বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > আমি তো সম্মান পাই না সমর্থকদের থেকে- হঠাৎ কেন গোঁসা হল নেইমারের?
পেরুর বিরুদ্ধে ম্যাচে বল দখলের লড়াইয়ে নেইমার। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)
পেরুর বিরুদ্ধে ম্যাচে বল দখলের লড়াইয়ে নেইমার। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)

আমি তো সম্মান পাই না সমর্থকদের থেকে- হঠাৎ কেন গোঁসা হল নেইমারের?

  •  পেরুর বিরুদ্ধে ম্যাচে একটি গোল করার পাশপাশি অন্য গোলটির জন্য অ্যাসিস্টও আসে নেইমারের পা থেকেই।

আর্জেন্তিনা ম্যাচ ভেস্তে গেলেও পেরুর বিরুদ্ধে ২-০ গোলে ম্যাচ নিজেদের নামে করে ব্রাজিলের বিজয়রথ অব্যাহত। ম্যাচে আবারও গোল ও অ্যাসিস্ট প্রদান করে যাবতীয় শিরোনাম দখল করে নিয়েছেন নেইমার। তবে হঠাৎই ম্যাচের পর সমর্থকদের উদ্দেশ্যে নিজের ক্ষোভ উগড়ে দেন ব্রাজিলিয়ান মহাতারকা।

ম্যাচের পর সাংবাদিক সম্মেলনে নেইমার বলেন, ‘আমি জানি না ব্রাজিল জার্সি গায়ে আর কী করলে সমর্থকরা আমাকে প্রাপ্য সম্মানটুকু দেবে। এমনটা একেবারেই স্বাভাবিক নয়। বহুকাল ধরেই সাংবাদিক, ধারাভাষ্যকার এবং অন্যান্য বহু লোকের কাছ থেকেই আমি এটা (সমালোচনা) অকারণেই পেয়ে আসছি। কখনও কখনও তো আমার সাক্ষাৎকার দিতেও ইচ্ছা করে না। তবে প্রয়োজনের সময় নিজের দিক আমি থেকে সবটা উজাড় করে দেওয়ার চেষ্টা করি।’

অনবদ্য দক্ষতা ও বিশ্বের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় হলেও নিজের উশৃঙ্খল জীবন-যাপন ও এমনকী মাঠে গোল করে দলকে জেতালেও নিজের পারফরম্যান্সের সমালোচিত হন নেইমার। সম্প্রতি চিলি ম্যাচেও ব্রাজিল ১-০ জেতার পরে তাঁর শারীরিক ওজন নিয়ে সমালোচনা ও কটাক্ষ ধেয়ে আসে। তবে মাঠে অন্তত পরিসংখ্যানের বিচারে কিন্তু নেইমার বিশ্বের সর্বকালের সেরাদের মধ্যেই পরেন। 

নিজের ১১৩তম ম্যাচে এই নিয়ে ৬৯টি গোলের পাশাপাশি ৪৯তম অ্যাসিস্টও প্রদান করেন নেইমার। তাঁর করা ১২ গোল বিশ্বকাপ যোগ্যতাপর্বে ব্রাজিলিয়ানদের মধ্যে সর্বোচ্চ। যোগ্যতাপর্বের আট ম্যাচের সবকটি জিতে ব্রাজিল পরের বছর বিশ্বকাপ খেলার দিকে তড়তড়িয়ে এগিয়ে চলেছে। হয়ত বিশ্বকাপ ট্রফি হাতে তুলতে পারলেই সমস্ত সমালোচনার হাত থেকে রেহাই পাবেন ব্রাজিলের ১০ নম্বর জার্সিধারী।

বন্ধ করুন