বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > শেষ ম্যাচে সম্ভবত খেলবেন না সুনীল, কোন অঙ্কে AFC Asian Cup-র মূলপর্বে পৌঁছবে ভারত?
ভারতীয় অনুশীলনে সুনীল ছেত্রী, কোচ ইগর স্টিমাচ ও সন্দেশ ঝিঙ্গান। ছবি- টুইটার (@IndianFootball)।

শেষ ম্যাচে সম্ভবত খেলবেন না সুনীল, কোন অঙ্কে AFC Asian Cup-র মূলপর্বে পৌঁছবে ভারত?

  • মাত্র পঞ্চমবার এশিয়ান কাপের মূলপর্বে খেলতে বদ্ধপরিকর ভারতীয় ফুটবল দল।

এএফসি এশিয়ান কাপের প্রথম ম্যাচে কম্বোডিয়াকে হারানোর পর, রুদ্ধশ্বাস ভঙ্গিমায় দ্বিতীয় ম্যাচেও আফগানিস্তানকে হারিয়েছে ভারতীয় দল। তবে দুই ম্যাচে সর্বোচ্চ পয়েন্ট নিয়েও কিন্তু নিজেদের গ্রুপে শীর্ষে নেই ভারতীয় দল। সেই জায়গা রয়েছে হংকংয়ের দখলে।

ভারত কম্বোডিয়াকে ২-০ ও আফগানিস্তানকে ২-১ হারালেও, কম্বোডিয়ার বিরুদ্ধে ৩-০ জিতেই একে রয়েছে হংকং। গ্রুপের দুই শীর্ষ দল মঙ্গলবার (১৪ জুন) শেষ ম্যাচে একে অপরের মুখোমুখি হবে। মাত্র পঞ্চমবার মহাদেশীয় লড়াইয়ের অংশ নেওয়ার আশায় রয়েছে ভারত। এই অবস্থায় কী ভাবে আসন্ন বছরের এশিয়ান কাপে কোয়ালিফাই করতে পারবে ভারতীয়, ভারতের সামনে অঙ্কটা ঠিক কেমন?

১) ভারত যদি হংকংকে ফাইনাল ম্যাচে হারায়, তাহলে নিঃসন্দেহে নয় পয়েন্ট নিয়ে এশিয়ান কাপের মূলপর্বে কোয়ালিফাই করে যাবে ভারত।

২) ভারত যদি ম্যাচ ড্র করে, তাহলে ভারত ও হংকং দুই দলের সমান, সাত পয়েন্ট থাকলেও বেশি ভাল গোলপার্থক্যের জেরে গ্রুপ টপার হিসাবে এশিয়ান কাপে জায়গা সুনিশ্চিত করবে হংকং।

৩) হারলেও অবস্থা ড্রয়ের মতোই। খালি ভারতের দখলে সাতের বদলে ছয় পয়েন্ট।

তাহলও কী হংকং-র বিরুদ্ধে ভারতের ম্যাচটি মরণ-বাঁচন ম্যাচ? উত্তর, না। এশিয়ান কাপে ইতিমধ্যেই ১৩টি দল কোয়ালিফাই করে গিয়েছে। তৃতীয় রাউন্ডের কোয়ালিফায়ারে ছয়টি গ্রুপে ভাগ করা ২৪টি দল নিজেদের মধ্যে খেলছে। এই গ্রুপগুলির শীর্ষে থাকা ছয় দল তো সরাসরি এশিয়ান কাপে পৌঁছে যাবেই, পাশাপাশি দ্বিতীয় স্থানে থাকা সেরা পাঁচটি দলও কোয়ালিফাই করবে। ভারত ইতিমধ্যেই দুই ম্যাচ জিতেছে। তাই শেষ ম্য়াচে হারলেও, সেরা পাঁচটি দ্বিতীয় স্থানে শেষ করা দলের মধ্যে থাকার সম্ভাবনা প্রবল।

এক নজরে দ্বিতীয় স্থানে থাকা দলগুলির সম্মিলিত তালিকা দেখে নিন।

দলগ্রুপম্যাচজয়ড্রপরাজয়পক্ষে গোলবিপক্ষে গোলগোলপার্থক্যপয়েন্ট
থাইল্যান্ডসি+৫
কির্গিজ প্রজাতন্ত্রএফ+৩
ভারতডি+৩
ফিলিপিন্সবি+১
মালেশিয়া+১
ইন্দোনেশিয়া

এই তালিকা থেকেই স্পষ্ট যে খুব বেশি হেরফের না ঘটলে ভারতের এশিয়ান কাপে খেলা মোটামুটি পাকা। এই পরিসংখ্যানের বিষয়ে নিঃসন্দেহে ভারতীয় কোচ ইগর স্টিমাচও অবগত। তাই দ্বিতীয় ম্যাচের পরেই হংকং ম্যাচে যে সুনীল ছেত্রীকে বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে, তার পূর্বাভাস দিয়ে রেখেছেন। ছেত্রী দারুণ ফর্মে রয়ছেন। দুই ম্যাচের বেশিরভাগ সময় খেলে তিন গোলও করেছে। তবে সকলেরই বিশ্রাম দরকার। ৩৭ বছরের ছেত্রীর পক্ষে পরপর এই গরমে তিন ম্যাচ খেলা সত্যি চাপের।

সেই কারণেই সম্ভবত স্টিমাচ জানান, ‘আমাদের গ্রুপ জিততে হলে ওই ম্যাচটাও জিততে হবে। তবে সবকিছুর মধ্যেও ম্যাচটা উপভোগ করতে হবে। হয়তো সুনীলকে ছাড়াই আমরা ওই ম্যাচে মাঠে নামব এবং পরখ করে নেব ওর অনুপস্থিতিতে আমরা কেমন কী করতে পারি। ওর একটু বিশ্রামেরও প্রয়োজন আছে।’ পরিস্থিতি যখন পক্ষে, তখন ছেত্রীহীন ভারত কেমন খেলে, সেটা পরখ করে দেখাটা কিন্তু বুদ্ধিমানের কাজই হবে। 

বন্ধ করুন