বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > যুবভারতীতে সুনীলদের টিকিট বিকোবে না ভেবে বিনামূল্যে বিতরণ, শেষ নিমেষে
আরও টিকিট ছাড়ল ফেডারেশন।

যুবভারতীতে সুনীলদের টিকিট বিকোবে না ভেবে বিনামূল্যে বিতরণ, শেষ নিমেষে

  • শনিবার ফেডারেশন নতুন করে এক বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, এশিয়ান কাপ যোগ্যতা অর্জন পর্বে ভারতের তিনটি ম্যাচের টিকিটের কোনও অভাব হবে না। অর্থাৎ পুরো মাঠই ভরবে। আর এই বিষয়ে সমর্থন করছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এবং সমস্ত টিকিটই বিনামূল্যে ছাড়া হবে।

শনিবার সকাল ১১টায় এএফসি এশিয়ান কাপ যোগ্যতা অর্জন পর্বের টিকিট ছাড়া হয় অনলাইনে, যা দশ মিনিটের মধ্যেই শেষ হয়ে যায়। আসলে ফেডারেশন প্রথম ভেবেছিলেন সুলীল ছেত্রীদের ম্যাচের টিকিটো বিকোবে না। কিন্তু টিকিটের জন্য হাহাকার পড়ে গিয়েছে।

টিকিট না পেয়ে ফুটবলপ্রেমীদের মনে চিন্তা ছিল বিস্তর। তিন বছর পর ভারতীয় ফুটবল দল খেলবে কলকাতায়, তাদের ম্যাচ আর দেখা যাবে না? তবে এই সমস্যার সমাধান করে দিল অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনই।

শনিবার তারা নতুন করে এক বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, এশিয়ান কাপ যোগ্যতা অর্জন পর্বে ভারতের তিনটি ম্যাচের টিকিটের কোনও অভাব হবে না। অর্থাৎ পুরো মাঠই ভরবে। আর এই বিষয়ে সমর্থন করছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এবং সমস্ত টিকিটই বিনামূল্যে ছাড়া হবে।

আরও পড়ুন: ‘শেষ কিছু ম্যাচ খেলছি, ফিফা ব্যান করলে বিপর্যয়’, অবসরের ইঙ্গিত সুনীলের

কিন্তু কী ভাবে এই সিদ্ধান্তের পরিবর্তন হল? ফেডারেশন সূত্রে খবর, এশিয়ান কাপ যোগ্যতা অর্জন পর্বে দর্শকদের আগ্রহ নিয়ে সন্দেহ ছ্ল টিকিট বিপণন সংস্থা এবং এআইএফএফ-এর মধ্যে। যেহেতু ভারতের বাকি তিন প্রতিপক্ষ তুলনামূলক অনামী। আর সেই এই কারণে প্রথমে ২০ হাজার টিকিট ছাড়া হয়েছিল। কিন্তু ফুটবলের মক্কার ছবি যে একেবারে আলাদা।

২০ হাজার টিকিটের মধ্যে দুই হাজার টিকিট দেওয়া হয় রাজ্য সরকারকে, পাঁচ হাজার টিকিট আইএফএকে, আর বাকি টিকিট দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছিল সাধারণ দর্শকদের জন্য। কিন্তু সেই টিকিট অনলাইনে ছাড়তেই নিমেষে শেষ।

দর্শকদের চাহিদা বুঝে আরও টিকিট ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। প্রয়োজন হলে, পুরো যুবভারতীর দর্শকাসন ভরিয়ে দেওয়ার মত টিকিট ছাড়বে আয়োজকরা। স্বভাবতই উচ্ছ্বসিত কলকাতার ফুটবলপ্রেমীরা।

বন্ধ করুন