বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > কর্তাদের মধ্যে মতানৈক্য, মোহনবাগানের সভাপতি কে হবেন, ঝুলেই থাকল সিদ্ধান্ত
মোহনবাগানের কার্যকরী কমিটির বৈঠক।

কর্তাদের মধ্যে মতানৈক্য, মোহনবাগানের সভাপতি কে হবেন, ঝুলেই থাকল সিদ্ধান্ত

  • ‘রিমুভ এটিকে’ দাবিতে সমর্থকদের বিক্ষোভ তীব্র আকার নিচ্ছে। ক্লাবের নামের আগে থেকে এটিকে মুছে ফেলা নিয়ে আলোচনা হয়েছে বুধবারের কার্যকরী কমিটির বৈঠকে। সেখা উপস্থিত ছিলেন দুই সহ সভাপতি অরূপ রায় এবং মলয় ঘটকও। ছিলেন কুণাল ঘোষও। ২৩ এপ্রিল মোহনবাগানের বার্ষিক সাধারণ সভা।

মোহনবাগানের সভাপতি কে হবেন? এই নিয়ে চলছে জোর জল্পনা। অনেকেই আশা করেছিল, বুধবার কার্যকরী কমিটির দ্বিতীয় বৈঠকের পর হয়তো জানা যাবে সভাপতির নাম। তবে সে রকম কিছুই হল না। এ দিনও ঘোষিত হল না নতুন সভাপতির নাম। উল্টে কর্তাদের মধ্যে মতবিরোধ তীব্র আকার নিল।

সচিব দেবাশিস দত্তের সিদ্ধান্তে অসন্তোষ প্রকাশ করেন মাঠ সচিব স্বপন বন্দ্যোপাধ্যায়। শেষ পর্যন্ত প্রকাশ্যেই তাঁকে থামিয়ে দেন বাগানের নতুন সচিব। সবটাই ঘটে প্রচারমাধ্যমের প্রতিনিধিদের সামনে। মত পার্থক্যের জেরে বেছে নেওয়া যায়নি সভাপতির নামও। এই নিয়ে আবার আলোচনায় বসবে কার্যকরী কমিটি।

আরও পড়ুন: উইলিয়ামসের দুরন্ত হ্যাটট্রিক, ৩-১ আবাহনীকে হারিয়ে AFC Cup-এর মূল পর্বে ATK MB

আরও পড়ুন: দলকে সাফল্য এনে দিতে পারেননি, তবু নতুন মরশুমে ATK MB-র দায়িত্বে ফেরান্দোই

মোহনবাগান সচিবের দাবি, এক মাসের মধ্যেই সভাপতির নাম চূড়ান্ত হয়ে যাবে। দেবাশিস দত্ত বলেন, ‘২০ বছর ধরে ক্লাবের সদস্য এবং সভাপতি হতে পারে এমন মানুষের সংখ্যা ৩২। তার মধ্যে অনেকেই অসুস্থ। অনেকেরই বয়স হয়েছে। তাঁদের মধ্যে থেকে সাত জনকে বেছে নেওয়া হয়েছে। সেই নামগুলো নিয়ে এখন আলোচনা হচ্ছে। তাঁদের মধ্যে থেকেই সভাপতি বেছে নেওয়া হবে।’

সভাপতির পাশাপাশি দু'জন সহ সভাপতির পদও খালি আছে। সৌমিক বসুকে বেছে নেওয়া হলেও আরও একটা পদ খালি থাকবে। সেই নিয়েও এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। এদিকে কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করা হল প্রাক্তন সচিব অঞ্জন মিত্রর মেয়ে সোহিনী মিত্র চৌবেকে। ব্যক্তিগত কারণে মাঠ সচিবের পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন তন্ময় চ্যাটার্জি। তাঁর ইস্তফা গৃহীত হয়েছে। তাঁর পরিবর্তে মাঠ সচিব হিসেবে পিন্টু বিশ্বাসের নাম প্রস্তাব করেন সচিব দেবাশিস দত্ত। তাতেই আপত্তি জানান স্বপন ব্যানার্জি। দাবি করেন, পিন্টু বিশ্বাস দু'বছর সদস্যপদ নবীকরণ করেনি। আপত্তি জানানোর ফলে মাঠ সচিব নির্বাচিত করা যায়নি। এই বিষয়ে আরও আলোচনা করা হবে।

বন্ধ করুন