বাংলা নিউজ > ময়দান > রঞ্জি বাদ দিন, বুমরাহ ক্লাব ক্রিকেটেও নেতৃত্ব দেওয়ার যোগ্য নয়- ভারতের প্রাক্তনী

রঞ্জি বাদ দিন, বুমরাহ ক্লাব ক্রিকেটেও নেতৃত্ব দেওয়ার যোগ্য নয়- ভারতের প্রাক্তনী

জসপ্রীত বুমরাহ।

বুমরাহ কিন্তু প্লেয়ার হিসেবে নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। ব্যাটে-বলে নিজের অবদান তিনি রাখতে চেয়েছেন। বুমরাহ এই ম্যাচে পাঁচ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি প্রথম ইনিংসে অপরাজিত ৩২ রানের দুরন্ত ইনিংসও খেলেন। তবু তাঁর নেতৃত্ব দেওয়াক ক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই গিয়েছে।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে এজবাস্টন টেস্টের সময় জসপ্রীত বুমরাহের অধিনায়কত্ব নিয়েও প্রশ্ন যেমন উঠেছে, তেমন অনেকেই আবার বুমরাহের হয়ে ভোট দিয়েছেন। রোহিত শর্মা করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর টেস্ট টিম থেকে ছিটকে যায়। তখন অধিনায়ক হিসেবে বেছে নেওয়া হয় বুমরাহকে।

তবে বুমরাহ কিন্তু প্লেয়ার হিসেবে নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। ব্যাটে-বলে নিজের অবদান তিনি রাখতে চেয়েছেন। বুমরাহ এই ম্যাচে পাঁচ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি প্রথম ইনিংসে অপরাজিত ৩২ রানের দুরন্ত ইনিংসও খেলেন। এমন কী বুমরাহের জন্যই টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে সবচেয়ে ব্যয়বহুল ওভারের লজ্জার নজিরে নাম লেখা হয় স্টুয়ার্ট ব্রডের। যাইহোক এই টেস্ট বুমরাহের নেতৃত্বে ভারতে হেরে গিয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই বুমরাহকে নিয়ে এখন সমালোচনা চলছে।

আরও পড়ুন: কোহলিকে অপমান ECB-র, নেট পাড়ায় ক্ষোভ, ক্রিকেট বোর্ডের দায়বদ্ধতা নিয়ে উঠল প্রশ্ন

প্রাক্তন ভারতীয় পেসার কারসন ঘাউড়ি তো রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বুমরাহের নেতৃত্ব নিয়ে। তিনি দাবি করেছেন, সব ফাস্টবোলারই ভালো অধিনায়ক হতে পারে না। ঘাউড়ি, যিনি মুম্বাই এবং সৌরাষ্ট্রের হয়ে ১৫৯টি প্রথম-শ্রেণীর ম্যাচ খেলে ৪৫২টি উইকেট নিয়েছেন, তিনি বলেছেন, যিনি কখনও কোনও স্তরে কোনও দলের অধিনায়ক হননি, সেই বুমরাহের কাছে এটি অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। তাঁর নেতৃত্বের কৌশল একেবারেই পছন্দ হয়নি প্রাক্তন তারকার।

আরও পড়ুন: ‘ভালো স্পিনার দলে না থাকায় ওদের ক্ষতি হয়েছে’, ভারতকে তিরস্কার ব্রিটিশ প্রাক্তনীর

মিড ডে-তে ঘাউড়ি বলেছেন, ‘বুমরাহ কখনও কোনও দলের অধিনায়কত্ব করেননি। রঞ্জি ট্রফি দলের কথা ভুলে যান, তিনি এমন কী কোনও ক্লাবের নেতৃত্ব দেননি। ও যোগ্ দেখুন, একজন অধিনায়কের মন সম্পূর্ণ ভিন্ন। তাঁকে মাঠের স্থান নির্ধারণ এবং বোলিং পরিবর্তন এবং নানা কৌশল নিয়ে ভাবতে হবে। ড্রেসিংরুমে, আমি নিশ্চিত (প্রধান কোচ) রাহুল দ্রাবিড় এবং অন্যান্য কোচরা অনেক পরিকল্পনা করেছিলেন, কিন্তু যখন ১১ জন খেলোয়াড় মাঠে নামেন, তখন অধিনায়ককে অবশ্যই সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে হবে। বুমরাহ তা করতে পারেনি।’

ঘাউড়ি যোগ করেছেন যে রোহিত যদি সময় মতো ফিট না হয়ে উঠেছিলেন, তবে বিরাট কোহলির সিরিজ-নির্ধারক ম্যাচে অধিনায়ক হওয়া উচিত ছিল। দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে সিরিজে হারের পর কোহলি ভারতের টেস্ট অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিয়েছিলেন। তবে যেহেতু তিনি প্রথম চারটি টেস্টের অধিনায়ক ছিলেন, যাতে ভারত ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে ছিল, সেই কারণেই ঘাড়ড়ি মনে করেন, প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক এই ভূমিকার জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত ছিলেন।

তাঁর মতে, ‘যখন রোহিত শর্মা এই টেস্টের জন্য উপলব্ধ ছিলেন না (কোভিড-১৯ পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছি), তখন কোহলির বলা উচিত ছিল যে, আমি এই দলের নেতৃত্বের দায়িত্ব নেব। জয়-পরাজয় খেলার একটি অংশ, কিন্তু এই রকম কঠিন পরিস্থিতিতে, আমার মনে হয়েছিল কোহলির এগিয়ে আসা উচিত ছিল।’

বন্ধ করুন