বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > EURO 2020: ‘এখনও এক বড় বাধা পেরোতে হবে’, ফাইনালে পৌঁছে সতর্কবার্তা সাউথগেটের
কেনের গোলের পর ইংল্যান্ড ম্যানেজার সাউথগেটের উচ্ছ্বাস। ছবি- উয়েফা ইউরো।
কেনের গোলের পর ইংল্যান্ড ম্যানেজার সাউথগেটের উচ্ছ্বাস। ছবি- উয়েফা ইউরো।

EURO 2020: ‘এখনও এক বড় বাধা পেরোতে হবে’, ফাইনালে পৌঁছে সতর্কবার্তা সাউথগেটের

  • ১০৪ মিনিটে হ্যারি কেনের গোলে সেমিফাইনালে ডেনমার্ককে পরাস্ত করে ইংল্যান্ড।

৫৫ বছরের ব্যথা, বেদনা, গ্লানি সব ধুয়ে মুছে সাফ শুধুমাত্র একটা কিকে। কোটি কোটি ইংলিশ জনগণ ইউরোর মেগা সেমিফাইনালের রাতে তাকিয়ে ছিলেন তাদের অধিনায়ক হ্যারি কেনের একটি শটের দিকে। ১০৪ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোলা করতে ব্যর্থ হলেও ফিরতি বলকে জালে জড়িয়ে ইংল্যান্ডকে ইউরোর ফাইনালে পৌঁছে দেন হ্যারি কেন।

খেতাব জয়ের লড়াইয়ে কেনদের জন্য প্রতিপক্ষ টুর্নামেন্টের একমাত্র ১০০ শতাংশ ম্যাচ জেতা মানচিনির ইতালি। প্রথমবার ইউরোর ফাইনালে পৌঁছলেও খেতাব জয়ের পথ যে একেবারেই ফুলে মোড়ানো হবে না, সেই বিষয়ে ভালভাবেই অবগত ইংল্যান্ড ম্যানেজার গ্যারেথ সাউথগেট। তাই আগেভাগেই সতর্কবার্তা দিয়ে রাখলেন তিনি।

ম্যাচের পর ITV-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সাউথগেট বলেন, ‘আমরা ফাইনালে নিজেদের জায়গা পাকা করতে সক্ষম হয়েছি। এটা অবশ্যই খুবই আনন্দের বিষয়। তবে আমাদের এখনও একটা বড় বাধা পেরোতে হবে। ইতালি একটি দুর্ধর্ষ দল। ওদের ডিফেন্সে দুই যোদ্ধা রয়েছে এবং গোটা দলটাই দারুণ পারফর্ম করেছে। ফাইনালে আমরা একটা দারুণ ম্যাচের সাক্ষী হতে যাচ্ছি।’

ডেনমার্ক ম্যাচের আগে সমর্থকদের বাড়তি প্রত্যাশার চাপকে অতিরক্ত অনুপ্রেরণা হিসাবে কাজে লাগানোর কথা বলেছিলেন ইংল্যান্ড ম্যানেজার। দেশের আপামর জনগণকে সন্তুষ্ট করতে পেরে খুশির সুর সাউথগেটের গলাতেও।

‘সবথেকে আনন্দদায়ক ব্যাপার হল আমরা আমাদের সমর্থক ও গোটা দেশকে এক স্মরণীয় রাত উপহার দিতে পেরেছি। সফরটা আরও চারদিন চলবে। মস্কোতে এমনই একটি রাতে (২০১৮ সালে ক্রোয়েশিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে) আমাদের হতাশ হতে হয়েছিল, তারপর এমন একটা রাত পার করা গোটা দলের জন্য খুবই আনন্দদায়ক।’ দাবি সাউথগেটের।

বন্ধ করুন