বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ইস্টবেঙ্গলের চুক্তিপত্র দেখে কী বললেন সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়! কোন পক্ষের পাশে দাঁড়ালেন প্রাক্তন ক্রিকেটার
ইস্টবেঙ্গল পতাকা হাতে সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায় (ছবি: ফেসবুক)
ইস্টবেঙ্গল পতাকা হাতে সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায় (ছবি: ফেসবুক)

ইস্টবেঙ্গলের চুক্তিপত্র দেখে কী বললেন সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়! কোন পক্ষের পাশে দাঁড়ালেন প্রাক্তন ক্রিকেটার

  • ইস্টবেঙ্গল ও শ্রী সিমেন্টের চুক্তিপত্র দেখে ক্লাবের সচিবকে চিঠি লিখলেন প্রাক্তন ক্রিকেটার সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

তাহলে কি ক্লাব কর্তারাই ঠিক! লগ্নিকারী সংস্থা যা দাবি করছেন সেগুলো ভুল! এমন সব প্রশ্ন আর জল্পনা ঘুরছে লাল হলুদ ক্লাবকে ঘিরে। ইস্টবেঙ্গল ক্লাব ও শ্রী সিমেন্টের মধ্যে চুক্তিপত্র দেখে আসার পর থেকেই সকলের নজর ছিল বাংলার ক্রিকেটার সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিকে। সকলেই জানতে চাইছিলেন সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের কী বলবেন। কী মত দেবেন ময়দানের প্রাক্তন এই ক্রিকেটার? অবশেষে চুক্তিপত্র দেখে নিজের অভিমত ক্লাবের সচিবের কাছে পাঠিয়ে দিলেন সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়। তাতে সবকিছুই পয়েন্ট করে লিখলেন তিনি।

ক্লাবের সচিবকে লেখা সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের চিঠি 
ক্লাবের সচিবকে লেখা সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের চিঠি 

চুক্তিপত্রের কিছু অংশ পড়ে শেষ পর্যন্ত ক্লাবের কর্তাদের পাশেই দাঁড়ালেন সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়। চুক্তিপত্র দেখে নিজের মতামত জানালেন বাংলার প্রাক্তন রঞ্জি ট্রফি জয়ী অধিনায়ক। তিনি মনে করেন চূড়ান্ত চুক্তিপত্রে ক্লাবের সই করা উচিত নয়। ক্লাব সচিব কল্যাণ মজুমদারের উদ্দেশে সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায় একটি চিঠিও লিখেছেন। তিনি তাতে জানিয়েছেন, ‘আমি ক্লাবে গিয়ে চুক্তিপত্রের কিছু কাগজ দেখলাম। আমি আইনজ্ঞ নই যে সবটা দেখে বলতে পারব। যতটুকু দেখলাম, তার ভিত্তিতে মতামত দিলাম।’

সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের চিঠিতে যে বিষয়গুলো উল্লেখ করেছেন সেগুলো হল, বিচ্ছেদে দুই তরফেরই সুযোগ থাকা উচিত। সেটা এখানে নেই। সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতে এতে ক্লাবের ক্ষতি হবে। অন্য আর একটি বিষয় তিনি তুলে ধরেছেন। তিনি জানিয়েছেন এই চুক্তিতে সদস্যদের অধিকার খর্ব করা হয়েছে। আর সমর্থকরা ক্লাবে ঢুকলে অপরাধী হবেন। তাঁদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নিতে পারবে লগ্নিকারী সংস্থা। এছাড়াও চুক্তিপত্রের আর একটি বিষয় নিয়ে তিনি জানাতে গিয়ে তিনি বলেন ক্লাবকে কোম্পানির হাতে হস্তান্তর করার কথা লেখা রয়েছে, যা কখনও বদলানে যাবে না। যা কখনও ক্লাব কর্তারা ফেরত পাবেন না।

ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের অনুষ্ঠানে সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায় (ছবি: ফেসবুক)
ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের অনুষ্ঠানে সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায় (ছবি: ফেসবুক)

এখন দেখার সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মন্তব্যের পরে জল কোন দিকে গড়ায়। এবার কী তবে একটু স্বস্তি পাবেন ক্লাব কর্তারা। তাঁর যার জন্য লড়াই করছিলেন সেটাতে কি তারা সফল হবেন। কী হবে ইস্টবেঙ্গলের ভবিষ্যৎ?

বন্ধ করুন