বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > UEFA Nations League: গোল পেলেন না রোনাল্ডো, আবারও ড্র পর্তুগাল-স্পেন ম্যাচ
স্পেন-পতুর্গাল ম্যাচ শেষে পাও তোরেস ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর সৌজন্য বিনিময়। ছবি- এপি। (AFP)

UEFA Nations League: গোল পেলেন না রোনাল্ডো, আবারও ড্র পর্তুগাল-স্পেন ম্যাচ

  • পর্তুগাল-স্পেন ম্যাচ ড্র হলেও, আরলিং হালান্ডের গোলে সার্বিয়ার বিরুদ্ধে জিতল নরওয়ে।

ক্লাব ফুটবল মরশুম শেষ হয়ে গেলেও, এখনও কিন্তু সম্পূর্ণভাবে এ বারের ফুটবল মরশুম শেষ হয়নি। ফিফা বিশ্বকাপের কোয়ালিফায়ারের খেলা চলছে। পাশাপাশি উয়েফে নেশনস লিগের খেলাও চালু হয়ে গিয়েছে। নেশনস লিগেরই এক ম্যাচে পশ্চিম ইউরোপের দুই শক্তিধর দেশ স্পেন ও পর্তুগাল মুখোমুখি হয়েছিল মাঝসপ্তাহে।

২০১২ সালের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে স্পেন শেষবার পর্তুগালকে পেনাল্টিতে হারিয়েছিল। দুই শক্তিধর দেশের ম্যাচ সাম্প্রতিক সময়ে বারবার ড্র হয়েছে। শেষ ম্যাচ দুইটি তো গোলশূন্য ড্র হয়। তবে এদিন আবারও ম্যাচ ড্র হলেও, তা বেশ রোমাঞ্চকরই ছিল। ম্যাচের ২৫ মিনিটে আলভারো মোরাতা স্পেনের পরিচিত পাসিং ফুটবলের পর সুন্দর এক ফিনিশে লা রোহাকে এগিয়ে দেন। অবশ্য পর্তুগাল গোলরক্ষক দিয়োগো কোস্টার সেভ করার প্রচেষ্টা খানিকটা হলেও তাঁর পা পিছলে যাওয়ায় ব্যাহত হয়।

তার পরপরই স্পেনের কার্লোস সোলের দারুণ এক পাস থেকে এক নয়, দুইবার গোল করার সুযোগ পেয়েও বল গোলের বাইরে মারেন। ম্যাচে পিছিয়ে থাকলেও ধীরে ধীরে ফিরে আসে পর্তুগাল। এদিন পর্তুগিজদের হয়ে অধিনায়ক ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো ম্যাচ শুরু করেননি। তবে সিরি এ-র এ মরশুমের সেরা ফুটবলার নির্বাচিত হওয়া রাফায়েল লিয়াও এবং আন্দ্রে সিলভা প্রথমার্ধের আগে গোল করার সুবর্ণ সুযোগ পান। কিন্তু দুইজনের শটই অল্পের জন্য মিস হয়। বল দখলের বিচারে স্পেন বরাবরই এগিয়ে থাকে, এই ম্যাচেও তাই হয়েছে। ১৭ বছরের মিডফিল্ডার গাভি মাঝমাঠ থেকে স্পেনের হয়ে ফের একবার এক অনবদ্য পারফরম্যান্স দেন। 

তবে চোরা গতির সুবাদে পর্তুগাল বারবার স্পেন রক্ষণকে সমস্যায় ফেলে। দ্বিতীয়ার্ধে সিলভা ও লিয়াও যুগলবন্দির মাধ্যমে ফের একবার গোলের সুযোগ পায় পর্তুগাল। কিন্তু লিয়াওয়ের শট দারুণভাবে বাঁচিয়ে দেন স্পেন গোলকিপার উনাই সিমন। দ্বিতীয়ার্ধে রোনাল্ডো পরিবর্ত হিসাবে নামলেও তিনি আহামরি কিছু করেননি। তবে ম্যাচ গড়ালে জাও ক্যান্সেলো, বার্নাডো সিলভাদের ক্রসিং তীক্ষ্ণ হয়ে উঠে। ক্যান্সেলোর এমনই এক মাপা ক্রস থেকে পরিবর্ত হিসাবে নামা হোরতা ৮২ মিনিটে পর্তুগালকে সমতায় ফেরান। ম্যাচে আর গোল না হওয়ায় তা ১-১ ড্রয়ে শেষ হয়।

অপরদিকে, আরলিং হালান্ডের গোলে সার্বিয়াকে মাত দেয় নরওয়ে। ম্যাচের ২৬ মিনিটে মার্টিন ওডেগার্ডের রক্ষণভেদী পাস পায়ে পেয়ে তা হালান্ডের উদ্দেশ্যে বাড়িয়ে দেন মার্কাস পেডেরসন, এর থেকেই গোল আসে। তবে গোটা ম্য়াচে সার্বিয়াই দাপট দেখায়। দ্বিতীয়ার্ধে তারা নরওয়ে রক্ষণকে ভীষণ চাপে ফেলে। গোলকিপার নাইল্যান্ড একের পর এক দারুণ সেভ করেন। এরজেরেই শেষমেশ ১-০ ম্যাচ জিতে নেয় নরওয়ে।

বন্ধ করুন