বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ‘স্বপ্নপূরণ হল’, প্রথম ভারতীয় ফুটবলার হিসেবে খেল রত্ন পাচ্ছেন, উচ্ছ্বসিত সুনীল
সুনীল ছেত্রী।
সুনীল ছেত্রী।

‘স্বপ্নপূরণ হল’, প্রথম ভারতীয় ফুটবলার হিসেবে খেল রত্ন পাচ্ছেন, উচ্ছ্বসিত সুনীল

  • এই বছর ১২ জন ক্রীড়াবিদ খেল রত্ন সম্মান পাচ্ছেন। সুনীল ছাড়াও পুরস্কার পাচ্ছেন নীরজ চোপড়া, রবি কুমার, লভলিনা বরগোহাঁই, পিআর শ্রীজেশ, অবনী লেখারা, সুমিত আন্টিল, প্রমোদ ভগত, কৃষ্ণ নগর, মনীশ নারওয়াল, মিতালি রাজ এবং মনপ্রীত সিং। ১৩ নভেম্বর সুনীলদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন রামনাথ কোবিন্দ।

নতুন পালক সুনীল ছেত্রীর মুকুটে। ভারতের প্রথম ফুটবলার হিসেবে মেজর ধ্যানচাঁদ খেল রত্ন পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন তিনি। বুধবার নাম চূড়ান্ত হওয়ার পরেই সুনীল জানিয়ে দিয়েছেন, তাঁর বহু দিনের স্বপ্নপূরণ হয়েছে।

এই বছর ১২ জন ক্রীড়াবিদ এই সম্মান পাচ্ছেন। সুনীল ছাড়াও পুরস্কার পাচ্ছেন নীরজ চোপড়া, রবি কুমার, লভলিনা বরগোহাঁই, পিআর শ্রীজেশ, অবনী লেখারা, সুমিত আন্টিল, প্রমোদ ভগত, কৃষ্ণ নগর, মনীশ নারওয়াল, মিতালি রাজ এবং মনপ্রীত সিং। ১৩ নভেম্বর রাষ্ট্রপতি ভবনে সুনীলদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন রামনাথ কোবিন্দ।

সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ভারত অধিনায়ক নিজের উচ্ছ্বাস চেপে রাখেননি। সুনীল বলেছেন, ‘আমি রোমাঞ্চিত ও গর্বিত। সব সময়ই আমি এই স্বপ্নটা দেখতাম। আমার পরিবার, স্ত্রী, বন্ধু, কোচ ও সতীর্থদের সাহায্য ছাড়া এই স্বপ্ন কখনওই সফল হত না। আমার জীবনে প্রত্যেকেরই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।’

তবে সুনীল যে দীর্ঘ সময় ধরে যে সাফল্য পেয়েছেন, সেটাও খুব কম ভারতীয় ফুটবলারের রয়েছে। ২০০৫ সালের ১২ জুন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জাতীয় দলে অভিষেক হয় সুনীলের। দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে দেশের জার্সিতে খেলে ১২৫টি ম্যাচে ৮০টি গোল করে সুনীল স্পর্শ করেছেন লিওনেল মেসিকে।

তবে এই সব পরিসংখ্যান নিয়ে না ভেবে নিজের খেলাটা খেলে যেতে চান। যতদিন তাঁর গোল করার ক্ষমতা থাকে, যতদিন ফিটনেস সঙ্গ দেয়, ততদিন খেলাটা চালিয়ে যেতে চান ৩৬ বয়সী সুনীল। তিনি বলছিলেন, ‘জাতীয় দলের হয়ে খেলার সুযোগ পাওয়াটাই অসাধারণ ব্যাপার। এত বছর ধরে এতগুলি ম্যাচ খেলার এই দীর্ঘ পথ চলার অনুভূতিও অতুলনীয়। জাতীয় দলের হয়ে মাঠে নেমে গোল করার সুযোগ পেয়েই আমি সবচেয়ে খুশি হই। দেশকে কিছু দিতে পারাই আমার কাছে বেশি মূল্যবান।’

বন্ধ করুন