বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > দড়ি টানাটানি শুরু দুই প্রধানের, এসসি ইস্টবেঙ্গলের পথে প্রবীর-অরিন্দম-প্রণয়?
লাল-হলুদের পথে প্রবীর?
লাল-হলুদের পথে প্রবীর?

দড়ি টানাটানি শুরু দুই প্রধানের, এসসি ইস্টবেঙ্গলের পথে প্রবীর-অরিন্দম-প্রণয়?

  • গত মরশুমে ভাল পারফরম্যান্স করার পরেও, এই বছর এটিকে মোহনবাগানের প্রথম গোলকিপার অরিন্দম নন, অমরিন্দর সিং। যে কারণেএটিকে মোহনবাগান ছাড়তে চাইছেন অরিন্দম।

চুক্তি জট কাটিয়ে দলবদলের বাজারে একেবারে শেষ মুহূর্তে আসরে নেমেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল। আর তার পরেই ময়দান একেবারে তোলপাড়। এটিকে মোহনবাগানের প্লেয়ারদের দিকে নজর লাল-হলুদের। এ বার কি তবে তবে সবুজ-মেরুনের ঘর ভাঙতে চলেছে? সে রকমই কিন্তু গুজব শোনা যাচ্ছে। মহম্মদ রফিক এবং বিকাশ জাইরুকে চূড়ান্ত করে ফেলেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল। সৌরভ দাস, অঙ্কিত মুখোপাধ্যায়দেরও রেখে দিতে চাইছে লাল-হলুদ। হীরা মণ্ডলকেও নিশ্চিত করে ফেলেছে তারা। তার মাঝেই শোনা যাচ্ছে প্রবীর দাস এবং প্রণয় হালদারও লাল-হলুদেই নাম লেখাতে চাইছেন।

 প্রণয় হালদারকে ছেড়ে দিয়েছে এটিকে মোহনবাগান। শোনা যাচ্ছিল, জামশেদপুরের সঙ্গে প্রণয়ের কথাবার্তা পাকা হয়ে গিয়েছে। তবে লাল-হলুদে খেলার সুযোগ পেলে প্রণয় হয়তো কলকাতার দলেই থেকে যেতে চাইবেন। প্রবীরকে কিন্তু ছাড়েনি এটিকে মোহনবাগান। তবে তিনিও নাকি এসসি ইস্টবেঙ্গলে খেলতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

এর সঙ্গেই ময়দানের তীব্র গুঞ্জন এটিকে মোহনবাগান ছাড়তে চলেছেন অরিন্দম ভট্টাচার্যও। আগে শোনা গিয়েছিল, এসসি ইস্টবেঙ্গল চাইলে লোনে অরিন্দমকে ছেড়ে দিতে পারে সবুজ-মেরুন। কিন্তু এখন পরিস্থিতি পাল্টে গিয়েছে। 

আর এক বাঙালি গোলকিপার অভিলাষ পালকে লোনে ছেড়ে দিতে চলেছে এটিকে মোহনবাগান। আর তাই অরিন্দমকে তারা এখন ছাড়তে আর রাজি নয়। তবে গত মরশুমে ভাল পারফরম্যান্স করার পরেও, এই বছর এটিকে মোহনবাগানের প্রথম গোলকিপার অরিন্দম নন, অমরিন্দর সিং। যে কারণে এটিকে মোহনবাগান ছাড়তে চাইছেন অরিন্দম। তিনি কি লাল-হলুদের দিকেই পা বাড়িয়েছেন? ময়দানে এই নিয়ে জোর গুজব রয়েছে।

এ দিকে দুই প্রধানে চুটিয়ে খেলা রেনেডি সিং-কে সহকারী হিসেবে পুনরায় নিযুক্ত করেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল। এর আগের মরশুমেও লাল-হলুদের সহকারী কোচ ছিলেন রেনেডি।

বন্ধ করুন