বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > EURO 2020: ইতালির বিরুদ্ধে পেনাল্টি মিস সত্ত্বেও জাতীয় দলের হয়ে নজির গড়ে রোনাল্ডোর কৃতিত্বে ভাগ বসালেন মোরাতা
গোল করে উচ্ছ্বাস আলভারো মোরাতার। ছবি- রয়টার্স। (Pool via REUTERS)
গোল করে উচ্ছ্বাস আলভারো মোরাতার। ছবি- রয়টার্স। (Pool via REUTERS)

EURO 2020: ইতালির বিরুদ্ধে পেনাল্টি মিস সত্ত্বেও জাতীয় দলের হয়ে নজির গড়ে রোনাল্ডোর কৃতিত্বে ভাগ বসালেন মোরাতা

  • ৮০ মিনিটের মাথায় গোল করে দলকে সমতায় ফেরালেও, শুট আউটে পেনাল্টি মিস করেন মোরাতা।

ফুটবল এক চরম অনিশ্চয়তার খেলা। এই কথাটা বহুবার বহুজন মুখে অনেকেই শুনে থাকবেন। ইউরোর প্রথম সেমিফাইনালের রাতে তাঁর উদাহরণও হাতে নাতে মিলল। ঘটনার কেন্দ্রে স্প্যানিশ স্ট্রাইকার আলভারো মোরাতা। ৮০ মিনিটের মাথায় গোল করে দলকে সমতায় ফেরালেও, শুট আউটে পেনাল্টি মিস করে তিনিই ফের ‘ভিলেন’। তবে এই ম্যাচেই ব্যক্তিগত এক নজির গড়ে ফেললেন তিনি।

সেমিফাইনালে ইতালির বিরুদ্ধে স্পেন দলের প্রথম এগারোয় তাঁকে রাখেননি কোচ লুইস এনরিকে। তবে পরিবর্ত হিসাবে মাঠে নেমে ৮০ মিনিটের মাথায় দলের হয়ে দানি ওলমোর ঠিকানা লেখা পাস থেকে গোল করে দলের হয়ে সমতা ফেরান মোরাতা। এই গোলের সঙ্গে সঙ্গেই জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ফার্নান্দো তোরেসকে (৫) পিছনে ফেলে স্প্যানিশ দলের হয়ে ইউরোয় সর্বোচ্চ গোল (৬) করার নজির গড়ে ফেললেন তিনি। 

প্রসঙ্গত, প্রথম স্প্যানিশ ফুটবলার হিসাবে ওয়েম্বলিতে ক্লাব ও জাতীয় দলের হয়ে গোল করার কৃতিত্ব অর্জন করেন স্পেনের সাত নম্বর জার্সিধারী। পাশাপাশি ইউরোয় নিজের ষষ্ঠ গোলটি করে ক্লাব সতীর্থ ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোরও কৃতিত্বে ভাগ বসালেন তিনি। রোনাল্ডোর পরে ২৮ বছর বয়সী স্ট্রাইকারই দ্বিতীয় ফুটবলার হিসাবে দুটি ভিন্ন ইউরো টুর্নামেন্টে তিন বা ততোধিক গোল করার নজির গড়লেন। 

এর আগে ক্রোয়শিয়া এবং পোল্যান্ডের বিপক্ষে এই ইউরোয় বল জালে জড়াতে সক্ষম হয়েছিলেন তিনি। যদিও রোনাল্ডোর দখলে এই টুর্নামেন্ট মিলিয়ে মোট তিনটি পৃথক ইউরোয় তিন বা তার বেশি গোল করার কৃতিত্ব রয়েছে। তবে শেষমেশ কাজে আসল না মোরাতার গোল। পেনাল্টিতে হেরে ইউরো থেকে বিদায় নিতে হল লা রোহাকে।

বন্ধ করুন