অসহায় বোধ করতে থাকেন। ওই আধিকারিকের দল নির্বাচনী বৈঠকে যোগদানের কোনও প্রয়োজনই ছিল না।’ নাম না করলেও কারও বুঝতে কোনও অসুবিধা হয়নি যে, ওই সাংবাদিকের তির বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের দিকেই ছিল।

তবে পিটিআই-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এই প্রসঙ্গে সৌরভ বলে দিয়েছেন, ‘আমি মনে করি না যে আমার কাউকে (এ বিষয়ে) উত্তর দেওয়ার কোনও প্রয়োজন রয়েছে। আর এই ভিত্তিহীন অভিযোগগুলির কোনওটিকে আমি গুরুত্বই দিচ্ছি না। আমি বিসিসিআইয়ের সভাপতি এবং বিসিসিআই-এর সভাপতির যা করা উচিত, সেটাই আমি করে থাকি।’

সেই সঙ্গে একটি ছবিও ভাইরাল হয়েছে। যেখানে সৌরভকে সেক্রেটারি জয় শাহ, সেই সময়ের অধিনায়ক বিরাট কোহলি, জয়েন্ট সেক্রেটারি জয়েশ জর্জদের সঙ্গে বসে থাকতে দেখা গিয়েছে। সেটিকে অনেক সমালোচকই নির্বাচন কমিটির বৈঠক বলে চালাতে চেয়েছেন। সেটা নিয়ে সৌরভ পাল্টা নিন্দুকদের কটাক্ষ করেছেন।

এই বিষয়ে উত্তর দিতে গিয়ে হাসতে হাসতে সৌরভ কটাক্ষের সুরেই বলে দিয়েছেন, ‘এছাড়াও আমি একটি ছবি দেখতে পাচ্ছি সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব ভাইরাল হয়েছে। সেই ছবিতে বলা হচ্ছে, আমি একটি নির্বাচক কমিটির বৈঠকে বসে আছি। এটা আমি স্পষ্ট করে দিতে চাই, সেই ছবি (যেখানে সৌরভকে সেক্রেটারি জয় শাহ, অধিনায়ক বিরাট কোহলি, জয়েন্ট সেক্রেটারি জয়েশ জর্জদের সঙ্গে বসে থাকতে দেখা যায়) নির্বাচন কমিটির বৈঠকের নয়। জয়েশ জর্জ নির্বাচক কমিটির বৈঠকের অংশ নন। ভারতের হয়ে ৪২৪টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ আমি খেলেছি। এটি সম্পর্কে লোকেদের মনে করিয়ে দেওয়া একটি খারাপ ধারণা নয়, তাই না?’ আসলে সৌরভ বুঝিয়ে দিতে চেয়েছেন, তিনি ক্রিকেট মহলে আনকোরা কেউ নন। নিয়মগুলো তাঁর ভালো করেই জানা রয়েছে।

বন্ধ করুন