বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > EURO 2020: প্রি-কোয়ার্টারে ইতালি বিরুদ্ধে কঠিন লড়াই অস্ট্রিয়ার
অনুশীলনরত ইতালির মহাতারকা ত্রয়ী। ছবি- ইউরো (টুইটার)।
অনুশীলনরত ইতালির মহাতারকা ত্রয়ী। ছবি- ইউরো (টুইটার)।

EURO 2020: প্রি-কোয়ার্টারে ইতালি বিরুদ্ধে কঠিন লড়াই অস্ট্রিয়ার

  • টানা ৩০ ম্যাচ অপরাজিত মানচিনির ইতালি।

শুভব্রত মুখার্জি

আর মাত্র কয়েকটা ঘন্টার অপেক্ষা তারপরেই শুরু হয়ে যাবে ইউরো কাপ ২০২০-'র প্রি-কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যায়। সেখানে আজ ভারতীয় সময় মধ্যরাতে ১২:৩০ টায় মুখোমুখি হতে চলেছে ইতালি ও অস্ট্রিয়া। প্রসঙ্গত, এখন নক আউট পর্বে পৌঁছে গেছে দলগুলি অর্থাৎ যে দল জিতবে তাঁরা সরাসরি চলে যাবে কোয়ার্টার ফাইনালে। 

একটা ভুলে শেষ হয়ে যেতে পারে কোটি কোটি সমর্থকের আশা ভরসা। তাই স্বাভাবিকভাবেই দুই দল শুরুর কয়েক মিনিট একটু দেখে শুনে খেলতে চাইবে তা বলা যেতেই পারে। রবার্তো মানচিনির ছেলেদের আত্মবিশ্বাস স্বাভাবিকভাবেই তুঙ্গে থাকবে। গ্রুপের তিনটি ম্যাচেই তারা সরাসরি জয় তুলে নিয়েছে। প্রথম ম্যাচে তুরস্ক ও দ্বিতীয় ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৩-০ গোলের বড় ব্যবধানে জয় পায় আজুরিরা। তাঁদের শেষ ম্যাচে তাঁরা ওয়েলশের বিরুদ্ধে তাঁদের রিজার্ভ বেঞ্চের শক্তি পরখ করে নেয়। সেখানেও তাঁরা ১-০ গোলে জয় লাভ করে। 

ইতালির ফুটবলে 'নবজাগরণ' ঘটানো মানচিনি পজিশন নির্ভর ফুটবল খেলাতে বেশি পছন্দ করেন। যেখানে ছোট ছোট একাধিক পাশ নিজেদের মধ্যে খেলে তাঁরা একের পর এক আক্রমণের ঢেউ তোলেন বিপক্ষ বক্সে। লরেঞ্জো ইনসিগনে, চিরো ইম্মোবিলে, বেরার্ডিরা যখন আক্রমণ তুলে আনেন বিপক্ষ বক্সে তখন তা অত্যন্ত গতিময়তার সঙ্গে করে থাকেন। ফলে বিপক্ষ ডিফেন্সের সমস্যা বাড়ে বই কমে না। তাঁদের ডিফেন্সে অতন্দ্র প্রহরীর মতন দুর্গ সামলাচ্ছেন দুই অভিজ্ঞ ফুটবলার চিয়েলিনি ও বোনুচ্চি। চিয়েলিনির বদলে মাঝমধ্যে আচের্বিকেও প্রথম একাদশে সুযোগ দেন মানচিনি। এদেরকে টপকে ইতালির বিরুদ্ধে গোল করাটাও খুব একটা সহজ কাজ হবে না অস্ট্রিয়ার পক্ষে। এছাড়া গোল আগলে রয়েছেন বুফোঁর 'ভাবশিষ্য' জিয়ানলুইজি দোনারুমা। যিনি ভবিষ্যতে বিশ্ব ফুটবলের কিংবদন্তী গোলরক্ষক হয়ে ওঠার সমস্ত গুনসম্পন্ন।

একটা সময় কাতানেচ্চিও সিস্টেমে বিপক্ষকে হারানোর লড়াই মাঠে লড়তেন ইতালিয়রা। পাওলো মালদিনিরা সেই সিস্টেমকে একটা ভিন্ন উচ্চতায় নিয়ে গিয়েছিলেন। বর্তমান দল সেই ডিফেন্সিভ ফুটবলের ধার কাছে একদম ঘেঁষে না। বিশ্ব ফুটবলে ইতালিকে নতুন রূপে প্রতিষ্ঠা করেছেন মানচিনি। ম্যাঞ্চেস্টার সিটির প্রাক্তন কোচ, ইতালির দায়িত্ব নেওয়ার পর দলটাকেই বদলে দিয়েছেন। যে ইতালি বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন করতে না পারায় বিপর্যস্ত ছিল আজ তারাই মানচিনির হাত ধরে ইউরো জয়ের স্বপ্ন দেখছে। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরের পর থেকে এখনও পর্যন্ত টানা ৩০টি ম্যাচ অপরাজিত ইতালি দল।

অন্যদিকে, অস্ট্রিয়া এই প্রথমবার ইউরোর প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে প্রবেশ করেছে। শেষ আটে যাওয়ার স্বপ্ন চোখে নিয়ে বমগার্টনাররা নামবেন ইতালির বিরুদ্ধে। 'আন্ডারডগ' তকমাটা তাঁদের কিছুটা হলেও ভাল প্রদর্শন করতে তাতিয়ে দিতে পারে। নিজেদের গ্রুপে নেদারল্যান্ডসের মতো শক্তিশালী প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে লড়াই করে তবেই তাঁদের পরবর্তী রাউন্ডের টিকিট নিশ্চিত হয়েছে। প্রথম ম্যাচে নর্থ ম্যাসিডোনিয়ার বিরুদ্ধে ১-১ ফল থাকাকালীন ডেভিড আলাবা দলকে যেভাবে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে ৩-১ ফলে জিততে উদ্বুদ্ধ করেছিলেন, সেরকম কিছু এই ম্যাচে ইতালির বিরুদ্ধে ঘটলে অঘটন ঘটার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। আলাবা ছাড়াও বমগার্টনার, লাইমার, উলমেররা মুখিয়ে থাকবেন ভাল কিছু করতে। গোলে ব্যাচম্যানের ফর্ম তাঁদেরকে নিঃসন্দেহে স্বস্তি দেবে। সবকিছু ঠিকঠাক চললে ৯০ মিনিটের একটা উপভোগ্য ম্যাচের সাক্ষী থাকতেই পারি।

বন্ধ করুন