বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > চূড়ান্ত চুক্তি কবে? ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের গড়িমসিতে বিরক্ত লগ্নিকারী সংস্থা ইমামি!
ইস্টবেঙ্গল ও ইমামির চুক্তির দিকে তাকিয়ে গোটা ফুটবল মহল (ছবি-টুইটার)

চূড়ান্ত চুক্তি কবে? ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের গড়িমসিতে বিরক্ত লগ্নিকারী সংস্থা ইমামি!

  • ইমামি গ্রুপের কর্ণধার আদিত্য আগরওয়াল বলেন, ‘সোমবার আমরা সংশোধিত চুক্তিপত্র পাঠিয়ে দিয়েছিলাম। তারপর সেটা দেখে ক্লাব আমাদের কাছে তা পাঠিয়েছে বলে কোনও খবর নেই। কবে পাঠাবে সেটা ক্লাবই বলতে পারবে ৷’ এরপরেই প্রশ্ন উঠেছে তাহলে চুক্তি কোন অবস্থায় রয়েছে?

রিলায়েন্সের কর্তা তরুণ ঝুনঝুনওয়ালা নাকি দেশে ফিরেছেন। তাঁর উপস্থিতিতেই ইস্টবেঙ্গল ও ইমামির চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার কথা। কিন্তুকোথায় কি, লগ্নিকারী সংস্থা ও ক্লাবের চুক্তির সই পর্ব নিয়ে এখনও কোনও ইতিবাচক খবর পাওয়া যাচ্ছে না। ইমামি গ্রুপের কর্ণধার আদিত্য আগরওয়াল বলেন, ‘সোমবার আমরা সংশোধিত চুক্তিপত্র পাঠিয়ে দিয়েছিলাম। তারপর সেটা দেখে ক্লাব আমাদের কাছে তা পাঠিয়েছে বলে কোনও খবর নেই। কবে পাঠাবে সেটা ক্লাবই বলতে পারবে ৷’ এরপরেই প্রশ্ন উঠেছে তাহলে চুক্তি কোন অবস্থায় রয়েছে? তাহলে কি চূড়ান্ত চুক্তি নিয়ে আবার বিতর্ক শুরু হল!

আরও পড়ুন… গয়না কিনতে গিয়ে হীরা নিয়ে ফিরলাম-২ বছরের চুক্তিতে বেঙ্গালুরুতে লাল-হলুদ তারকা

সূত্র তরফ থেকে জানা গিয়েছে, সোমবার রাতে চুক্তিপত্র লগ্নিকারীর দফতর থেকে ক্লাবে পৌঁছে যায়। তারপর দ্রুত তা খতিয়ে দেখার পর চূড়ান্ত রূপায়নের জন্য লগ্নিকারীর দফতরে পৌঁছবে বলে আশা করা হয়েছিল। কিন্তু বুধবার বিকেল পর্যন্ত তা ইমামির দফতরে পৌছয়নি বলেই জানা গিয়েছে। ফলে লগ্নিকারী সংস্থা ইমামি গ্রুপের তরফে পরিমার্জিত চুক্তিপত্র ক্লাবে পৌঁছেছে প্রায় দুই দিন হয়ে গেল। কিন্তু তা খতিয়ে দেখে চূড়ান্ত চুক্তির জন্য ইস্টবেঙ্গল কর্তারা নাকি এখনও লগ্নিকারী সংস্থাকে ফিরিয়ে দেননি৷ ফলে ক্লাবের সমর্থকেরা ধরেই নিয়েছে যে ক্লাব ও লগ্নিকারী সংস্থার চুক্তিজট এখনও কাটেনি। ক্লাবের কেন এ বিষয়ে গড়িমসি করছে তা লগ্নিকারী বুঝতে পারছে না। অনেকেই মনে করছেন বিষয়টি আরও জটিলতার দিকেই এগোচ্ছে। 

আরও পড়ুন… গয়না কিনতে গিয়ে হীরা নিয়ে ফিরলাম-২ বছরের চুক্তিতে বেঙ্গালুরুতে লাল-হলুদ তারকা

এদিকে আগেই শোনা গিয়েছিল ইস্টবেঙ্গল ক্লাব কলকাতা লিগ, ডুরান্ড-সহ সব টুর্নামেন্ট খেলতে পারে। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি যা তাতে দল হয়তো টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করবে, কিন্তু সাফল্য আসবে কিনা তা সময়ই বলবে। একদিকে আইএসএল-এর বাকি দলেরা যখন দল গঠনে অনেকটা এগিয়ে গিয়েছে, সেখানে লাল হলুদে এখনও চুক্তি জট কাটল না। এরফলে প্রায় প্রতিদিনই ইস্টবেঙ্গল থেকে ফুটবলাররা অন্য দলে চলে যাওয়ার খবরে আশাহত হচ্ছে ইস্টবেঙ্গল জনতা। আশঙ্কায় দিন কাটাচ্ছে লাল হলুদ জনতা। ক্লাব কর্তাদের পরবর্তি পদক্ষেপের দিকে তাকিয়ে সকলে। 

বন্ধ করুন