বাংলা নিউজ > ময়দান > অবসরের পরে মানসিক অবসাদের কথা জানালেন মিচেল জনসন

শুভব্রত মুখার্জি

অস্ট্রেলিয়ার একসময়ের দাপুটে পেসার ছিলেন বাঁহাতি মিচেল জনসন। ২০১৫ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ জয়ের অন্যতম কান্ডারি ছিলেন তিনি। তারপর ২০১৫ সালের নভেম্বর মাসেই ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন তিনি। পেসার হিসেবে তাঁর সময়কালে বিশ্বের অন্যতম ত্রাস ছিলেন মিচেল জনসন।

২০০৯ সালে স্যার গ্যারি সোবার্স ট্রফি অর্থাৎ আইসিসির ক্রিকেটার অফ দি ইয়ার সম্মানে ভূষিত হন তিনি। ফর্ম হারানোর পরে বাদ পড়েন দল থেকেও। ফিরে এসে ২০১৪ সালে ফের জিতে নেন আইসিসির টেস্ট ক্রিকেটার অফ দি ইয়ার পুরস্কার। এরপর ২০১৫ সালের নভেম্বর মাসে ক্রিকেটের ২২ গজকে বিদায় জানানোর পরেই শুরু হয় তার জীবনে নানা সমস্যা।

এই বিষয়েই এবার মুখ খুললেন তিনি। অকপটে জানালেন একাধিক অজানা কাহিনী। তিনি জানান, 'ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার পরে আমি খুব সমস্যার মধ্যে পড়ি। হঠাৎ করেই আমি বেকার হয়ে যাই। হঠাৎ করেই তুমি তোমার লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে গেছে বলে মনে হয়। আমি আমার আত্মবিশ্বাস নিয়ে অনেক সময় সমস্যায় পড়েছি। আমি এখন একটি ট্রানজিশান পিরিয়ডে রয়েছি। অবসরের পরে আমি অনেকবার বুঝতে পেরেছি আমার ডিপ্রেশান হয়েছে। আমি ভুগছি ডিপ্রেশানে। আমি মনে করি আমি ক্রিকেট ছাড়ার পরে আরও বেশি ডিপ্রেশানে ভুগেছি কারন ক্রিকেট অনেকসময় মনকে অন্যদিকে ঘুরিয়ে রাখত। যা অবসরের পরে সম্ভব হয়নি। আমি আমার ক্রিকেট কেরিয়ারে বহুবার এই সমস্যায় ভুগেছি। আমি একটা জিনিস দেখেছি যত বেশি আমি সক্রিয় থাকব তত বেশি এইসব সমস্যা থেকে দূরে থাকব।'

বন্ধ করুন