বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > হঠাৎ কেন থমকে গেল ইস্টবেঙ্গলের দল গঠনের প্রক্রিয়া! কী চলছে ক্লাবের ভিতরে?
সল্টলেক স্টেডিয়ামে ইস্টবেঙ্গল সমর্থকেরা

হঠাৎ কেন থমকে গেল ইস্টবেঙ্গলের দল গঠনের প্রক্রিয়া! কী চলছে ক্লাবের ভিতরে?

  • শোনা যাচ্ছে, ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের কর্তারা নাকি নতুন লগ্নিকারীর কাছে এ বার আরও বেশি শতাংশ শেয়ার চাইছেন। তাই এখনও চুক্তিপত্রে সই করা হয়নি। শোনা যাচ্ছে যতক্ষণ না দুই পক্ষ ঐক্যমত্য হচ্ছে, ততক্ষণ স্থগিত থাকবে দল গঠনের কাজ।

আবার কি অনিশ্চয়তার কালো মেঘ দেখা দিচ্ছে ইস্টবেঙ্গলে! নতুন লগ্নিকারী সংস্থার সঙ্গে ফের সম্পর্ক নিয়ে ফের উদ্বেগ বাড়ছে লাল হলুদে। সূত্রের খবর, নতুন লগ্নিকারী সংস্থার সঙ্গে এখনও ক্লাবের চুক্তি হয়নি ফলে স্থগিত হয়ে গিয়েছে ইস্টবেঙ্গলের দল গঠনের প্রক্রিয়া। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে শ্রীসিমেন্টের পরে ইমামি গোষ্ঠীও ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধতে রাজি হয়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত দু’পক্ষের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়নি। নতুন লগ্নিকারী সংস্থার কর্তারাও সবকিছু খতিয়ে দেখছেন। আদৌ তাঁরা বিনিয়োগ করবেন কি না সে বিষয়ে কোনও ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে এই চুক্তির ভবিষ্যৎ নিয়ে অনেকেই সংশয়ে রয়েছেন।

আরও পড়ুন… Remove ATK আন্দোলন নিয়ে পড়শি ক্লাবকে খোঁচা টুটুর, পাল্টা পাটকেল নীতুর

নতুন লগ্নিকারীর সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার ক্ষেত্রে কী সমস্যা হচ্ছে? বিশেষজ্ঞ মহলের মতে, ইস্টবেঙ্গলের মালিকানার কত শতাংশ কাদের হাতে থাকবে, তা নিয়ে এখনও পর্যন্ত দু’পক্ষের মধ্যে সমঝোতা হয়নি। আগের লগ্নিকারীর ছিল ৭৬ শতাংশ মালিকানা। ক্লাবের অধীনে ছিল ২৪ শতাংশ। শোনা যাচ্ছে, ইস্টবেঙ্গল কর্তারা নাকি নতুন লগ্নিকারীর কাছে এ বার আরও বেশি শতাংশ শেয়ার চাইছেন। তাই যতক্ষণ না ঐক্যমত্যে পৌঁছবে দুই পক্ষ, তত ক্ষণ স্থগিত থাকবে দল গঠনের কাজ।

আরও পড়ুন… Remove ATK আন্দোলন নিয়ে পড়শি ক্লাবকে খোঁচা টুটুর, পাল্টা পাটকেল নীতুর

শনিবার লগ্নিকারী সংস্থার ডিরেক্টর আদিত্য বর্ধন আগরওয়াল এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে আমাদের নিয়মিত আলোচনা চলছে। আইনজীবীরা সব কিছু খুঁটিয়ে দেখছেন।।’ শোনা গিয়েছিল, শনিবার নাকি লগ্নিকারী সংস্থার তরফে চুক্তির খসড়া পর্যালোচনার জন্য পাঠানো হবে ইস্টবেঙ্গলকে। লাল-হলুদের কর্তাদের দাবি, তাঁরা চুক্তির খসড়া পাননি। লক্ষ লক্ষ লাল-হলুদ সমর্থকদের মনে একটাই প্রশ্ন, সামনেই কলকাতা লিগ ও ডুরান্ড কাপ। তার পরে শুরু হবে আইএসএল। ইস্টবেঙ্গল কি আদৌ খেলতে পারবে? নাকি এবারেও চলবে  লগ্নিকারী সংস্থার সঙ্গে ক্লাবের মত বিরোধ? তবে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন ইস্টবেঙ্গলের ক্লাব কর্তারা অতীতের ভুল আর রিপিট করবেন না, ফলে শীঘ্রই হয়ো লগ্নিকারী সংস্থার সঙ্গে সব জটিলতা মিটে ক্লাবের আকাশে তৈরি হওয়া কালো মেঘ কেটে যাবে।

 

বন্ধ করুন