বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ‘এখনও দলের অনেক সমস্যাই রয়েছে’, নর্থ-ইস্টের বিরুদ্ধে নামার আগে দাবি দিয়াজের
ম্যানুয়েল দিয়াজ।
ম্যানুয়েল দিয়াজ।

‘এখনও দলের অনেক সমস্যাই রয়েছে’, নর্থ-ইস্টের বিরুদ্ধে নামার আগে দাবি দিয়াজের

  • চোট সারিয়ে ফিট হয়ে উঠেছেন লাল-হলুদের এক নম্বর গোলকিপার এবং অধিনায়ক অরিন্দম ভট্টাচার্য। নর্থ-ইস্টের বিরুদ্ধে প্রথম একাদশে খেলতে পারেন অরিন্দম।

দশ বনাম এগারোর লড়াই আজ। এখনও পর্যন্ত যা পরিস্থিতি, তাতে আইএসএল তালিকার লাস্টবয় এসসি ইস্টবেঙ্গল ৬ ম্যাচ খেলে ফেলেছে। কিন্তু এখনও জয়ের দেখা পাইনি। অন্য়দিকে আবার খালিদ জামিলের নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড রয়েছে লিগ তালিকার দশ নম্বরে। লাল-হলুদের পয়েন্ট ৩। আর নর্থ ইস্টের পয়েন্ট ৪। দুই দলই আজ জয়ে ফিরতে মরিয়া থাকবে।

এ দিকে চোট সারিয়ে এ দিনের ম্যাচে দলে ফিরছেন লাল-হলুদের এক নম্বর গোলকিপার এবং অধিনায়ক অরিন্দম ভট্টাচার্য। এমনটাই জানিয়েছেন লাল-হলুদ কোচ ম্যানুয়েল দিয়াজ। নর্থ-ইস্ট ইউনাইটেড এফসি-র কোচ খালিদ জামিল আবার উদ্বিগ্ন তাঁর দলের ফুটবলারদের নিয়ে। অনেকেরই চোট রয়েছে। এখনও পর্যন্ত কোনও ম্যাচেই তিনি পুরো দলকে এবং ছয় বিদেশিকে একসঙ্গে পাননি। তবে দুই কোচই চাইছে, জয়ে ফিরতে। কারণ দুই কোচেরই দাবি, জিতলে পুরো পরিস্থিতি বদলে যাবে।

লিগ টেবলে দশ নম্বরে থাকা নর্থ-ইস্ট এফসি-র বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগে আর দিয়াজ কী বললেন, দেখে নেওয়া যাক এক নজরে।

নর্থ-ইস্টের বিরুদ্ধে কি জিততে পারবে এসসি ইস্টবেঙ্গল?

আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি। দলের ছেলেদের মানসিকতা যথেষ্ট ভাল। বিপক্ষের প্রতি শ্রদ্ধাও আছে। এর আগেই আমরা জিততে পারতাম। কিন্তু সুযোগগুলোকে কাজে লাগাতে পারিনি।

ফুটবলারদের চোটের কী অবস্থা?

জ্যাকিচাঁদ দলের সঙ্গে অনুশীলন করতে পারছে না। তবে অরিন্দম দলের সঙ্গে অনুশীলন করছে। ওর কাল খেলার সম্ভাবনা আছে। ড্যারেন (সিডোল) ক্রমশ সুস্থ হয়ে উঠছে। আর কারও চোট নেই।

দলের খেলোয়াড়দের শারীরিক ও মানসিক অবস্থা সম্পর্কে কী বলবেন?

সমস্যাটা শুধু শারীরিক দিক থেকে নয়, দলের সব কিছু নিয়েই ভাবতে হচ্ছে। কৌশল, টেকনিকের সঙ্গে শারীরিক দিকও। অনেক কিছু নিয়ে সমস্যা রয়েছে। আমরা প্রাক-মরশুম প্রস্তুতি শুরু করেছি দেরিতে। সেই কারণেই শারীরিক অবস্থা এই জায়গায় দাঁড়িয়ে।

লাল-হলুদ এখন লিগ টেবলের লাস্টবয়। এই অবস্থায় নর্থ-ইস্টের বিরুদ্ধে নামার আগে দলের ছেলেদের চাঙ্গা করছেন কী ভাবে?

আমরা চেষ্টা করছি, যাতে ছেলেরা মানসিক ভাবে চাঙ্গা থাকে। কাজটা খুবই কঠিন। এখন প্রতিটি ম্যাচ আমাদের কাছে চ্যালেঞ্জ।

নর্থ-ইস্ট ভালো ফর্মে নেই। ওদের বিরুদ্ধে কী স্ট্র্যাটেজি থাকবে?

আমাদের নিজেদের শক্তি অনুযায়ী এগোতে হবে। ম্যাচ চলাকালীন বেশি ভুল করলে চলবে না। ভুলে গেলে চলবে না, ওরা গত মরশুমে সেরা চারের মধ্যে ছিল। এ বছর ওদের শুরুটা ভাল হয়নি। কালকের ম্যাচটা সমানে সমানে লড়াই হতে পারে।

আপনাদের একাধিক গোল এসেছে লম্বা থ্রোয়ে, যেটা সাধারণত রাজু গায়কোয়াড় ভাল করে থাকেন। এই লম্বা থ্রো আপনাদের আক্রমণে গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্র হয়ে উঠল কেন?

সত্যিই আমাদের কাছে এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কারণ, আমাদের ফুটবলাররা এই ব্যাপারটা খুব ভালো পারে। পেশাদার দলগুলো এগুলো করে থাকে। তবে সঙ্ঘবদ্ধ থাকা, বিপক্ষকে চাপে রাখা বেশি দরকার। আক্রমণে ওঠাও খুব জরুরি।

এই লম্বা থ্রো কি আপনাদের সেটপিস অনুশীলনে অঙ্গ?

শুধু লম্বা থ্রোয়ে নয়, নানা উপায়েই গোল পেয়েছি আমরা। সেট পিসে আমরা অন্যান্য অনুশীলনও করে থাকি।

কাল কি আদিল খানকে শুরু থেকে দেখা যেতে পারে?

চূড়ান্ত দল বাছাইয়ের জন্য ম্যাচের আগের মুহূর্ত পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে আমাদের। তবে ওকে খেলাতে পারি।

আপনার দলের বিদেশি বাছাই নিয়ে কি আপনি উদ্বিগ্ন?

আমরা ন’গোল করেছি। এর মধ্যে বিদেশি ফুটবলাররা আট গোল দিয়েছে। ওদের নিয়ে আমি খুশি। তবে এটাই ওদের স্বাভাবিক পারফরম্যান্স।

বন্ধ করুন